ক্রিকেটারদের ক্ষোভ সত্ত্বেও আগের নিয়মই বহাল রাখছে আইসিসি

প্রকাশ: মঙ্গলবার, ১৫ জুন, ২০২১ | ১১:৫১:৫১

ডেস্ক রিপোর্ট

ক্রিকেটারদের ক্ষোভ সত্ত্বেও আগের নিয়মই বহাল রাখছে আইসিসি ছবি - সংগৃহীত

দ্বিতীয় সর্বোচ্চ পয়েন্ট নিয়েও নিজ দেশে অনুষ্ঠিত আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে দর্শক হয়ে থাকতে হচ্ছে ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলকে, এমন কি পয়েন্ট টেবিলে তাদের জায়গা হয়েছে ৪ নম্বরে। তাদের চেয়ে কম পয়েন্ট নিয়েও ফাইনালে উঠে গেছে নিউজিল্যান্ড, এটাই মানতে না পেরে ক্ষোভ জানিয়েছিলেন দেশটির পেসার স্টুয়ার্ট ব্রড।

গত বছরের শুরু থেকে করোনা মহামারির কারণে একের পর এক সিরিজ স্থগিতের কারণে শঙ্কা দেখা দেয় টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ নির্ধারিত সময়ে শেষ করা নিয়ে৷ বাধ্য হয়ে মাঝপথে নিয়ম বদল আনে আইসিসি, শতাংশের ভিত্তিতে বেছে নেওয়া হয় টুর্নামেন্টের দুই ফাইনালিস্টকে। যে কারণে বেশি পয়েন্ট নিয়েও শতাংশের ভিত্তিতে পিছিয়ে থাকায় ফাইনালে ওঠা হয়নি ইংল্যান্ডের।

করোনা মহামারির সংকট কেটে না গেলেও এখন জৈব সুরক্ষা বলয় নিশ্চিত করে আয়োজন করা হচ্ছে প্রতিটি সিরিজ, যে কারণে সাধারণত কোন সিরিজ স্থগিত হওয়ার সম্ভাবনা কম। তবুও পরবর্তী টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে বর্তমান নিয়মই বহাল রাখার ঘোষণা দিয়েছে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি, এটাকেই ভালো উপায় বলে মেনে নিচ্ছে সংস্থাটি।

আইসিসির অন্তর্বর্তী সিইও জিওফ অ্যালার্ডাইস বলেন, “আমরা পরবর্তী টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপেও কোন দল কত শতাংশ পয়েন্ট জিতছে তার ওপর নির্ভর করেই দলগুলির ব়্যাঙ্কিং নির্ধারণ করবো। এবারের চ্যাম্পিয়নশিপের প্রথম ১২ মাসে পয়েন্টের বিচারে তালিকা নির্ধারণ করা হলেও সবকিছুই দলগুলি কতগুলি সিরিজ খেলছে তাঁর ওপর নির্ভরশীল।”

তিনি আরও বলেন, “তাই দলগুলির সঠিক মূল্যায়ন করতে তারা মোট প্রাপ্য পয়েন্টের কত শতাংশ জিতছেন, তার মাধ্যমে বিচার করা, বেশ ভাল উপায়। এই পদ্ধতি চ্যাম্পিয়নশিপের দ্বিতীয়ার্ধে দলগুলির সঠিক মূল্যায়ন করতে আমাদের সাহায্য করেছে।”

১৮ জুন মাঠে গড়াবে প্রথমবারের মতো আয়োজিত আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল, মুখোমুখি হবে ভারত ও নিউজিল্যান্ড। এবছরই শুরু হবে আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের দ্বিতীয় আসর, যা চলবে ২০২৩ পর্যন্ত।