ডেনমার্ক-ফিনল্যান্ড ম্যাচ ঘিরে জামাল-তারিকের রাইভালিটি

প্রকাশ: রবিবার, ১৩ জুন, ২০২১ | ২২:০৭:০০

মোঃ রানা শেখ

ডেনমার্ক-ফিনল্যান্ড ম্যাচ ঘিরে জামাল-তারিকের রাইভালিটি ছবিঃ বাফুফে

জামাল ভুইয়া, বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দলের অধিনায়ক। ছোট থেকে বড় হয়েছেন ডেনমার্কের কোপেনহেগেনে, ফুটবলের হাতেখড়িও শিখেছেন সেখানে। ডেনমার্কের চাকচিক্য ছেড়ে চলে আসেন লাল-সবুজের জার্সি গায়ে চাপাতে। সেই স্বপ্ন পূরণ হয় ২০১৩ সালে, এরপর থেকেই বাংলাদেশের হয়ে নিয়মিত জামাল ভুইয়া।

এদিকে গত ৩রা জুন আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচে বাংলাদেশের জার্সিতে অভিষেক হয়েছে ফিনল্যান্ড প্রবাসী তারিক কাজীর। ফিনল্যান্ডের অ-১৯ দলের হয়ে খেলা তারিক ২০১৯ এ বাংলাদেশে আসেন।

জামাল ভুইয়া ও তারিক কাজীকে নিয়ে কথা বলার কারণ গতকাল রাতে ইউরো চ্যাম্পিয়নশীপে মুখোমুখি হয়েছিল ডেনমার্ক ও ফিনল্যান্ড। বাংলাদেশ জাতীয় দলের হয়ে খেললেও দু’জন এসেছেন দুই দেশ থেকে। তাই এ ম্যাচ ঘিরে দুইজনের মধ্যেই এক প্রকার উত্তেজনা কাজ করেছিল। এ বিষয়ে বলতে গিয়ে জামাল জানালেন,

“ম্যাচের আগে তারিক আমাকে জিজ্ঞেস করেছিল আমি ম্যাচ দেখবো কিনা। আমি বলেছিলাম অবশ্যই আমি দেখবো। ম্যাচ চলাকালীন সময়ে সে আমাকে ম্যাসেজ পাঠিয়েছিল এবং যখন ফিনল্যান্ড গোল করে তখনো সে আমাকে ম্যাসেজ করে।”

ছবিঃ সংগৃহীত

এদিকে ডেনমার্ক ও ফিনল্যান্ড ম্যাচ নিয়ে তারিক কাজী জানিয়েছেন,

“আপনারা জানেন জামাল এসেছে ডেনমার্ক থেকে আর আমি ফিনল্যান্ড। তাই এই ম্যাচে আমাদের মধ্যে কিছুটা রাইভালিটি কাজ করেছে। গতকাল আমি ভেবেছিলাম ফিনল্যান্ড ভাল করবে আর অবশ্যই জামাল ডেনমার্ককে সাপোর্ট করেছে।”

উক্ত ম্যাচে ক্রিশ্চিয়ান এরিকসন হঠাৎ করেই মাটিয়ে লুটিয়ে পড়েন। যা আতঙ্ক তৈরি করেছে পুরা বিশ্ব ক্রীড়াঙ্গনে। এই হৃদয়বিদায়ক ঘটনা ছুয়ে দিয়েছে তারিক কাজীকেও। এই ঘটনা তারিক বলেন,

“এরিকসনের যা ঘটেছে তা খুবই দুঃখজনক। আমার চিন্তা করছিলাম তার পরিবার ও তাকে নিয়ে। আশা করি সে দ্রুত সুস্থ হয়ে আবারো মাঠে ফিরে আসবে।”

আগামী ১৫ই জুন মঙ্গলবার বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের শেষ ম্যাচে ওমানের বিপক্ষে মাঠে নামবে বাংলাদেশ। এই ম্যাচে নিজেদের ১০০% দিতে পারলে ভাল কিছু করা সম্ভব বলে জানিয়েছেন তারিক কাজী। তিনি আরো বলেন,

“আমরা জানি ওমান অনেক ভাল দল, তাদেরকে হারানো অনেক কঠিন। তারা বল পায়ে অনেক ভাল। যদিও গত কয়েকদিন আমরা অনুশীলনে কঠোর পরিশ্রম করেছি। তাই আমি মনে করি দল হিসেবে যদি আমরা ১০০% প্রতিজ্ঞাবদ্ধ ও সংকল্প থাকি তবে ভাল কিছু করা সম্ভব।”