ক্রিকেট > আন্তর্জাতিক ক্রিকেট

হারের পিছনে কোহলিরা 'এসজি বল'কে দায়ী করলেও নির্মাতারা বলছেন ভিন্ন কথা

নিউজ ডেস্ক

১১ ফেব্রুয়ারি ২০২১, সকাল ৯:২৪ সময়

[ post_image_5fd814a ]
ছবিঃ ইন্টারনেট।
৪ বছর পর ঘরের মাঠে টেস্ট হেরেছে ভারত। ২২৭ রানের বিশাল জয় পেয়েছে ইংল্যান্ড। টেস্ট হেরে গদি নিয়ে টানাটানি বেধেছে কোহলির। চেন্নাই টেস্ট হারের জন্য এসজি বলকে দায়ী করেছে ভারতীয় খেলোয়াড়েরা। নির্দিষ্ট সময়ের আগেই এসজি বলের সেলাই ছিড়ে গেছে। যার ফলে শেষ ১৫/২০ ওভার বল একেবারে অকেজো হয়ে গিয়েছিল বলে অভিযোগ বিরাট কোহলি-রবিচন্দ্রন অশ্বিনের। মঙ্গলবার ম্যাচের পর কোহলি বলেছেন, “পিচ পাটা এবং ধীরগতির ছিল। সেখানে বলের যে অবস্থা হয়েছিল সেটা দেখে আমরা মোটেই খুশি হতে পারিনি। এর আগেও এ জিনিস হয়েছে। ৬০ ওভারের মধ্যে যদি বলের সেলাই পুরোপুরি উঠে যায়, সেটা একটা টেস্ট দলের পক্ষে মোটেও কাজের কথা নয়। এর জন্য আমরা প্রস্তুতও ছিলাম না।” শুধু কোহলি নন। একই কথা বলছেন অফ স্পিনার রবিচন্দ্রন অশ্বিনও। অশ্বিন জানিয়েছেন মাত্র ৩৫ ওভারেই ছিড়ে গেছে বলের সুতা। যেটা এর আগে কখনই দেখেননি তিনি। অশ্বিন বলেন, "এ ভাবে বলের সেলাই ছিঁড়ে যেতে আগে কোনওদিন দেখিনি। এতেই বোঝা যাচ্ছে প্রথম দু’দিন পিচ কতটা শক্ত ছিল। দ্বিতীয় ইনিংসে ৩৫-৪০ ওভারের মাথায় বলের সেলাই উঠে আসছিল। গত কয়েক বছরে এ রকম এসজি বল দেখিনি।” এমন অভিযোগের জবাবে এসজি বল নির্মাতা প্রতিষ্ঠানের প্রধান পরস আনন্দ জানিয়েছেন, বলের গুণগত মান কমে যাওয়ার পিছনে বল নয়, দায়ী চিপকের উইকেট। যদিও বল বানানোর সময় প্লেয়ারদের চাহিদার কথা মাথায় রেখে ভবিষ্যতে বল বানাবে এসজি, সেটিও জানিয়েছেন আনন্দ। এক ওয়েবসাইটকে দেয়া সাক্ষাৎকারে আনন্দ বলেছেন,
“ম্যাচের পর অশ্বিন বলেছিল, আমি কোনওদিন বলের চামড়া এ ভাবে উঠে যেতে দেখিনি। মনে হয় এর জন্য পিচও দায়ী। এই কথাটাই আমরা তুলে ধরতে চাইছি। আগে থেকে সমালোচনা বা ঢাকা চাপা দেওয়ার চেষ্টা না করে ক্রিকেটারদের সঙ্গে কথা বলাই এ ক্ষেত্রে সবচেয়ে ভাল। আগে আমাদের দেখতে হবে পিচ কী রকম ছিল। তারপর সেই অনুযায়ী বলের নির্মাণে কোনও বদল আনা যায় কি না দেখতে হবে।”