ফুটবল > ক্লাব ফুটবল

'৯০০' এর লড়াই শেষে এগিয়ে মেসি নাকি রোনালদো?

নিউজ ডেস্ক

১১ ফেব্রুয়ারি ২০২১, রাত ৮:৩১ সময়

[ telemmglpict000173284605_trans_nvbqzqnjv4bq7-s-esznnmen2azakkemthk4vtm2x3jf6polptm-ypq ]
একক্লাসিকোতে মেসি ও রোনালদো। ছবিঃ দ্যা টেলিগ্রাফ
কে সেরা? লিওনেল মেসি নাকি ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো? এই একটা প্রশ্নের উত্তর দিতে গিয়ে ফুটবল প্রেমীদের একবারের জন্য হলেও ভাবনার চিন্তায় ডুব দিতে হয়। এই একটা প্রশ্নের উত্তর দিতে গিয়ে ফুটবল প্রেমীরা দুই ভাগে ভাগ হয়ে যায়। যদিও এই প্রশ্নের উত্তর দেওয়া একজন সাধারণ দর্শকের জন্য কঠিন কাজ বটে। শুধু সাধারণ দর্শকই বা কেন, ফুটবল বোদ্ধারাও এই প্রশ্নের উত্তর দিতে ভ্যাবাচ্যাকা খেয়ে যান। তবে তথাকথিত নিজস্ব মতামতে অনেকেই রোনালদোকে সেরা বানান আবার অনেকেই লিওনেল মেসিকে সেরার মঞ্চে দাড় করান। একজন ক্ষিপ্র গতিতে দলকে জেতাতে পছন্দ করেন আরেকজন ঠান্ডা মাথার খুনির মত প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করে মাঠ ছাড়তে ভালবাসেন। কখনও তারা নিজ দলকে উল্লাসে ভাসাতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন আবার কখনও শত চেষ্টাতেও ম্যাচ শেষে হাসি মুখ নিয়ে ফিরতে ব্যর্থ হন। তবে দিন শেষে দু'জনই দলের জয় এনে দিতে বদ্ধ প্রতিজ্ঞাবদ্ধ, তাদের চিন্তা-চেতনায় ঘিরে থাকে মাঠে আর কত টুকু দিলে জয় নিয়ে ফেরা সম্ভব। যদিও দু'জন কখনই একই দলের হয়ে না খেললেও ক্যারিয়ার শুরুর পর থেকেই অঘোষিত ভাবেই একে অপরের প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবেই মাঠে লড়াই করেছে। ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড থেকে রিয়াল মাদ্রিদে যোগ দেওয়ার পর সেই লড়াই আরও বেশি উত্তপ্ত হয়েছে। এই লড়াইয়ের প্রতিফলন দেখা গিয়েছে এল ক্লাসিকো নামক মহারণের মঞ্চে। এল ক্লাসিকো মানেই ছিল লিওনেল মেসি ও ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর প্রমাণের মঞ্চ। তবে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো রিয়াল মাদ্রিদ ছেড়ে যাওয়ার পর এল ক্লাসিকো কিছুটা হলেও নিষ্প্রভ রুপ ধারণ করেছে। [caption id="attachment_6190" align="aligncenter" width="2191"] এল ক্লাসিকোতে মেসি ও রোনালদো। ছবিঃ দ্যা টেলিগ্রাফ[/caption] ২০০২-০৩ মৌসুমে স্পোর্টিং সিপির জার্সি গায়ের সিনিয়র ফুটবলে অভিষেকের পর ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো খেলেছেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, রিয়াল মাদ্রিদের মত দলে এবং বর্তমানে খেলছেন ইতালীয়ান জায়ান্ট জুভেন্টাসের হয়ে। অন্যদিকে ক্যারিয়ার শুরুর পর থেকেই স্প্যানিশ ক্লাব বার্সেলোনাতেই আছেন আর্জেন্টাইন তারকা লিওনেল মেসি। পর্তুগাল ও আর্জেন্টিনা জাতীয় দলেও দু'জন এখনও কোচের আস্থা-ভরসার নাম। একশো, দু'শো করে ইতোমধ্যে দু'জনই সিনিয়র ফুটবল ক্যারিয়ারে পার করেছেন ৯০০ ম্যাচের মাইলফলক। ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো আরও আগেই এই মাইলফলক পাড়ি দিলেও গত ম্যাচে সেভিয়ার বিপক্ষে মাঠে নেমে ৯০০ তম ম্যাচের মাইলফলক স্পর্শ করেন লিওনেল মেসি। [caption id="attachment_6191" align="aligncenter" width="738"] জুভেন্টাস ও বার্সেলোনা ম্যাচের দৃশ্য। ছবিঃ ইন্টারনেট[/caption] লিওনেল মেসি ও ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর ৯০০ ম্যাচ শেষে একবারও কি ভেবে দেখেছেন এই ৯০০ এর লড়াইয়ে কে এগিয়ে? মেসি নাকি রোনালদো? এই প্রশ্নের উত্তর জানতে হলে আপনাকে আর একটু ধৈর্য্য ধরতে হবে। চলুন দেখে নেওয়া যাক ৯০০ ম্যাচ শেষে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো ও লিওনেল মেসির পরিসংখ্যান। ★ গোলঃ গোলের খেলা ফুটবল, আর সেই গোল ব্যবধানে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো থেকে ঢের এগিয়ে লিওনেল মেসি। ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর যেখানে ৬৪৭ টি গোল বিপরীতে লিওনেল মেসি করেছেন ৭২২ টি। ★এসিস্টঃ লিওনেল মেসি যে গোল করায় পটু সেটা দেখিয়ে দেওয়ার পর এসিস্ট করায়ও যে পিছিয়ে থাকেন না সেটাও অপরিষ্কার ভাবে বুঝিয়ে দিয়েছেন। ৯০০ এর লড়াইয়ে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর এসিস্ট যেখানে ২০১ টি সেখানে লিওনেল মেসি এগিয়ে আছে প্রায় ১০০ এসিস্টে, তার সংখ্যা ৩০৩ টি। ★ প্রতি ম্যাচে গড় গোলঃ ৯০০ এর লড়াইয়ে প্রতি ম্যাচে গড় গোলেও এগিয়ে আর্জেন্টাইন ছোট্ট জাদুকর লিওনেল মেসি। ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর প্রতি ম্যাচে গড় গোল যেখানে ০.৭১৯ সেখানে লিওনেল মেসির ০.৮০২। ★প্রতি ম্যাচে গোল+এসিস্টঃ এই পরিসংখ্যানেও রোনালদো থেকে এগিয়ে লিওনেল মেসি। রোনালদো প্রতি ম্যাচে গড় গোল ও এসিস্ট করেছেন ০.৯৪২ গড়ে, অন্যদিকে লিওনেল মেসি করেছেন ১.১৩৯ গড়ে। ★ ট্রফিঃ ৯০০ ম্যাচ শেষে ট্রফি উচিয়ে ধরার লড়াইয়েও এগিয়ে বার্সেলোনার প্রাণভ্রমরা লিওনেল মেসি। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, রিয়াল মাদ্রিদ ও পর্তুগালের হয়ে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো যেখানে ২৭ টি ট্রফি জিতেছে সেখানে শুধু মাত্র বার্সেলোনার হয়ে ৩৪ টি ট্রফি জিতেছেন, যদিও জাতীয় দলের হয়ে এখনও কোনও ট্রফির মুখ দেখেননি লিওনেল মেসি। ★ লীগ ট্রফিঃ ৯০০ এর লড়াইয়ে লীগ ট্রফি জয়েও এগিয়ে লিওনেল মেসি। বার্সেলোনার হয়ে মেসি যেখানে ১০ টি লীগ জিতেছেন সেখানে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড (৩) ও রিয়াল মাদ্রিদের (২) হয়ে ৫ টি জিতেছেন। ★ চ্যাম্পিয়নস লীগঃ ৯০০ এর লড়াইয়ে শুধু মাত্র এই একটা জায়গায় কেউ কাউকে ছাড়িয়ে যেতে পারেনি। দু'জনই সমান চারটি করে চ্যাম্পিয়ন লীগ জয় করেছেন। ★ ব্যালন ডি'অরঃ এই লড়াইয়েও ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোকে ছাড়িয়ে গেছেন লিওনেল মেসি, তার ব্যালন ডি'অর সংখ্যা ছয়। অন্যদিকে ৯০০ ম্যাচ শেষে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর ব্যালন ডি'অর সংখ্যা ছিল ৫ টি, যা এখনও অপরিবর্তিত আছে। ★ আন্তর্জাতিক ট্রফিঃ ৯০০ এর লড়াইয়ে এই একটা জায়গায় লিওনেল মেসিকে ছাড়িয়ে গেছেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। নিজ দেশের হয়ে লিওনেল মেসি এখনও কোনও ট্রফি জয় করতে না পারলেও পর্তুগালের হয়ে ২০১৬ সালে উয়েফা ইউরো চ্যাম্পিয়নশীপ জয় করেছিলেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। [caption id="attachment_6192" align="aligncenter" width="678"] জাতীয় দলের হয়ে রোনালদো ও মেসি। ছবিঃ ইন্টারনেট[/caption] উপরে পরিসংখ্যান দেখে আপনি হয়তো ৯০০ ম্যাচ শেষে কে সেরা সেটা নির্ধারণ করতে পারবেন কিন্তু ডেইলিস্পোর্টসবিডি শুধু মাত্র দুই কিংবদন্তির পরিসংখ্যান তুলে ধরেছে তবে কে সেরা সেটা নির্ধারণ করার ক্ষমতা ডেইলিস্পোর্টসবিডির নেই। তবে লিওনেল মেসি ও ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর মধ্যে কে সেরা? এই প্রশ্নের উত্তর খোঁজার যুদ্ধ চলতেই থাকবে, এটা থামানোর সাধ্য হয়তো কখনও কারও হবে না।