ফুটবল > ক্লাব ফুটবল

রোমাঞ্চকর ফাইনালে সান্তোসকে হারিয়ে শিরোপা প্যালমেইরাসের

নিউজ ডেস্ক

৩১ জানুয়ারী ২০২১, সকাল ৭:১৪ সময়

[ 2982030-61196348-2560-1440 ]
ছবিঃ ইন্টারনেট।
কনমেবল অঞ্চলের চ্যাম্পিয়নস লীগ খ্যাত ৬১তম কোপা লিবার্তাদোরেসে সান্তোসকে ১-০ গোলে হারিয়ে দুই যুগ পর শিরোপা ঘরে তুলল প্যালমেইরাস। এটি সাও পাওলোর ক্লাবটির মহাদেশীয় শ্রেষ্ঠত্বের লড়াইয়ে দ্বিতীয় শিরোপা। কোপা লিবার্তাদোরেসে ফাইনালে 'ডার্বি অব নস্টালজিয়া' উপলক্ষ্যে উৎসবের ঢঙে সেজেছিল ফুটবলের দেশ ব্রাজিল। দু ভাগে বিভক্ত হয়ে গেছিলো পুরো দেশ। রিও ডি জেনিরোর বিখ্যাত মারাকানা স্টোডিয়ামে ঘটনাবহুল এই ম্যাচে নির্ধারিত সময়ের নব্বই মিনিট গোলশূন্য ড্র ছিল। আক্রমণ আর প্রতি আক্রমণে রোমাঞ্চকর লড়াইয়ে দুদলই বেশকিছু গোল করার সুযোগ পেয়েছিল। কিন্তু, আক্রমণভাগের খেলোয়াড়দের ব্যর্থতায় আর গোল করা হয়নি। গোলশূন্য ড্র ম্যাচ যেখানে ট্রাইবেকারে গড়াচ্ছিল তখনই প্যালমেইরাসের ত্রাতা হয়ে আসেন বদলি হয়ে নামা ব্রিনো লোপেজ। ম্যাচের অতিরক্তি সময়ের খেলা চলছে। ম্যাচের ৯৭তম মিনিটে প্রতি আক্রমণে সান্তোসের ডি বক্সের বাহিরে বল পায় প্যালমেইরাসের ফরোয়ার্ড রোনিলসন বারবোসা। সেখান থেকে দারুণ ক্রসে বল পাঠান সান্তোসের ডি বক্সে। রোনিলসন ক্রস ডি বক্সে খুজে নেয় ব্রেনো লোপেজকে। লাফ মেরে হেড দিয়ে সান্তোসের জাল খুজে পান ২৫ বছর বয়সী এই ফরোয়ার্ড। ম্যাচের বাঁকী সময় আর কোন গোল না হলে ব্রেনো লোপেজের একমাত্র গোলেই দুই যুগ পর মহাদেশীয় শ্রেষ্ঠত্বের লড়াইয়ে শিরোপা জিতে প্যালমেইরাস। শিরোপাজয়ী গোল করে দারুণ আনন্দিত ব্রেনো লোপেজ। এই গোলকে ক্যারিয়ারের সেরা অর্জন বলে দাবী প্যালমেইরাস ফরোয়ার্ডের। ম্যাচ শেষে লোপেজ বলেন, "এটি অন্যরকম মুহুর্ত। আমার জীবনের সেরা মূহুর্ত। ইতিহাসের অংশ হতে পেরে আমি খুশি।" অন্যদিকে শিষ্যদের এমন পারফরম্যান্সে খুশি প্যালমেইরাস কোচ আবিল ফেরেইরা। শিষ্যদের কাছে মাঠে এমন পারফরম্যান্সই আশা করেছিলেন প্যালমেইরাস কোচ। আবিল পেরেইরা বলেন, "এসব মুহুর্ত বর্ণনা করা যাবে না। ছেলেদের প্রতি আমার বিশ্বাস ছিল আমি এতটুকুই বলতে চাই।"