বিজ্ঞাপন

অফিসিয়াল গ্রুপে যোগ দিন

বাংলাদেশের স্পোর্টসভিত্তিক শীর্ষ অনলাইন ম্যাগাজিন

টপ ট্রেন্ডিং সাকিব আল হাসান/ তামিম ইকবাল/ মুশফিকুর রহিম/ বিরাট কোহলি/ বাবর আজম/ মেসি/ নেইমার/ রোনালদো/ ব্রাজিল/ আর্জেন্টিনা/ রিয়াল মাদ্রিদ/ বার্সেলোনা/ পিএসজি

পরিসংখ্যানের মজা | রিয়াল মাদ্রিদ-চেলসি ম্যাচে যত রেকর্ড

প্রকাশ: বৃহস্পতিবার, ৬ মে, ২০২১ | ১৯:১০:৪৫

ডেইলি স্পোর্টসবিডি ডেস্ক

পরিসংখ্যানের মজা | রিয়াল মাদ্রিদ-চেলসি ম্যাচে যত রেকর্ড
ছবিঃ সংগৃহীত
পরিসংখ্যানের মজা | রিয়াল মাদ্রিদ-চেলসি ম্যাচে যত রেকর্ড ছবিঃ সংগৃহীত

স্টামফোর্ড ব্রীজে সাবেক ক্লাবের বিপক্ষে পুরো ফিট ইডেন হ্যাজার্ডের প্রত্যাবর্তন হয়। চোট কাটিয়ে অনেক দিন পর শুরুর একাদশে ফিরেন সার্জিও রামোসও। তার ফেরাতে রিয়াল মাদ্রিদের রক্ষণ আরও জমাট হওয়ার কথা। কিন্তু মাঠের লড়াই যে সেই কথা একটুও বলেনি। রিয়াল মাদ্রিদের ভাগ্য ফেরাতে পারেনি কেউই।

উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের সেমিফাইনালের দ্বিতীয় লেগে এসে রিয়াল পেরে উঠেনি চেলসির সঙ্গে। নিজেদের মাঠে রিয়ালকে ২-০ গোলে হারিয়ে চেলসি ফাইনালে জায়গা করে নিয়েছে। এই জয়ে দুই লেগ মিলিয়ে সর্বাধিক ১৩ বারের ইউরোপসেরাদের ৩-১ গোলে হারিয়ে ইউরোপ শ্রেষ্ঠত্বের আসরে নয় বছর পর ফাইনালে উঠলো চেলসি। আগামী ২৯শে মে ইস্তাম্বুলে অল ইংলিশ ফাইনালে ব্লুজদের প্রতিপক্ষ পেপ গার্দিওলার ম্যানচেস্টার সিটি। রিয়াল মাদ্রিদের এই জয়ে বিপক্ষে ফিরতি লেগে স্টামফোর্ড ব্রীজে হয়েছে বেশকিছু রেকর্ড।

রিয়াল মাদ্রিদকে হারিয়ে ইউরোপ শ্রেষ্ঠত্বের আসরে তৃতীয়বারের মত চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালে উঠলো চেলসি। উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের ইতিহাসে ইংলিশ ক্লাবগুলোর মধ্যে কেবল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ও লিভারপুলই ব্লুজদের চেয়ে একবার বেশি অর্থাৎ সর্বাধিক চারবার চ্যাম্পিয়নস লিগে ফাইনাল খেলেছে।

ছবিঃ ইন্টারনেট

চেলসির বিপক্ষে এই হারে চ্যাম্পিয়নস লিগে সবশেষ পাঁচটি অ্যাওয়ে ম্যাচে ইংলিশ ক্লাবগুলোর বিপক্ষে জয়হীন থাকলো রিয়াল মাদ্রিদ। এসময় ইংলিশ ক্লাবগুলির বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচে তিনটিই হেরে কেবল দু ম্যাচ ড্র করতে পারে লস ব্লাংকোসরা। ২০১৪ সালে চ্যাম্পিয়নস লিগে সবশেষ লিভারপুলের বিপক্ষে অ্যানফিল্ডে জয় পেয়েছিল রিয়াল মাদ্রিদ। সেবার গ্রুপপর্বে অলরেডদের ৩-০ গোলে হারিয়েছিল লস ব্লাংকোসরা।

