বিজ্ঞাপন

অফিসিয়াল গ্রুপে যোগ দিন

বাংলাদেশের স্পোর্টসভিত্তিক শীর্ষ অনলাইন ম্যাগাজিন

টপ ট্রেন্ডিং সাকিব আল হাসান/ তামিম ইকবাল/ মুশফিকুর রহিম/ বিরাট কোহলি/ বাবর আজম/ মেসি/ নেইমার/ রোনালদো/ ব্রাজিল/ আর্জেন্টিনা/ রিয়াল মাদ্রিদ/ বার্সেলোনা/ পিএসজি

মেসির লাল কার্ডের রাতে চ্যাম্পিয়ন অ্যাথলেটিকো বিলবাও

প্রকাশ: সোমবার, ১৮ জানুয়ারী, ২০২১ | ১০:০৭:২১

ডেইলি স্পোর্টসবিডি ডেস্ক

ছবিঃ ইন্টারনেট
ছবিঃ ইন্টারনেট

গেল বছর ট্রফিলেস মৌসুম কাটে স্প্যানিশ জায়ান্ট বার্সেলোনার। নানা নাটকীয়তার মধ্যে দলের সেরা তারকা লিওনেল মেসিরও ক্লাব ছাড়ার গুঞ্জন শুরু হয়। পুরোনো বছরের ব্যর্থতার সব গ্লানি মুছে নতুন বছর শিরোপা জিতে শুরু করতে পারত কাতালান ক্লাবটি। কিন্তু, বার্সেলোনার শনির দশা যেন কাটছেই না। প্রতিযোগিতার সবচেয়ে সফলতম দলটি শিরোপার এত কাছে গিয়েও ৩-২ গোলে হেরে হতাশা নিয়ে মাঠ ছাড়ে। মরার উপর খড়ার ঘা ৭৫৩ ম্যাচ পর বার্সেলোনার হয়ে দীর্ঘ ক্যারিয়ারে লিওনেল মেসির প্রথম লাল কার্ড !

লাল কার্ড দেখে মেসির মাঠ থেকে বের হওয়ার মুহূর্ত। ছবিঃ ইন্টারনেট

রবিবার রাতে সেভিয়ার লা কার্তুজায় মৌসুমের প্রথম শিরোপা জয়ের লক্ষ্যে অ্যাথলেটিকো বিলবাওয়ের মুখোমুখি হয় রোনাল্ড কোম্যানের শিষ্যরা। বল দখলের লড়াইয়ে যথারীতি এগিয়ে ছিল বার্সেলোনা। যদিও এই দিনের চিত্রটা ছিল কিছুটা ভিন্ন। প্রতিপক্ষের আক্রমণ সামলাতে ও নিজেদের খেলা গুছিয়ে নিতেই ব্যস্ত সময় কাটছিল তাদের। লং পাসে তাদের রক্ষণে বারবার ভীতি ছড়াচ্ছিল বিলবাও। যদিও তারাও পারছিল না কোন সুযোগ তৈরি করতে।

৪০তম মিনিটে আতোয়ান গ্রীজম্যানের গোলে এগিয়ে যায় বার্সেলোনা। মেসির বাড়ানো বল ডি-বক্সে ফাঁকায় পেয়ে শট না নিয়ে ফিরতি পাস দেন জর্দি আলবা। তবে প্রতিপক্ষের বাধার মুখে ঠিকমতো শট নিতে পারেননি বার্সেলোনা অধিনায়ক। বিলবাও ডিফেন্ডাররাও পারেনি বিপদমুক্ত করতে, ফাঁকায় বল পেয়ে নিচু শটে গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন ফরাসি স্ট্রাইকার।

যদিও এই লিড বেশিক্ষণ ধরে রাখতে পারেনি কাতালানরা। ম্যাচে ফিরতে মার্সেলিনোর দল সময় নেয় মাত্র ২ মিনিট। ৪২তম মিমিটে ইনাকির ক্রসে কাছ থেকে ডান পায়ের টোকায় বল জালে পাঠান স্প্যানিশ মিডফিল্ডার অস্কার ডি মার্কোস। প্রথমার্ধ শেষ হয়ে ১-১ গোলের সমতায়।

