জামাল ভুইয়ার প্রতিপক্ষ ছিলেন ‘এরিকসন’

প্রকাশ: রবিবার, ১৩ জুন, ২০২১ | ১৯:২৬:১২

ডেস্ক রিপোর্ট

জামাল ভুইয়ার প্রতিপক্ষ ছিলেন 'এরিকসন' ছবিঃ বাফুফে

ইউরো চ্যাম্পিয়নশীপে ডেনমার্ক ও ফিনল্যান্ডের মধ্যকার ম্যাচের তখন চলছে ৪৩ মিনিট, হঠাৎই নিজের শক্তি-বল হারিয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন ডেনমার্কের মিডফিল্ডার ক্রিশ্চিয়ান এরিকসন। এই ঘটনার পর আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে পুরা ফুটবল বিশ্বে। সেই আতঙ্কের অংশ ছিলেন বাংলাদেশ অধিনায়ক জামাল ভুইয়াও।

গত কালকের এরিকসনের এই ঘটনা বলতে গিয়ে জামাল ভুইয়া বলেন,

“আমি জানতাম না সে হার্ট অ্যাটাক করেছে কিন্তু যখন জানতে পারলাম তখন সত্যি অনেক খারাপ লাগছে। এটা শুধু তার জন্য নয়, তার টিম মেট, তার পরিবারের জন্যও খুব খারাপ। আমি মনে করি প্রত্যেক ফুটবল খেলোয়াড় তার জন্য দোয়া করেছে।”

ডেনমার্কেই বড় হয়েছেন জামাল ভুইয়া। ফুটবলের হাতে খড়ি ডেনমার্কের কোপেনহেগেনে। সেখান থেকেই বাংলাদেশে এসেছিলেন তিনি। এরিকসনের কথা বলতে গিয়ে একটি গল্প শোনালেন জামাল ভুইয়া। জামালের বয়স যখন ১৫ কি ১৬, সে সময় জামাল খেলতেন এফসি কোপেনহেগের হয়ে আর এরিকসন ওবেন্স ফুটবল ক্লাবের হয়ে। এ বিষয়ে জামাল বলেন,

“আমি দুই বার ওর বিপক্ষে খেলেছি। খেলার আগে আমাদের কোচ বলেছিল ওদের দলে একটা ওয়ান্ডার কিড আছে। আমি ভেবেছিলাম ওয়ান্ডার কিড আবার কি করবে, ওরে আমি মেরে ফেলবো। যখন ম্যাচ শুরু হল তখন আমরা এগিয়ে যাই কিন্তু এরিকসন দুই গোল করে। যদিও আমরা ম্যাচ জিতেছিলাম। দ্বিতীয় ম্যাচে আবারো সে দুই গোল করে তারপর আমি বুঝতে পারি সে আসলেই ওয়ান্ডার কিড। এর চার মাস পরেই সে আয়াক্সে যোগ দেয়।”

জামাল ভুইয়া এসেছেন ডেনমার্ক থেকে, বাংলাদেশ দলের আরেক প্রবাসী ফুটবলার তারিক কাজী এসেছেন ফিনল্যান্ড থেকে। গত রাতে এই দুই দলের মধ্যকার ম্যাচে ১-০ গোলে জিতেছে ফিনল্যান্ড। যে কারণেই এই ম্যাচ নিয়ে এই দুইজনের মধ্যে একটা আগ্রহ কাজ করছিল। এ বিষয়ে বলতে গিয়ে জামাল জানালেন,

“ম্যাচের আগে তারিক আমাকে জিজ্ঞেস করেছিল আমি ম্যাচ দেখবো কিনা। আমি বলেছিলাম অবশ্যই আমি দেখবো। ম্যাচ চলাকালীন সময়ে সে আমাকে মেসেজ পাঠিয়েছিল এবং যখন ফিনল্যান্ড গোল করে তখনো সে আমাকে মেসেজ করে।”