ফুটবল > বাংলাদেশ ফুটবল

জয়রথ ছুটছেই বসুন্ধরা কিংসের

নিউজ ডেস্ক

২৭ জানুয়ারী ২০২১, দুপুর ২:৩৬ সময়

[ img-20210127-wa0006 ]
করোনায় স্থগিত হওয়া সিজন থেকে চলতি সিজনে অন্য এক বসুন্ধরা কিংসকে দেখতে পাচ্ছে দেশের ফুটবল প্রেমিরা। ফেডারেশন কাপে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হয়ে জানান দিয়েছিলো প্রিমিয়ার লীগেও সবাইকে ছাড়িয়ে যাবে বসুন্ধরা কিংস। প্রিমিয়ার লীগে প্রথম চার ম্যাচেই জয় তুলে নিয়ে ঠিক সেটাই প্রমান করার পথে বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। নিজেদের চতুর্থ ম্যাচে রহমতগঞ্জকে ৩-০ গোলে হারিয়ে লীগ টেবিলের শীর্ষ স্থান ধরে রাখলো কিংস। দলের হয়ে গোল করেন ব্রাজিলিয়ান রবসন দ্যা সিলভা ও তৌহিদুল আলম সবুজ। বাকি একটি গোল রহমতগঞ্জের ডিফেন্ডার মাহমুদুল হাসান কিরনের নিজেদের জালেই বল জড়ান। ম্যাচের প্রথমার্ধেই দুই গোলে এগিয়ে যায় বসুন্ধরা কিংস। তবে ২৬ মিনিটের মাথায় প্রথম বারের মত আক্রমণে যায় বসুন্ধরা কিন্তু মাহবুবুর রহমান সুফিলের বাকানো শট গোলকিপার রাসেল মাহমুদ লিটন রক্ষা করেন। তবে ম্যাচের ২৮ মিনিটে ডি-বক্সের মধ্যে রাউল বেচাররা কে ফাউল করেন গোলকিপার রাসেল মাহমুদ লিটন। এতে পেনাল্টির বাশি বাজান রেফারি আনিসুর রহমান। তবে রেফারির সিদ্ধান্ত না মেনে বাক বিতন্দে জড়িয়ে পড়ে রহমতগঞ্জ ফুটবলাররা। যার ফলে প্রায় ৫ মিনিট খেলা বন্ধ থাকে। অবশেষে ৩৪ মিনিটে পেনাল্টি থেকে বসুন্ধরা কিংসকে এগিয়ে নেন ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড রবসন দ্যা সিলভা। এক গোলের লিড নিয়েই ক্ষান্ত হয়নি বসুন্ধরা কিংস। ম্যাচের প্রথমার্ধের একদম শেষ মুহূর্তে রহমতগঞ্জ ডিফেন্ডার মাহমুদুল হাসান কিরনের আত্মঘাতি গোলে ২-০ তে এগিয়ে যায় কিংস। ডান পাশ থেকে সবুজের বাড়ানো বল গোলকিপার লিটনের হাত ছুয়ে আসলে কিরনের পায়ে লেগে নিজেদের জালেই জড়ায়। বিরতি থেকে ফিরে আবারও রহমতগঞ্জের উপর চড়াও হতে থাকে বসুন্ধরা কিংস। কিংসের আক্রমণ সামলানোর পাশাপাশি বেশ কয়েকবার আক্রমণে যায় রহমতগঞ্জ। কিন্তু ফরোয়ার্ডদের ব্যর্থতায় গোলকিপার জিকোকে পরাস্ত করতে পারেনি। উলটো ম্যাচের ৮৬ মিনিটে জনাথন ফার্নান্দেজের বাড়ানো পাস থেকে বল জালে জড়ান দেশি ফরোয়ার্ড তৌহিদুল আলম সবুজ। এরপর আর কোনো গোলের দেখা না পেলে ৩-০ গোলের বড় জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে বসুন্ধরা কিংস। এই জয়ে চার ম্যাচে চার জয় নিয়ে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে অবস্থান করছে বসুন্ধরা কিংস। অন্যদিকে চার ম্যাচে ১ ড্র ও ৩ হারে টেবিলের ১২ নাম্বারে রহমতগঞ্জ।