বিজ্ঞাপন

অফিসিয়াল গ্রুপে যোগ দিন

বাংলাদেশের স্পোর্টসভিত্তিক শীর্ষ অনলাইন ম্যাগাজিন

টপ ট্রেন্ডিং সাকিব আল হাসান/ তামিম ইকবাল/ মুশফিকুর রহিম/ বিরাট কোহলি/ বাবর আজম/ মেসি/ নেইমার/ রোনালদো/ ব্রাজিল/ আর্জেন্টিনা/ রিয়াল মাদ্রিদ/ বার্সেলোনা/ পিএসজি

ইতিহাস পাল্টে দিয়ে ইত্তিহাদকে বিদায় জানালেন আগুয়েরো

প্রকাশ: সোমবার, ২৪ মে, ২০২১ | ১৬:১০:৩৯

ডেইলি স্পোর্টসবিডি ডেস্ক

ইতিহাস পাল্টে দিয়ে ইত্তিহাদকে বিদায় জানালেন আগুয়েরো
ছবিঃ ইন্টারনেট
ইতিহাস পাল্টে দিয়ে ইত্তিহাদকে বিদায় জানালেন আগুয়েরো ছবিঃ ইন্টারনেট

দশ বছরে পাঁচটি লিগ শিরোপা, আর সাতটি ঘরোয়া কাপ। ম্যানচেস্টার সিটিতে সাফল্যে মোড়ানো এক সময় কাটিয়েছেন আর্জেন্টাইন তারকা স্ট্রাইকার আগুয়েরো। ম্যান সিটির কিংবদন্তিদের মধ্যে নিঃসন্দেহে জ্বলজ্বল করবে তাঁর নাম। কিন্তু ৩২ বছর বয়সেই সিটিকে বিদায় বলে দিচ্ছেন আর্জেন্টাইন স্ট্রাইকার। 

এই বছরই ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ চ্যাম্পিয়নদের সঙ্গে চুক্তির মেয়াদ শেষ হয়ে যাচ্ছে তাঁর। আগেই ক্লাব ছেড়ে দেওয়ার ঘোষণা দেওয়ায় উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনাল শেষে কাতালান ক্লাব বার্সেলোনার সঙ্গে দুই বছরের চুক্তি করবেন তারকা এই স্ট্রাইকার। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে সামনের মৌসুমেই আগুয়েরোর ন্যু ক্যাম্পে পাড়ি জমানো এখন শুধু সময়ের অপেক্ষা।

ছবিঃ টুইটার

তাই গতকালই ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে এভারটনের বিপক্ষে রাজকীয় বিদায়ী সংবর্ধনা শেষে ম্যানচেস্টার সিটির হয়ে প্রিমিয়ার লিগে নিজের শেষ ম্যাচটি খেলে ফেললেন এই প্রতিযোগিতার সর্বকালের চতুর্থ সর্বোচ্চ গোলদাতা।

রোববার রাতে ইত্তিহাদকে বিদায় জানানোর দিনে নতুন আরেকটি রেকর্ড গড়েছেন আর্জেন্টাইন এই স্ট্রাইকার। এক দশক আগে সোয়ানসি সিটির বিপক্ষে অভিষেক ম্যাচে ৬০ মিনিটের মাথায় বদলি নেমে জোড়া গোল করেছিলেন আগুয়েরো। সিটিজেনদের হয়ে নিজের বিদায়ী ম্যাচেও বদলি নেমেছেন। বিদায়ী ম্যাচে ৬৩তম মিনিটে অভিষেক ম্যাচের ন্যায় জোড়া গোল করেই ভেঙে দিলেন প্রিমিয়ার লিগে এক দলের হয়ে করা কিংবদন্তী ওয়েইন রুনির রেকর্ড।

ছবিঃ টুইটার

ম্যানচেস্টার সিটির হয়ে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে সার্জিও আগুয়েরোর গোল সংখ্যা হল সবমিলিয়ে ১৮৪টি। আর নগরপ্রতিদ্বন্দ্বী ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের হয়ে ওয়েইন রুনি করেছিলেন ১৮৩টি। এখন প্রিমিয়ার লিগে একক ক্লাবের হয়ে সর্বাধিক গোলের মালিক একাই সার্জিও আগুয়েরো।

