বিজ্ঞাপন

অফিসিয়াল গ্রুপে যোগ দিন

বাংলাদেশের স্পোর্টসভিত্তিক শীর্ষ অনলাইন ম্যাগাজিন

টপ ট্রেন্ডিং সাকিব আল হাসান/ তামিম ইকবাল/ মুশফিকুর রহিম/ বিরাট কোহলি/ বাবর আজম/ মেসি/ নেইমার/ রোনালদো/ ব্রাজিল/ আর্জেন্টিনা/ রিয়াল মাদ্রিদ/ বার্সেলোনা/ পিএসজি

নিউজিল্যান্ডে তিক্ত কোয়ারান্টাইনে টাইগারদের যেন বেজায় অবস্থা!

প্রকাশ: রবিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী, ২০২১ | ১৪:১৪:৫৯

ডেইলি স্পোর্টসবিডি ডেস্ক

করোনাভাইরাস নিয়ে অত্যান্ত কঠোর যতগুলো দেশ আছ্যে তন্মধ্যে তাসমানিয়া সাগর পাশের দেশ নিউজিল্যান্ড অন্যতম। কঠোর কোভিড-১৯ নীতিমালার কারণে অনেকটা নিরাপদও দেশটি। গ্যালারিতে বস হাজার হাজার দর্শক সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা বা মাস্ক ছাড়াই খেলা দেখছেন। যেটি হয়েছে শুধুমাত্র কঠোর নিয়ম কানুনের কারণেই।

সাদা বলের সিরিজ খেলতে নিউজিল্যান্ডে গিয়ে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে আছে বাংলাদেশ। প্রথমবার এমন সঙ্গোনিরোধ পরিবেশে ৫ দিন রয়েছে তামিম ইকবালরা। এমন পরিবেশে যেন হাফ ছেড়ে বাচার উপায় নেই। নিউজিল্যান্ডে তাই বেহাল দশা বাংলাদেশের।

ভিভিও বার্তায় মেহেদি হাসান মিরাজ বর্ণনা দিয়েছেন নিউজিল্যান্ডের কঠিন অবস্থার। তিনি বলেন,

“বুঝতেই পারছেন কেমন আছি। এই প্রথম পাঁচটা দিন হোটেলের মধ্যে বন্দী অবস্থায় কাটিয়েছি। প্রথম তিন দিন তো কারও সাথে দেখা সাক্ষাৎই হয়নি। ফোনে ফোনে কথা হয়েছে, ভিডিও কলে কথা হয়েছে সবার সাথে।”

তবে প্রথ্যম ৩ দিন শেষে এখন দিনে ৩০ মিনিটের জন্য হোটেল রুমের বাইরে খেলোয়াড়রা সুযোগ পাচ্ছেন কিছুক্ষণ হাঁটাহাঁটি করার। ৫ দিন হলো ক্রাইস্টচার্চে আছে বাংলাদেশ। সময় গড়ানোর সাথে সাথে আবহাওয়ার সাথেও খাপ খাইয়ে নিচ্ছে সবাই। মিরাজ আরও বলেন,

“প্রথমদিকে তো বোরিং লাগছিল। সময়ই কাটছিল না। যেহেতু পাঁচদিন কেটে গেছে পরের তিন দিনও ইনশাআল্লাহ আশা করি কেটে যাবে। প্রথম তিন দিন হোটেল রুমে বন্দি ছিলাম তারপরে বের হবার সুযোগ পেয়েছে সবাই আধা ঘন্টার জন্য। আমি যখন প্রথম তিনদিন পরে বের হয় তখন একটু মাথা ঘুরছিল।
তারপর ১০-১৫ মিনিট পর আস্তে আস্তে ঠিক হয়ে গিয়েছিল। তিন দিন এভাবে হোটেল রুমে বন্দি থেকে মনে হচ্ছিল জেলখানায় আছি। একটু হতাশও লাগছিল। যখন বাইরে বের হবার সুযোগ পেলাম এবং আবহাওয়ার সাথে মানিয়ে নিতে পারলাম তখন ভালো ফিল হয়েছে। সারাদিনতো আর রুমে থাকতে ভালো লাগে না।”

ক্রাইস্টচার্চে বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটাররা।

তবে দুর্দশা কাটতে শুরু করেছে মিরাজদের। প্রথম সপ্তাহ শেষ হলেই দলের সাথে অনুশীলনের সুযোগ পাবে সবাই। বাংলাদেশি এই অলরাউন্ডার আরও বলেন,

“৬-৭ দিন হলে আমরা যখন জিম বা মাঠে যেতে পারবো তখন ভালো লাগবে। এখন হয়তো সময় কাটছে না। এখানে যদি জিম বা কোন কাজ করার সুযোগ থাকতো তাহলে হয়তো সময়টা ভালো যেত। আমাদের বডি ফিটনেসটাও ভালো হতো। এখন যেহেতু সুযোগ নেই দুই-তিনদিন পর যখন সুযোগ হবে তখন হয়তো আরও বেটার লাগবে।”

সাম্প্রতিক খবর

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট / বাংলাদেশকে লজ্জা দেওয়া স্কটল্যান্ডকে হারিয়ে ইতিহাস নামিবিয়ার
অ্যাথলেটিক্স / বঙ্গবন্ধু ৫ম আর্টিস্টিক জিমন্যাস্টিকস এর উদ্বোধন
আন্তর্জাতিক ফুটবল / মিশরের জাতীয় শিক্ষাব্যবস্থায় যুক্ত হয়েছে সালাহ’র নাম!
আন্তর্জাতিক ক্রিকেট / অসহায় নাসুম বলেই ফেললেন, ‘আমাদের দ্বারা হচ্ছে না’
বাংলাদেশ ফুটবল / ফুটবলেও হার দিয়ে বাছাইপর্ব শুরু বাংলাদেশের
বাংলাদেশ ক্রিকেট / ইংল্যান্ডের কাছে পাত্তাই পেলো না বাংলাদেশ
বাংলাদেশ ক্রিকেট / ইংল্যান্ডের বিপক্ষে জয়ের জন্য বাংলাদেশের পুঁজি ১২৪
টপ ট্রেন্ডিং সাকিব আল হাসান/ তামিম ইকবাল/ মুশফিকুর রহিম/ বিরাট কোহলি/ বাবর আজম/ মেসি/ নেইমার/ রোনালদো/ ব্রাজিল/ আর্জেন্টিনা/ রিয়াল মাদ্রিদ/ বার্সেলোনা/ পিএসজি