ক্রিকেট > বাংলাদেশের ক্রিকেট

সাকিবকে নিয়ে মন্তব্য উইন্ডিজ অধিনায়ক ব্রাথওয়েটের

নিউজ ডেস্ক

১৪ জানুয়ারী ২০২১, রাত ৩:৪৫ সময়

বাংলাদেশের সেরা অস্ত্র হিসেবে সাকিবকে দেখলেও মুশফিক-রিয়াদদেরও সমীহ করছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজ অধিনায়ক, তবে এই সিরিজে নিজেদের পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করে ভালো ফলের প্রত্যাশা করছেন ক্রেইগ ব্রাথওয়েট। ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব গোপন করে আইসিসির দেওয়া নিষেধাজ্ঞায় ১ বছর সব ধরনের ক্রিকেট থেকে দূরে ছিলেন সাকিব আল হাসান, গত বছরের অক্টোবরে নিষেধাজ্ঞা উঠে গেলেও এখনও আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরা হয়নি সাকিবের। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দীর্ঘ বিরতির পর আবারও আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরতে যাচ্ছেন সাকিব, দীর্ঘ সময় মাঠের বাহিরে থাকলেও তাকেই বাংলাদেশের সেরা অস্ত্র হিসেবে দেখছেন ক্যারিবিয়ান অধিনায়ক ক্রেইগ ব্রাথওয়েট। সাকিবকে সেরা অস্ত্র হিসেবে দেখলেও মুশফিকুর রহিম ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকেও সমীহ করছেন ব্রাথওয়েট, আনুষ্ঠানিক ভাবে অনুশীলন শুরুর আগে ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে কথা বলেছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের এই অধিনায়ক। তিনি বলেন, "সাকিব অবশ্যই ওদের জন্য মূল অস্ত্র। মুশফিক খুব ভালো খেলোয়াড়, তাদের দলে মাহমুদউল্লাহও আছে। অভিজ্ঞ খেলোয়াড় আছে, পাশাপাশি বাংলাদেশের মাটিতে খেলবে। ভালোমানের স্পিনার এবং সামর্থ্যবান ব্যাটসম্যান আছে।" বাংলাদেশকে সমীহ করলেও নিজেদের কাজটা ভুলে যাচ্ছেন না ক্রেইগ ব্রাথওয়েট। তিনি আরও বলেন, "আপনি যদি নিজেদের পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করতে পারেন এবং নিজেদের ওপর বিশ্বাস রাখতে পারেন, তাহলেই আপনি সফল হবেন।" বাংলাদেশের বিপক্ষে স্পিনই যে সবচেয়ে বড় প্রতিপক্ষ হতে যাচ্ছে সেটাও মনে রেখেছেন ক্যারিবিয়ানদের এই অধিনায়ক, সে ভাবেই প্রস্তুতিও নিয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ দল সেটাও জানিয়েছেন তিনি। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এই ধরনের চ্যালেঞ্জ নিতে হয় জানিয়ে নিজেদের প্রস্তুতির কথাও উল্লেখ করেছেন ক্রেইগ ব্রাথওয়েট। তিনি বলেন, "স্পিনাররা গত সফরে বেশ ভালো করেছিল। আমরা এবার ভালো প্রস্তুতি নিয়েই এসেছি, আশা করছি ভালো করতে পারবো। নিজেদের পরিকল্পনায় স্থির থাকতে হবে আমাদের, সেই সাথে সেগুলো মাঠে কাজে লাগাতে হবে। নিজেদের প্রস্তুতিতেও বিশ্বাস রাখতে হবে, আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সব সময়ই আপনার সামনে চ্যালেঞ্জ আসবে।" ২০ জানুয়ারি ওয়ানডে দিয়ে মাঠে গড়াবে বাংলাদেশ ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলের ২ টেস্ট ও ৩ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ, ২২ ও ২৫ জানুয়ারি হবে বাঁকি দুই ওয়ানডে। ৩ ও ১১ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে টেস্ট সিরিজের ম্যাচ গুলো, দুইটা সিরিজই আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ ও ওয়ানডে সুপার লিগের অংশ।