ম্যানচেস্টার সিটির হয়ে বর্ণাঢ্য ক্যারিয়ারে আর মাত্র একটি ম্যাচ খেলার সুযোগ পাচ্ছেন আর্জেন্টাইন তারকা এই স্ট্রাইকার। ২৯শে মে ক্লাবটির ইতিহাসের সবচেয়ে বড় ম্যাচ চ্যাম্পিয়নস লিগের অল ইংলিশ ফাইনালে চেলসির বিপক্ষে দেখা যেতে পারে তাকে। সেই ম্যাচেই সমাপ্তি হবে সিটির হয়ে প্রায় এক দশকের সার্জিও আগুয়েরোর বর্ণাঢ্য ক্যারিয়ার।

আরও খেলার খবরঃ   বার্সেলোনার জয়ে গোল করেই দশ মাস পর প্রত্যাবর্তন রাঙালেন ফাতি

২০১১ সালে স্প্যানিশ ক্লাব অ্যাথলেটিকো মাদ্রিদ ছেড়ে সিটিতে পাড়ি জমান আগুয়েরো। এরপর আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি তাকে। সিটির ইতিহাসের অন্যতম সেরা খেলোয়াড় হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করার পাশাপাশি উপভোগ করেছে ব্যক্তিগত ও দলীয় সাফল্য। ম্যানচেস্টার সিটির সর্বকালের সর্বোচ্চ গোলদাতা আগুয়েরো সকল প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ৩৮৮ ম্যাচে গোল করেছেন ২৫৮টি।

ছবিঃ টুইটার

তাছাড়াও, ইংল্যান্ডের বাইরের কোনো খেলোয়াড় হিসেবে প্রিমিয়ার লীগে সর্বোচ্চ গোল তাঁর। ম্যানচেস্টার সিটির হয়ে ২০১৪-১৫ মৌসুমে জিতেছেন গোল্ডেন বুট। প্রিমিয়ার লীগের ইতিহাসে সর্বোচ্চ হ্যাটট্রিকও তাঁর। ১২টি হ্যাটট্রিক করেছেন  সবার উপরে প্রিমিয়ার লীগের ইতিহাসের অন্যতম সেরা এই খেলোয়াড়।

যদিও ক্লাব ইতিহাসে তার সেরা ও সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ গোলটি নিঃসন্দেহে এসেছিল ২০১২ সালের মে মাসে। যোগ করা সময়ের শেষ মুহূর্তে তার করা গোলেই কুইন্স পার্ক রেঞ্জার্সকে হারিয়েছিল সিটি। রুদ্ধশ্বাস জয়ে তারা ঘুচিয়েছিল ৪৪ বছরের অপেক্ষা। নগরপ্রতিদ্বন্দ্বী ম্যান ইউনাইটেডকে চমকে দিয়ে তারা জিতেছিল প্রিমিয়ার লিগের শিরোপা।

ছবিঃ টুইটার

সেবার আগুয়েরো করা শেষ মুহুর্তে গোলে মার্টিন টেইলরের করা ‘আগুয়েরোওওও’ এখনও শোনা যায় ম্যানচেস্টারের সব অলিগলিতে। সার্জিও আগুয়েরো চলে যাচ্ছেন, তবে আগুয়েরোর এমন সব স্মৃতি চিরভাস্বর হয়ে থাকবে ম্যান সিটিি সমর্থকদের হৃদয়ে।

সাম্প্রতিক খবর

ক্লাব ফুটবল / শতবর্ষী রেড ডার্বিতে মাঠে নামছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ও লিভারপুল
আন্তর্জাতিক ক্রিকেট / বাংলাদেশের চেয়ে আমরাই ভালো দল: শানাকা
টি ২০ বিশ্বকাপ ২০২১ / বিশ্বকাপে আজকের খেলা: ৮ম দিন
আন্তর্জাতিক ক্রিকেট / ক্যারিবিয়ানদের বিধ্বস্ত করে টুর্নামেন্ট শুরু ইংল্যান্ডের
ক্লাব ফুটবল / ব্রাইটনকে উড়িয়ে দিল ম্যানচেস্টার সিটি
ক্লাব ফুটবল / হফেনহাইমের জালে বায়ার্নের চার গোল
টি ২০ বিশ্বকাপ ২০২১ / শ্রীলংকার বিপক্ষে ম্যাচে বাংলাদেশের একাদশ পরিবর্তনের আভাস
টপ ট্রেন্ডিং সাকিব আল হাসান/ তামিম ইকবাল/ মুশফিকুর রহিম/ বিরাট কোহলি/ বাবর আজম/ মেসি/ নেইমার/ রোনালদো/ ব্রাজিল/ আর্জেন্টিনা/ রিয়াল মাদ্রিদ/ বার্সেলোনা/ পিএসজি