গ্রুপ পর্ব শেষে ডিপিএলের সেরা ব্যাটার মিজানুর, সেরা বোলার তানভির

প্রকাশ: শুক্রবার, ১৮ জুন, ২০২১ | ০৯:৩৮:৪০

ডেস্ক রিপোর্ট

গ্রুপ পর্ব শেষে ডিপিএলের সেরা ব্যাটার মিজানুর, সেরা বোলার তানভির ছবি - সংগৃহীত

গতকাল মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব ও গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্সের মধ্যকার ম্যাচ দিয়ে শেষ হয়েছে এবারের ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের গ্রুপ পর্বের খেলা, গ্রুপ পর্বের খেলা শেষে চূড়ান্ত হয়েছে সুপার লিগের দলগুলোও।

সুপার লিগের দল নিশ্চিত হতে অপেক্ষা করতে হয়েছে শেষ দিন পর্যন্ত, দলগুলোর পাশাপাশি সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহকেও হয়েছে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই। ঘরোয়া ক্রিকেটের নিয়মিত পারফর্মার মিজানুর রহমান হয়েছেন সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক, তবে এবারের টুর্নামেন্টের চমক স্পিনার তানভির ইসলাম।

সতীর্থদের সাথে উদযাপনে শাইনপুকুর ক্রিকেট ক্লাবের স্পিনার তানভির ইসলাম

১১ ম্যাচে ৫২.২৫ গড়ে সর্বোচ্চ ৪১৮ রান এসেছে মিজানুর রহমানের ব্যাট থেকে, স্ট্রাইকরেটও (১৩৩.৯৭) এবারের ডিপিএলের প্রেক্ষাপটে দারুণই বলা যায়। তবে সেরা উইকেট সংগ্রাহকের তালিকায় যৌথভাবে শীর্ষে আছেন তানভির ইসলাম ও কামরুল ইসলাম রাব্বি, ১১টি করে ম্যাচ খেলে দুজনেই নিয়েছেন ২০টি করে উইকেট।

টুর্নামেন্টের একমাত্র সেঞ্চুরিয়ান মিজানুর রহমান, গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাবের বিপক্ষে ৬৫ বলে ১০০ রানে অপরাজিত থাকেন তিনি। সবচেয়ে বেশি ৩ ফিফটিও এসেছে মিজানুরের ব্যাট থেকেই, ২টি করে ফিফটি আছে ৯ জনের। ধুমধাড়াক্কার খেলা টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টে সর্বোচ্চ ১৬টি করে ছয় মেরেছেন মাহমুদুল হাসান জয় ও নুরুল হাসান সোহান।

ডিপিএলের গ্রুপ পর্ব শেষে সেরা ১০ রান সংগ্রাহক:

১৷ মিজানুর রহমান – ৪১৮
২৷ মাহমুদুল হাসান জয় – ৩৬৭
৩৷ নাঈম শেখ – ৩০৭
৪৷ তামিম ইকবাল – ৩০৬
৫৷ তানজিদ হাসান তামিম – ২৯৫
৬৷ রনি তালুকদার – ২৭৬
৭৷ আনিসুল ইসলাম ইমন – ২৭৩
৮৷ মোহাম্মদ মিথুন – ২৬৯
৯৷ মুনিম শাহরিয়ার – ২৬৫
১০৷ সাইফ হাসান – ২৪৩

তানভির ইসলামের ইকোনমি ও অ্যাভারেজ দুর্দান্ত, ১০ উইকেট কিংবা ১০ ওভার বোলিং করেছেন এমন বোলারদের মধ্যে সবচেয়ে ভালো ৪.৭৯ ইকোনমি শাইনপুকুর ক্রিকেট ক্লাবের এই স্পিনারের; অ্যাভারেজ ৯.৩৫। তবে স্ট্রাইকরেটে আবার এগিয়ে কামরুল ইসলাম রাব্বি, প্রতিটি উইকেটের জন্য রাব্বি বল খরচ করেছেন ১০.৩টি করে।

টুর্নামেন্টে ৫ উইকেট পেয়েছেন মুস্তাফিজুর রহমান, সালাহউদ্দিন শাকিল ও আনিসুল ইসলাম ইমন, সেরা বোলিং সালাহউদ্দিন শাকিলের ১৬ রান দিয়ে ৫ উইকেট। সর্বোচ্চ দুইবার করে ৪ উইকেট পেয়েছেন কামরুল ইসলাম রাব্বি ও আলাউদ্দিন বাবু, এক ইনিংসে সর্বোচ্চ ৫৫ রান দিয়েছেন সুজন হাওলাদার।

ডিপিএলের গ্রুপ পর্ব শেষে সেরা ১০ উইকেট সংগ্রাহক:

১৷ তানভির ইসলাম – ২০
২৷ কামরুল ইসলাম রাব্বি – ২০
৩৷ সালাহউদ্দিন শাকিল – ১৭
৪৷ সৈয়দ খালেদ আহমেদ – ১৬
৫৷ শরিফুল ইসলাম – ১৫
৬৷ মোহাম্মদ শহিদ – ১৫
৭৷ রাকিবুল হাসান – ১৪
৮৷ আলাউদ্দিন বাবু – ১৪
৯৷ মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ – ১৪
১০৷ মুস্তাফিজুর রহমান – ১৩