বিজ্ঞাপন

অফিসিয়াল গ্রুপে যোগ দিন

বাংলাদেশের স্পোর্টসভিত্তিক শীর্ষ অনলাইন ম্যাগাজিন

টপ ট্রেন্ডিং সাকিব আল হাসান/ তামিম ইকবাল/ মুশফিকুর রহিম/ বিরাট কোহলি/ বাবর আজম/ মেসি/ নেইমার/ রোনালদো/ ব্রাজিল/ আর্জেন্টিনা/ রিয়াল মাদ্রিদ/ বার্সেলোনা/ পিএসজি

পরিসংখ্যানের মজা | সংখ্যা সংখ্যায় ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড-অ্যাস্টন ভিলা ম্যাচ

প্রকাশ: রবিবার, ৯ মে, ২০২১ | ২২:৩৯:৪৩

ডেইলি স্পোর্টসবিডি ডেস্ক

পরিসংখ্যানের মজা | সংখ্যা সংখ্যায় ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড-অ্যাস্টন ভিলা ম্যাচ ছবিঃ সংগৃহীত
পরিসংখ্যানের মজা | সংখ্যা সংখ্যায় ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড-অ্যাস্টন ভিলা ম্যাচ ছবিঃ সংগৃহীত

শুরুতে প্রতিপক্ষের মাঠে বারট্রান্ড ট্রাউরের গোলে পিছিয়ে পড়ে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। প্রথমার্ধে অনেক চেষ্টা করেও আর সমতায় ফিরতে পারেনি রেড ডেভিলরা। তবে বিরতির পর আর ওলে গানারকে হতাশ করেনি শিষ্যরা। দুর্দান্ত কামব্যাকে বার্মিংহামের ভিলা পার্ক থেকে প্রত্যাশিত জয় নিয়েই বাড়ি ফিরে গ্রেট ব্রিটেনের ঐতিহ্যবাহী ক্লাবটি। 

রবিবার ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের অ্যাস্টন ভিলাকে ৩-১ গোলে হারিয়েছে ওলে গানারের দল। শুরুতে বারট্রান্ড ট্রাউরের গোলে পিছিয়ে পড়ার পর সমতা টানেন ব্রুনো ফার্নান্দেজ। এরপর ম্যাসন গ্রিনউড সফরকারীদের এগিয়ে নেওয়ার পর শেষ দিকে সফরকারীদের জয় নিশ্চিত করেন উরুগুইয়ান স্ট্রাইকার এডিনসন কাভানি। ম্যাচের যাবতীয় পরিসংখ্যান সংখ্যা সংখ্যায় জেনে নিন:

(২)- ইংলিশ ক্লাবগুলোর মধ্যে কেবল দুটি দলই প্রিমিয়ার লিগে টানা ২৫ এর অধিক অ্যাওয়ে ম্যাচ অপরাজিত ছিলেন। ২০০৩-০৪ মৌসুমে আর্সেনাল ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের টানা ২৭টি অ্যাওয়ে ম্যাচ অপরাজিত ছিল। আর বর্তমানে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড প্রতিপক্ষের মাঠে টানা ২৫ ম্যাচ অপরাজিত আছে।

(৩)- অ্যাস্টন ভিলার মাত্র তৃতীয় ফুটবলার হিসেবে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের বিপক্ষে হোম ও অ্যাওয়ে উভয় লিগে গোল করলেন বারট্রান্ড ট্রাউরে। এর আগে ১৯৯৮-৯৯ মৌসুমে জুলিয়ান জোয়াকিম ও ২০১৪-১৫ মৌসুমে ক্রিশ্চিয়ানো বেনটেকে প্রিমিয়ার লিগে ইউনাইটেডের বিপক্ষে অ্যাস্টন ভিলার হয়ে উভয় লিগে গোলের মুখ দেখেছিলেন।

(৪)- মাত্র চতুর্থ পর্তুগিজ ফুটবলার হিসেবে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে ২৫ গোল করলেন ব্রুনো ফার্নান্দেজ। এর আগে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো ৮৪ গোল, লুইস মর্তে ২৯ গোল ও নানি ২৬ গোল করেছিলেন।