বিরতি থেকে ফিরে বিলবাওয়ের ডিফেন্সে আক্রমণের ধার বাড়ায় বার্সেলোনা। যার ফল পেতে সময় লাগে আরও ৩০ মিনিট। ৭৭তম মিনিটে গ্রীজম্যানের গোলে আবারও এগিয়ে যায় প্রতিযোগিতার সর্বোচ্চ ১৩ বারের চ্যাম্পিয়নরা। বাঁ দিক থেকে আলবার ছয় গজ বক্সের মুখে বাড়ানো নিচু পাস ফাঁকায় পেয়ে প্লেসিং শটে গোল করে দ্বিতীয়বার বার্সেলোনাকে এগিয়ে দেন সাবেক অ্যাথলেটিকো মাদ্রিদের স্ট্রাইকার।

গোল পেয়ে রক্ষণেও যেন কিছুটা অমনোযোগী হয়ে উঠে কাতালানরা। বারবার ডিফেন্স ছেড়ে আক্রমণে উঠে আসে লিওনেল মেসিরা। যার নির্মম পরিণতির শিকার হয় খেলা শেষ হওয়ার পূর্ব মুহুর্তে। ম্যাচের ৯০তম মিনিটে আসিয়েরের গোলে ফের সমতায় ফেরে বিলবাও। ডান দিক থেকে ইকের মুনিয়াইনের দারুণ ফ্রি-কিকে কাছ থেকে বলে পা লাগিয়ে ঠিকানা খুঁজে নেন স্প্যানিশ ফরোয়ার্ড। ৩ মিনিট পর প্রথমবার ম্যাচে লিড নেয় মার্সেলিনোর দল। অতিরিক্ত সময়ের তৃতীয় মিনিটে ইনাকি উইলিয়ামস জোরালো শটে বিলবাওকে এগিয়ে দেন।

আরও খেলার খবরঃ   পিএসজির প্রতি নারাজ ছিলেন থিয়াগো সিলভা

তারপর অতিরিক্ত সময়ে বারবার হানা দিয়েও বিলবাওয়ের ডিফেন্সের চিড় ধরাতে ব্যর্থ হয় বার্সেলোনা। ১১৩তম মিনিটে গ্রীজম্যান ফাঁকা পেয়েও হতাশ করে। হতাশার চূড়ান্ত পেরেক ঠুকে যায় খেলা শেষ হওয়ার ঠিক আগ মুহুর্তে। মেজাজ হারিয়ে মাঝমাঠের কাছে বিলবাওয়ের আসিয়েরকে অহেতুক আঘাত করে বসেন আর্জেন্টাইন স্ট্রাইকার। সেখান থেকে ভিএআরের সাহায্যে লাল কার্ড দেখান রেফারি। বার্সেলোনার হয়ে ৭৫৩ ম্যাচের দীর্ঘ ক্যারিয়ারের প্রথমবার লালকার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন লিওনেল মেসি। একটু পর রেফারি শেষ বাশি বাজালে অ্যাথলেটিকো বিলবাও শিরোপা উল্লাস করে। এটি বিলবাওয়ের তৃতীয় শিরোপা।

২০১৫ সালে এই বার্সেলোনাকেই দুই লেগে ৫-২ গোলে হারিয়ে সর্বশেষ স্প্যানিশ সুপার কাপের শিরোপা জিতে লস লিওনেসরা।

সাম্প্রতিক খবর

ক্লাব ফুটবল / ঘুরে দাঁড়িয়ে জয়ে ফিরলো বার্সেলোনা
আন্তর্জাতিক ক্রিকেট / চাহালকে নিয়ে জাতিবিদ্বেষী মন্তব্য, গ্রেফতার যুবরাজ সিং জামিনে মুক্ত
বাংলাদেশ ক্রিকেট / বাংলাদেশ অধিনায়ক বারবার বললেন, “আমি হতাশ, অনেক বেশি হতাশ, চিন্তিত”
বাংলাদেশ ক্রিকেট / মুশফিকের উইকেটকিপিং ইস্যুতে নাখোশ তামিম ইকবাল
বাংলাদেশ ক্রিকেট / স্কটল্যান্ডের কাছে হেরে বিদায়ের শঙ্কা বাংলাদেশের
ক্লাব ফুটবল / লেওয়ানডস্কির জোড়া গোলে হেসেখেলে জয়ে ফিরল বায়ার্ন মিউনিখ
বাংলাদেশ ক্রিকেট / জয় দিয়ে বিশ্বকাপ শুরু করতে বাংলাদেশের চাই ১৪১
টপ ট্রেন্ডিং সাকিব আল হাসান/ তামিম ইকবাল/ মুশফিকুর রহিম/ বিরাট কোহলি/ বাবর আজম/ মেসি/ নেইমার/ রোনালদো/ ব্রাজিল/ আর্জেন্টিনা/ রিয়াল মাদ্রিদ/ বার্সেলোনা/ পিএসজি