ঘরের মাঠে রিয়াল মাদ্রিদকে হারিয়ে ইউরোপীয় প্রতিযোগিতায় স্প্যানিশ জায়ান্টদের বিপক্ষে এখনও অপরাজিত থাকার রেকর্ড আরও সমৃদ্ধ করল চেলসি। সর্বাধিক ইউরোপসেরা দলের বিপক্ষে সবমিলিয়ে পাঁচ ম্যাচে এখনও হারের মুখ দেখেনি ব্লুজরা। এই সময় চেলসি তিন জয়ের বিপরীতে ড্র করে বাকি দুটি।

স্টামফোর্ড ব্রীজে চেলসির বিপক্ষে বল দখলের লড়াইয়ে একচ্ছত্র আধিপত্য ছিল সফরকারী রিয়াল মাদ্রিদের। তবে মাত্র ৩২ শতাংশ বল দখলে রাখলেও জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে থমাস টুখেলের শিষ্যরা। ২০১২ সালে চ্যাম্পিয়নস লিগে সবশেষে এত কম পরিমাণ বল নিজেদের দখলে রেখে জিততে পেরেছিলো ব্লুজরা। সেবার মাত্র ২১ শতাংশ বল পায়ে নিয়ে ন্যু ক্যাম্পে বার্সেলোনাকে ১-০ গোলে হারিয়েছিলো লন্ডনবাসীরা।

ছবিঃ টুইটার

রিয়াল মাদ্রিদকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালে চেলসির প্রতি আরেক ইংলিশ ক্লাব ম্যানচেস্টার সিটি। এই নিয়ে তৃতীয়বারের মত ইউরোপ শ্রেষ্ঠত্বের আসরে ‘অল ইংলিশ ফাইনাল’ অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। এর আগে ২০০৮ সালে চেলসি বনাম ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ও ২০১৯ সালে লিভারপুল বনাম টটেনহ্যাম হটস্পার্স অল ইংলিশ ফাইনালে খেলেছে। চ্যাম্পিয়নস লিগের ইতিহাসে কেবল স্প্যানিশ ক্লাবগুলিই ইংল্যান্ডের সমান একই দেশের দুই ক্লাব ফাইনালে খেলেছে।

আরও খেলার খবরঃ   ম্যান সিটির ইতিহাসে গার্দিওলাই সেরা

এবারের ফাইনালে মুখোমুখি হওয়া দুদল ম্যানচেস্টার সিটি ও চেলসি উভয়ে আসরে মাত্র চার গোল হজম করেছে। ২০০৫-০৬ মৌসুমে চ্যাম্পিয়নস লিগের ইতিহাসে এর আগে কেবল আর্সেনাল ও বার্সেলোনাই তাদের কম গোল হজম করে ইউরোপসেরার আসরে ফাইনালে উঠেছে। সেবার ফাইনালের পথে আর্সেনাল দু গোল ও বার্সেলোনা চার গোল হজম করেছিল।

চেলসির চ্যাম্পিয়নস লিগ ফাইনালের পথে বেশ বড় অবদান গোলরক্ষক এঁদোয়া মেন্ডিরা। ফিরতি লেগে ঘরের মাঠে রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে  রীতিমতো দেয়াল হয়ে দাঁড়িয়েছিল সেনাগালের এই গোলরক্ষক। ২৯ বছর বয়সী এ গোলরক্ষকের অসাধারণ সব সেভে গোল করতে ব্যর্থ হয় রিয়াল মাদ্রিদের আক্রমণভাগের ফুটবলাররা।

ছবিঃ ফেসবুক

সবমিলিয়ে চলতি আসরে নয় ম্যাচ নিজেদের জাল অক্ষত রেখেছেন চলতি বছর রেঁনে থেকে স্টামফোর্ড ব্রীজে আসা এই গোলরক্ষক। উয়েফা  চ্যাম্পিয়নস লিগের ইতিহাসে আর কোন ইংলিশ ক্লাবের গোলরক্ষক ফাইনালের পথে তার চেয়ে বেশি ম্যাচ নিজেদের জাল অক্ষত রাখতে পারেনি।

