বিজ্ঞাপন

অফিসিয়াল গ্রুপে যোগ দিন

বাংলাদেশের স্পোর্টসভিত্তিক শীর্ষ অনলাইন ম্যাগাজিন

টপ ট্রেন্ডিং সাকিব আল হাসান/ তামিম ইকবাল/ মুশফিকুর রহিম/ বিরাট কোহলি/ বাবর আজম/ মেসি/ নেইমার/ রোনালদো/ ব্রাজিল/ আর্জেন্টিনা/ রিয়াল মাদ্রিদ/ বার্সেলোনা/ পিএসজি

এবার উইকেটের সমালোচনায় সাকিব

প্রকাশ: শুক্রবার, ২ এপ্রিল, ২০২১ | ১১:৩৮:৫১

ডেইলি স্পোর্টসবিডি ডেস্ক

এবার উইকেটের সমালোচনায় সাকিব
ছবিঃ সংগৃহীত
এবার উইকেটের সমালোচনায় সাকিব ছবিঃ সংগৃহীত

বাংলাদেশ আর ভারতের ভৌগোলিক অবস্থানের কারণে শারিরীক সক্ষমতায় বাংলাদেশের সাথে তেমন একটা পার্থক্য নেই। তারপরেও ভারতীয় ক্রিকেটাররা প্রচুর মেরে খেলতে পারেন। ওয়ানডেতে ৩৫০ আর টি-টোয়েন্টিতে ২০০ ছুঁই ছুঁই স্কোর বলে কয়েই করে দেখাতে পারেন।

শারীরিক পার্থক্য না থাকার পরেও ভারতে এতো এতো হার্ড হিটার থাকার কারণ একটাই। সাকিব মনে করেন বাংলাদেশের স্লো উইকেটের কারণে প্লেয়ারদের বড় শটস খেলার অ্যাবিলিটিতে মরিচা ধরেছে। মানসিকতাও নেমে গেছে একেবারে নীচে।

উইকেট আরও ভালো করার পরামর্শ দিয়ে সাকিব আল হাসান বিডি নিউজেক বলেন, “আমাদের দেশের আসলে উইকেটগুলো ভালো করা উচিত। উইকেট ভালো হলে ব্যাটসম্যানরা আরও ভালো করবে, বোলাররা স্কিলফুল হবে।

লিমিটেড ওভারের জন্য একদম ট্রু উইকেট হওয়া উচিত। ওয়ানডেতে যেখানে রান হবে সাড়ে তিনশ, টি-টোয়েন্টিতে অন্তত ১৮০। দু-একটি ম্যাচ এদিক-সেদিক হবে। বেশির ভাগ সময়ই রান হবে। আপনি যত বেশি রান করবেন, আত্মবিশ্বাস তত বেশি বাড়বে। ট্রু উইকেটে ব্যাটসম্যানদের হাতে শট বেড়ে যায় অনেক।”

বাংলাদেশের স্লো উইকেটের সমালোচনা করে সাকিব বলেন, “আমরা দেশে ধীরগতির উইকেটে খেলি। এজন্য আমাদের শট কম থাকে, স্কিল লেভেলও কম। ওই জায়গায় উন্নতি করতে হলে ভালো উইকেট লাগবেই। কেবল বিপিএলের সময় চট্টগ্রামে ভালো উইকেট পাই, সিলেটে পাই।

২০১৯ বিশ্বকাপের আগে হায়দরাবাদে আমি যখন প্র্যাকটিস করেছি, এত ভালো উইকেট, আত্মবিশ্বাসই অন্যরকম হয়ে যায়। ব্যাটে বল লাগার শব্দই আলাদা, শান্তি লাগে। এ কারণেই ভারতীয় ক্রিকেটাররা এত মারতে পারে। ওদের শারীরিক গঠন তো আমাদের থেকে খুব আলাদা নয়। কিন্তু ওদের বিশ্বাস বেশি, স্কিল ভালো। মেরে মেরেই ওদের অভ্যাস।”

সাকিব আরও বলেন, “আমাদের মেরে খেলার অভ্যাস নেই। এখানকার উইকেটে টিকে থাকার চিন্তা করতে হয়। বল নিচু হয়, বাউন্স অসমান, পিচ করে ধীরে আসে। আমরা কি এখানে টার্নের বিপক্ষে শট খেলতে পারবো? মারতে গেলেই তো আউট। কারণ বল নিচু হবে, থেমে আসবে। ভারতীয় ব্যাটসম্যানরা দেখেন, টার্ন কী বা আউট সুইং কী, সমানে মেরে যাচ্ছে। মিড উইকেটে, স্কয়ার লেগে মারছে। কারণ বল ব্যাটে আসে ভালো।

ভালো ব্যাটিং উইকেটে বোলারদেরও উন্নতি হবে। কারণ স্কিল ভালো না হলে টিকে থাকতে পারবে না। তাদের কাজ করতেই হবে। উইকেট ভালো করতে পারলে আমাদের জন্য খুব ভালো হবে।”

আইপিএল খেলতে এই মুহুর্তে ভারতে আছেন সাকিব আল হাসান। আগামীকাল (৩ এপ্রিল) শেষ হবে সাকিবের কোয়ারেন্টাইন। এর পরেই নেমে যাবেন আইপিএলের প্রস্তুতি নিতে। ৯ এপ্রিল পর্দা উঠবে আইপিএলের ১৪ তম আসরের।

আরও খেলার খবরঃ   আজ থেকে শুরু বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা ওয়ানডে সিরিজ

সাম্প্রতিক খবর

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট / বাবর আজমের বিরুদ্ধে আবারও বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণের অভিযোগ
আন্তর্জাতিক ক্রিকেট / বাংলাদেশের কাছ থেকে কঠিন চ্যালেঞ্জই প্রত্যাশা বাটলারের
বাংলাদেশ ক্রিকেট / টি-টোয়েন্টিতে প্রথমবার ইংল্যান্ডের বিপক্ষে মাঠে নামবে বাংলাদেশ
বাংলাদেশ ক্রিকেট / ইঞ্জুরীতে বিশ্বকাপ শেষ সাইফুদ্দিনের, দলে ফিরলেন রুবেল
আন্তর্জাতিক ক্রিকেট / ভারতের পর কিউই বধে পাকিস্তানের ‘দুইয়ে দুই’
বাংলাদেশ ফুটবল / ক্যাম্পে যোগ দিলেন আরও তিন ফুটবলার, তবুও অপেক্ষায় লেমোস
অ্যাথলেটিক্স / অলিম্পিকে স্বর্ণ জয়ী মার্গারিতা সময় কাটালেন বাংলাদেশি জিমন্যাস্টদের সাথে
টপ ট্রেন্ডিং সাকিব আল হাসান/ তামিম ইকবাল/ মুশফিকুর রহিম/ বিরাট কোহলি/ বাবর আজম/ মেসি/ নেইমার/ রোনালদো/ ব্রাজিল/ আর্জেন্টিনা/ রিয়াল মাদ্রিদ/ বার্সেলোনা/ পিএসজি