ইসলামাবাদের বিপক্ষে বাবরের ‘অদ্বিতীয়’ রেকর্ড, তবু হেরেছে করাচি

প্রকাশ: মঙ্গলবার, ১৫ জুন, ২০২১ | ১১:৫০:৩৮

ডেস্ক রিপোর্ট

ইসলামাবাদের বিপক্ষে বাবরের ‘অদ্বিতীয়’ রেকর্ড, তবু হেরেছে করাচি ছবিঃ সংগৃহীত

ব্যাট হাতে নিজের দুরন্ত ফর্মটা আবুধাবিতেও বজায় রেখেছেন বাবর আজম। সোমবারও ইসলামাবাদ ইউনাইটেডের বিপক্ষে দারুণ এক ইনিংস খেলে অনন্য এক রেকর্ড গড়েছেন পাকিস্তানের এই তারকা ক্রিকেটার। তবে বাবরেও ব্যাট হাসলেও, টানা দ্বিতীয় হারের স্বাদ পেয়েছে তার দল করাচি কিংস।

আবুধাবির শেখ জায়েদ স্টেডিয়ামে পিএসএলের ২২তম ম্যাচে টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে বাবর আজম এবং নাজিবুল্লাহ জাদরানের ব্যাটের উপর ভর করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে ১৯০ রান সংগ্রহ করেছিল করাচি কিংস। যেখানে নাজিবুল্লাহকে সাথে নিয়ে তৃতীয় উইকেট পার্টনারশিপে ১১৭ রানের জুটি গড়েন বাবর আজম, যা করাচি কিংসের হয়ে তৃতীয় উইকেটে সর্বোচ্চ পার্টনারশিপের রেকর্ড।

পিএসএল ইতিহাসে নিজের ১৯তম এবং ইসলামাবাদ ইউনাইটেডের বিপক্ষে ৪র্থ ফিফটি তুলে নেওয়া বাবর আজম, শেষ পর্যন্ত ৫৪ বল মোকাবিলায় ৮১ রান করে হাসান আলীর বলে আউট হন, যেখানে ৭টি চার এবং ৩টি ছয় মারেন পাকিস্তান অধিনায়ক। পিএসএল ইতিহাসে আর কোনও ক্রিকেটারেরই ইসলামাবাদের বিপক্ষে এর চেয়ে বেশি ফিফটির রেকর্ড নেই।

তাছাড়া সোমবার মোহাম্মদ রিজওয়ানকে ছাপিয়ে আবারও টুর্নামেন্টটির ষষ্ঠ আসরের সেরা রান সংগ্রাহকের তালিকার এক নম্বরে উঠে এসেছেন বাবর আজম। উল্লেখ্য ৫ চার এবং ৪ ছয়ে ৪২ বলে ৭২* রানে অপরাজিত ছিলেন নাজিবুল্লাহ জাদরান।

জবাবে ১৯১ রানের বড় লক্ষ্যে খেলতে নেমে কলিন মুনরো এবং ইফতেখার আহমেদের অপরাজিত ঝড়ো দুই ইনিংসে ৮ বল বাকি থাকতেই ৮ উইকেট হাতে রেখে জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় দূর্দান্ত ফর্মে থাকা ইসলামাবাদ ইউনাইটেড। যেখানে ১২ চার এবং ২ ছয়ে ৫৬ বলে ৮৮* রানে মুনরো এবং ৫ চার এবং ৫ ছয়ে ৩৯ বলে ৭১* রানে অপরাজিত ছিলেন ম্যাচসেরা ইফতেখার।

৮ ম্যাচে ৬ জয় আর ২ হারে ১২ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষস্থান ধরে রেখেছে ইসালামাবাদ ইউনাইটেড। আর ৭ ম্যাচে ৩ জয় আর ৪ হারে ৬ পয়েন্ট নিয়ে চতুর্থ সাথে রয়েছে করাচি কিংস।