ছবিঃ টুইটার

(৫)- প্রতিপক্ষের মাঠে ম্যান ইউনাইটেডের জয়সূচক গোলটি করে রেড ডেভিলদের হয়ে বদলি নেমে এক মৌসুমে সর্বাধিক গোল করা ওলে গানার ও চিচারিতোর পাশে নাম লেখালেন এডিনসন কাভানি। এর আগে ২০১০-১১ মৌসুমে মেক্সিকান স্ট্রাইকার চিচারিতো ও ১৯৯৮-৯৯ মৌসুমে বর্তমান কোচ ওলে গানার বদলি নেমে ৫ গোল করেছিলেন।

আরও খেলার খবরঃ   রাতে মাঠে নামছে ম্যানচেস্টারের দুই ক্লাব

(১০) অ্যাস্টন ভিলার বিপক্ষে দুর্দান্ত কামব্যাকে চলতি মৌসুমে শুরুতে গোল হজম করেও দশ ম্যাচ জিতেছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের ইতিহাসে আর কোন দল শুরুতে গোল হজম করে এত ম্যাচ জয় নিয়ে মাঠ ছাড়তে পারেনি।

(১৩)- আজ অ্যাস্টন ভিলার বিপক্ষে চলতি মৌসুমে পেনাল্টি থেকে ১৩তম পেনাল্টি গোল করলেন ব্রুনো ফার্নান্দেজ। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের ইতিহাসে আর কোন ফুটবলার এক মৌসুমে পেনাল্টি থেকে এত গোল করতে পারেননি।

(২৫)- প্রতিপক্ষের মাঠে এই জয়ে সবমিলিয়ে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে সবশেষ টানা ২৫টি অ্যাওয়ে ম্যাচে অপরাজিত থাকলো ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। এই সময়ে ওলে গানারের দল ১৬ ম্যাচ জিতে, বাকি ৯ ম্যাচ ড্র করে।

ছবিঃ টুইটার

(২৭)- চলতি মৌসুমে এ নিয়ে সবধরনের প্রতিযোগিতায় ২৭টি গোল করলেন ব্রুনো ফার্নান্দেজ। ২০০৯-১০ মৌসুমে চেলসির হয়ে ফ্রাংক ল্যাম্পার্ড ২৭ গোল করার পর ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে আর কোন মিডফিল্ডার পর্তুগিজ তারকার চেয়ে এত বেশি গোল করতে পারেনি। ব্লুজ কিংবদন্তিকে ছাড়িয়ে যেতে আরও ৪ ম্যাচে হাতে পাচ্ছেন আরো ২৬ বছর বয়সী এই তারকা মিডফিল্ডার।

(১১৩)- অ্যাস্টন ভিলার বিপক্ষে চলতি মৌসুমে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের ১১৩তম পেনাল্টি নিলেন ব্রুনো ফার্নান্দেজ। প্রিমিয়ার লিগের ইতিহাসে এক মৌসুমে সর্বাধিক পেনাল্টির রেকর্ড এটিই। ২০০৬-০৭ মৌসুমে প্রিমিয়ার লিগে ১১২টি পেনাল্টির বাঁশি বাজে।

সাম্প্রতিক খবর

বাংলাদেশ ফুটবল / ‘লিগ জমজমাট ও প্রতিযোগিতামূলক ছিল – সালাম মুর্শেদি’
ক্লাব ফুটবল / ‘করিম বেনজেমাকে ব্যালন ডি’অর দিতে চান জিদান’
বাংলাদেশ ক্রিকেট / ৬ষ্ঠ বোলারের বিবেচনাতেই প্রথম ম্যাচে ছিলেন সৌম্য – রাসেল ডোমিঙ্গো
ক্লাব ফুটবল / ব্রুজ ম্যাচেই ম্যানসিটির দলে ফিরছেন দুই ব্রাজিলিয়ান এডারসন-জেসুস?
বাংলাদেশ ফুটবল / বারিধারা ছেড়ে বসুন্ধরা কিংসে সুমন রেজা
ক্লাব ফুটবল / কুঁচকিতে চোট, চ্যাম্পিয়নস লিগে লেইপজিগের বিপক্ষে খেলা হচ্ছে না নেইমারের!
বাংলাদেশ ক্রিকেট / সারাবছর নাইমকে খেলিয়ে বিশ্বকাপে নেই কেন? – মিটিংয়ে পাপন ও আকরামের প্রশ্ন
টপ ট্রেন্ডিং সাকিব আল হাসান/ তামিম ইকবাল/ মুশফিকুর রহিম/ বিরাট কোহলি/ বাবর আজম/ মেসি/ নেইমার/ রোনালদো/ ব্রাজিল/ আর্জেন্টিনা/ রিয়াল মাদ্রিদ/ বার্সেলোনা/ পিএসজি