ফুটবল > ক্লাব ফুটবল

মেসিকে দোষারোপ করছেন না রোনান্ড কোম্যান

নিউজ ডেস্ক

১৮ জানুয়ারী ২০২১, সকাল ৯:৫৯ সময়

[ images-33 ]
হতাশা নিয়ে মাঠ ছাড়েন লিওনেল মেসি। ছবিঃ এএস ইংলিশ
রবিবার রাতটা ভালো কাটেনি বার্সেলোনা ফ্যানদের। সেভিয়ার লা কার্তুজায় অ্যাথলেটিকো বিলবাওয়ের কাছে রোমাঞ্চকর ফাইনালে হেরে শিরোপা বঞ্চিত কাতালানরা। হতাশার রাতে ষোলকলা পূর্ণ হয় ম্যাচের অন্তিম মুহুর্তে দলের সেরা তারকা লিওনেল মেসির লাল কার্ড। বার্সেলোনার জার্সিতে ১৭ বছরের বর্ণাঢ্য ক্লাব ক্যারিয়ারে ৭৫৩ ম্যাচ পর প্রথমবারের মতো লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়লেন ছয়বারের ব্যালন ডি'অর জয়ী ফুটবলার লিওনেল মেসি। [caption id="attachment_1512" align="alignnone" width="739"] হতাশা নিয়ে মাঠ ছাড়েন লিওনেল মেসি। ছবিঃ এএস ইংলিশ[/caption] তবে লিওনেল মেসির এই লাল কার্ডে মেসির কোন দোষ দেখছেন না বার্সা কোচ রোনান্ড কোম্যান। এই ডাচ কোচ বলেন, "আমি বুঝতে পারছি মেসি কী করেছে। কিন্তু কতবার তাকে ফাউল করা হয়েছে, আমি বলতে পারব না। যখন একজন খেলোয়াড় বল নিয়ে ড্রিবল করতে গেলেই তারা একের পর এক ফাউল করতে থাকবে, তখন এমন প্রতিক্রিয়া দেখানো স্বাভাবিক। আমাকে আরও ভালোভাবে দেখতে হবে এটা।" ম্যাচের ১২০তম মিনিটের খেলা চলছে। অ্যাথলেটিক বিলবাওয়ের বক্সের বাইরে বল পেয়েছিলেন মেসি। বাঁ প্রান্তে সতীর্থকে বল ঠেলে বিলবাওয়ের বক্সে ঢুকতে দৌড় শুরু করেছিলেন আর্জেন্টাইন তারকা। এই সময় মেসিকে আটকানোর জন্য তার ঠিক সামনে এসে পড়ে বিলবাওয়ের আসিয়ার। এমতাবস্থায়, মেজাজ হারিয়ে আসিয়ারের মাথার পিছনে আঘাত করে বসেন মেসি ! প্রথমে ঘটনা রেফারির চোখ এড়িয়ে গিয়েছিল। কিন্তু ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারি (ভিএআর) দিয়ে পুনরায় পর্যবেক্ষণ করে সাথে সাথে মেসিকে সরাসরি লাল কার্ড দেখান রেফারি। সেই সাথে বার্সেলোনার হয়ে বর্ণাঢ্য ক্যারিয়ারের প্রথমবার সরাসরি লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়লেন আর্জেন্টাইন মহাতারকা। বার্সেলোনার জার্সিতে ৭৫৩তম ম্যাচে মেসির এটি প্রথম লাল কার্ড পাওয়ার ঘটনা। এই নিয়ে তার ক্যারিয়ারে সবমিলিয়ে লাল কার্ড সংখ্যা ৩। ২০০৫ সালে আর্জেন্টিনার হয়ে আন্তর্জাতিক ফুটবলে মাত্র ৪০ সেকেন্ডে লালকার্ড দেখার লজ্জা পান মেসি। তারপর দ্বিতীয় লালকার্ড দেখতে সময় লাগে আরও ১৪ বছর। ২০১৯ সালে কোপা আমেরিকার তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচে চিলির বিপক্ষে লালকার্ড দেখে মাঠ ছাড়তে হয় মেসিকে। ক্যারিয়ারের প্রথম লাল কার্ড নিয়ে বিতর্ক থাকলেও দ্বিতীয় লাল কার্ড দেখতে মেসির সময় লাগে এক যুগেরও বেশি সময়। কিন্তু, শেষ তিন বছরেই আর্জেন্টাইন তারকা লালকার্ড দেখে ফেললেন দুবার। বুঝায় যাচ্ছে বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে মেসিও যেন নিয়ন্ত্রণ হারাচ্ছেন! এই ঘটনায় মেসির ভাগ্যে জুটতে পারে বড় শাস্তি। ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসি জানিয়েছে, আচরণ নিয়ন্ত্রণ করতে না পারায় সর্বোচ্চ চার ম্যাচের জন্য নিষিদ্ধ হতে পারেন তিনি। সুপার কাপের নিষেধাজ্ঞা ঘরোয়া লীগ ও কোপা দেল রেতেও কার্যকর হয়। বার্সেলোনার পরবর্তী ম্যাচ কোপা দেল রে তে। শুক্রবারে স্পেনের দ্বিতীয় সারির ক্লাব কর্নেল্লার আতিথ্যে নিবে কাতালানরা।