রেকর্ড গড়েছে চেলসি কোচ থমাস টুখেলও। ইতিহাসের প্রথম কোচ হিসেবে টানা দুবছ ভিন্ন দুটি ক্লসবের হয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালে উঠলো জার্মান কোচ। ২০২০ সালে পিএসজির হয়ে বায়ার্ন মিউনিখের বিপক্ষে ফাইনাল খেলার পর এবার অল ইংলিশ ফাইনালেও দেখা যাবে ৫৯ বছর বয়সী এই কোচকে।

বাইশ বছর বয়সে নতুন মাইলফলক স্পর্শ করেছেন ম্যাসন মাউন্ট। গতকাল ঘরের মাঠে ফিরতি লেগে শেষ মুহুর্তে তার করা গোলে স্বপ্ন ভাঙ্গে রিয়াল মাদ্রিদের। ৮৫তম মিনিটে নাচো ফার্নান্দেজের থেকে বল কেড়ে কান্তে ডি-বক্সে খুঁজে নেন পুলিসিচকে। যুক্তরাষ্ট্রের এই তরুণ উইঙ্গারের কাটব্যাক গোলমুখে পেয়ে দলকে উৎসবের উপলক্ষ এনে দেন ম্যাসন মাউন্ট।

ছবিঃ টুইটার

মাত্র ২২ বছর বয়সে ইংলিশ ফুটবলারদের মধ্যে দ্বিতীয় সর্বকনিষ্ঠ ফুটবলার হিসেবে উয়েফা চ্যাম্পিয়ন লিগের সেমিফাইনালে গোল করলেন ম্যাসন মাউন্ট। ইংলিশ ফুটবলারদের মধ্যে সর্বকনিষ্ঠ ফুটবলার হিসেবে একুশ বছর বয়য়ে গোল করেন ওয়েন রুনি। ২০০৮ সালে ফ্রাংক ল্যাম্পার্ডের পর চ্যাম্পিয়নস লিগে চেলসির হয়ে সেমিফাইনালে গোল করা প্রথম ফুটবলারও ম্যাসন মাউন্টই।

আরও খেলার খবরঃ   ফের মেসি-রোনালদোর দেখা হচ্ছে?

সাম্প্রতিক খবর

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট / পরিসংখ্যানে পাকিস্তানের ভারত বধের কাব্যে
আন্তর্জাতিক ক্রিকেট / জয় উপভোগ করো, তবে উচ্ছ্বাসে ভেসে যেও না: সতীর্থদের উদ্দেশ্যে বাবর
আন্তর্জাতিক ক্রিকেট / বিতর্ক চাইলে আগে থেকে বলবেন, পাকিস্তানি সাংবাদিকের প্রশ্নে ক্ষিপ্ত কোহলি
ক্লাব ফুটবল / ইন্টারের বিপক্ষে অন্তিম মুহুর্তে জুভেন্টাসকে বাঁচালেন আর্জেন্টাইন তারকা দিবালা
ক্লাব ফুটবল / নেইমারের ফেরার ম্যাচে হোঁচট খেয়েছে মেসিরা
আন্তর্জাতিক ক্রিকেট / পাকিস্তানকে জিতিয়ে গর্বিত ভারত বধের নায়ক আফ্রিদি
আন্তর্জাতিক ক্রিকেট / পাকিন্তানের কাছে উড়ে গিয়ে ’শিশির’কে দুষলেন কোহলি!
টপ ট্রেন্ডিং সাকিব আল হাসান/ তামিম ইকবাল/ মুশফিকুর রহিম/ বিরাট কোহলি/ বাবর আজম/ মেসি/ নেইমার/ রোনালদো/ ব্রাজিল/ আর্জেন্টিনা/ রিয়াল মাদ্রিদ/ বার্সেলোনা/ পিএসজি