ফুটবল > বাংলাদেশ ফুটবল

নতুন বছরে কিংসের দুই ব্রাজিলিয়ানের নতুন ভাবনা

নিউজ ডেস্ক

১৩ জানুয়ারী ২০২১, সকাল ৭:১৩ সময়

[ whatsapp-image-2021-01-13-at-11-50-38 ]
ছবিঃ বসুন্ধরা কিংসের ফেসবুক পেইজ।
বাংলাদেশ ফুটবলের শীর্ষ পর্যায়ে পা দেওয়ার খুব বেশি দিন হয়নি বসুন্ধরা কিংসের। প্রথম সিজনেই স্বাধীনতা কাপের পর বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগ জিতে নেয় বসুন্ধরা কিংস। দেশীয় তারকাদের দলের ভেড়ানোর পাশাপাশি বরাবরই মানসম্মত বিদেশি ফুটবলার সাইন করেছে বিগ বাজেটের দলটি। যার শুরুটা হয়েছিল ২০১৮ বিশ্বকাপ খেলা কোস্টোরিকান ড্যানিয়েল কলিন্ড্রেসের মাধ্যমে। এছাড়া প্রথম সিজেনেই দলে আনা হয় লাতিনের অন্যতম দেশ ব্রাজিলের মার্কোস ভিনিসিয়াসকে, এই সিজনে দলের হয়ে লীগে ১৪ গোল করে সর্বোচ্চ গোলদাতা ছিলেন ভিনিসিয়াস। এরপর একে একে বখতিয়ার দেশোদুভেক, আখতার নাজারোভ, নিকোলাস দেলমন্তের পর হার্নান বার্কোসের মত তারকাদের উড়িয়ে নিয়ে আসে বসুন্ধরা কিংস। মালদ্বীপের টিসি স্পোর্টসের বিপক্ষে ৫-১ গোলের জয়ে দিন একাই চার গোল করে সবাইকে তাঁক লাগিয়ে দিয়েছিলেন লিওনেল মেসির এক সময়কার সতীর্থ। কিন্তু এএফসি কাপে মাত্র ১ ম্যাচ খেলেই বসুন্ধরা কিংসকে বিদায় জানিয়েছেন আর্জেন্টাইন হার্নান বার্কোস। করোনা কালীন সময়ে মাঠে খেলা না থাকায় কোস্টারিকান ড্যানিয়েল কলিন্ড্রেস, কিরগিজস্তানের বখতিয়ার, তাজিকিস্তানের আখতাম নাজারোভ, আর্জেন্টাইন নিকোলাস দেলমন্ত ছাড়াও হার্নান বার্কোস কে ছেড়ে দেয় বসুন্ধরা কিংস। এরপর এএফসি কাপে ভাল করা লক্ষ্যে নতুন চার বিদেশিকে দলে ভেড়ায় বসুন্ধরা কিংস। দুই ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড রবসন দ্যা সিলভা ও মিডফিল্ডার জনাথন ফার্নান্দেস, আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড রাউল বেচাররা ও ইরানী ডিফেন্ডার খালেদ শাফি যোগ দেন কিংস শিবিরে। নতুন বছরে নতুন ভাবে বসুন্ধরা কিংসের জন্য সাফল্য এনে দিতে বদ্ধ পরিকর ফরোয়ার্ড রবসন দ্যা সিলভা ও জনাথন ফার্নান্দেস। নিজ দেশ ব্রাজিল ছেড়ে বাংলাদেশের মাটিতে বসুন্ধরা কিংসের হয়ে ভাল করার স্বপ্ন দেখেন এই দুই ব্রাজিলিয়ান। ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার জনাথান ফার্নান্দেস জানিয়েছেন, "আমি বসুন্ধরা কিংসের জার্সি গায়ে দিতে পেরে বেশ খুশি অনুভব করছি। নতুন বছরে আমার লক্ষ্য থাকবে বসুন্ধরা কিংসের হয়ে নিজেকে আরও প্রতিষ্ঠিত করা এবং এই সিজনে ক্লাবের সাফল্য অর্জনে সর্বোচ্চ চেষ্টা করা। যাতে আমরা ক্লাবের দর্শক ও সবার জন্য আনন্দের মুহূর্ত বয়ে আনতে পারি।" ২১ বছর বয়সী এই ব্রাজিলিয়ান নতুন বছরের প্রথম দিন তার পরিবার ও সহকর্মীদের সাথে কাটিয়েছেন। বাংলাদেশে নতুন বছর কেমন কাটলো এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, "দারুণ একটা সন্ধ্যা কাটিয়েছি। আমি আমার জন্মভূমি ছেড়ে দূরে থাকলেও নতুন বছরের প্রথম দিনটা আমার সহকর্মী ও তাদের পরিবারের সাথে দারুণ সময় কাটিয়েছি।" বসুন্ধরা কিংসের আরেক ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড রবসন দ্যা সিলভা বলেছেন যে, প্রতিটা টুর্নামেন্টেই বসুন্ধরা কিংসকে নিজের সেরাটা দিয়ে সাহায্য করতে চায়। নতুন বছরের শুরুটা কেমন হল এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, "এই বছরের শেষ টা আমার জন্য কিছুটা ভিন্ন ছিল কেননা এই প্রথম আমি আমার দেশ,পরিবার ও বাবা-মা থেকে দূরে ছিলাম তবে আমি বেশ খুশিতেই নতুন বছর বরণ করে নিয়েছি। আমার টিমমেটদের সাথে উদযাপন করেছি। এখানে খুবই ঠান্ডা ছিল এবং আমরা অনেক মজা করেছি।" ২০২১ সালে আমি আমার সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা করবো এবং বসুন্ধরা কিংসকে সব টুর্নামেন্টেই চ্যাম্পিয়ন করতে সাহায্য করতে চাই। ছবিঃ বসুন্ধরা কিংসের ফেসবুক পেইজ।