বিজ্ঞাপন

অফিসিয়াল গ্রুপে যোগ দিন

বাংলাদেশের স্পোর্টসভিত্তিক শীর্ষ অনলাইন ম্যাগাজিন

টপ ট্রেন্ডিং সাকিব আল হাসান/ তামিম ইকবাল/ মুশফিকুর রহিম/ বিরাট কোহলি/ বাবর আজম/ মেসি/ নেইমার/ রোনালদো/ ব্রাজিল/ আর্জেন্টিনা/ রিয়াল মাদ্রিদ/ বার্সেলোনা/ পিএসজি

মাহেদির অনবদ্য ব্যাটিংয়ে সুপার লিগে প্রথম জয় গাজী গ্রুপের

প্রকাশ: বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন, ২০২১ | ১৩:২৫:৩৬

ডেইলি স্পোর্টসবিডি ডেস্ক

শেষ করা গেলো না ম্যাচ, পরিত্যক্ত দোলেশ্বর-গাজী গ্রুপের লড়াই ছবি - সংগৃহীত
শেষ করা গেলো না ম্যাচ, পরিত্যক্ত দোলেশ্বর-গাজী গ্রুপের লড়াই ছবি - সংগৃহীত

মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে সুপার লিগের ম্যাচে মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবের বিপক্ষে ৩ উইকেটের দারুণ এক জয় পেয়েছে গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্স, চ্যাম্পিয়ন রেস থেকে অনেকটাই ছিটকে যাওয়া গাজী গ্রুপের এটাই সুপার লিগে প্রথম জয়। টানা ৫ ম্যাচ হারলো মোহামেডান, মাহেদির ৯২ রানের অনবদ্য ইনিংসে বৃথা গেছে শুভাগত হোম চৌধুরীর ঝড়ো ফিফটি।

টানা ৪ হারের পর সুপার লিগে প্রথম জয়ের লক্ষ্যে গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্সের বিপক্ষে টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুটা একেবারে মন্দ হয়নি মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবের, আব্দুল মজিদ ও পারভেজ হোসেন ইমনের উদ্বোধনী জুটিতে আসে ৪০ রান। মজিদের ব্যাট থেকে আসে ১৪ বলে ১ ছক্কায় ১০ রান, ইরফান শুক্কুরকে নিয়ে আরও ১৯ রান যোগ করেন ইমন।

দারুণ খেলতে থাকা ইমন মাহেদি হাসানের বলে আকবর আলীর হাতে ক্যাচ দেওয়ার আগে ৩২ বলে ২ বাউন্ডারি ও ৪ ওভার বাউন্ডারি থেকে ৪১ রানের ইনিংস খেলেন। আরও একবার ব্যাট হাতে ব্যর্থ শামসুর রহমান শুভ, আউট হওয়ার আগে ৭ বল খেলে করেন ৮ রান, এর আগে বৃষ্টির কারণে কিছুক্ষণ খেলা বন্ধ থাকে।

অধিনায়ক শুভাগত হোম চৌধুরীকে নিয়ে ৪০ রানের জুটি গড়ে ২২ বলে ২ চার ও ১ ছয়ে ২৮ রান করেন ইরফান শুক্কুর, নাদিফ চৌধুরী শূন্য হাতে ফিরলে বড় সংগ্রহের সম্ভাবনায় বাধা পড়ে মোহামেডানের। তবে শেষ দিকে শুভাগত হোমের ঝড়ো ফিফটিতে দেড়শো পেরিয়ে যায় মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব।

এক পর্যায়ে ২৫ বলে ২৮ রান করা শুভাগত হোম চৌধুরী নাহিদ ইসলামের করা ১৯ তম ওভারের শেষ ৩ বলে ৩ ছক্কায় মেরে ২৮ বলেই ফিফটি পূর্ণ করেন। শেষ ৫ ওভারে ৫৩ রান তুলে নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে মোহামেডানের সংগ্রহ দাঁড়ায় ৬ উইকেটে ১৬৫ রান, শুভাগত হোম ৩১ বলে ৪ চার ও ৩ ছক্কায় ৫৯ রানে অপরাজিত থাকেন। গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্সের হয়ে ২ টি করে উইকেট নেন মাহেদি হাসান, মুহিউদ্দিন তারেক ও রাকিবুল আতিক।

জবাব দিতে নেমে ভালো শুরু পায় গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্সও, সৌম্য সরকার ও মাহেদি হাসানের উদ্বোধনী জুটিতে আসে ৪১ রান। ১৩ রানের ব্যবধানে সৌম্য সরকার, শাহাদাত হোসেন দিপু ও মুমিনুল হকের বিদায়ে চাপে পড়ে গাজী গ্রুপ। মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ৮ রানে আউট হলে ৭১ রানেই চতুর্থ উইকেট হারায় দলটি, তবে একপাশে অবিচল ছিলেন মাহেদি হাসান।

আরও খেলার খবরঃ   ডিপিএল টি-টোয়েন্টি | আবাহনীর শুভ সূচনা, পরিত্যক্ত বাকি দুই ম্যাচ

ইয়াসির আলীকে নিয়ে ২৮ রান যোগ করেন মাহেদি, তুলে নেন ফিফটি। ৭ম উইকেটে আকবর আলীকে নিয়ে ৪৩ রান যোগ করে গাজী গ্রুপকে জয়ের দিকে নেন মাহেদি, যেখানে আকবরের অবদান মাত্র ৭ রান। জয় থেকে মাত্র ৫ রান দূরে থাকতে আউট হন মাহেদি, খেলেন ৫৮ বলে ১১ চার ও ৩ ছক্কায় ৯২ রানের অনবদ্য ইনিংস।

গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্স ৩ বল হাতে রেখেই ৩ উইকেটের জয় পায়, আকবর আলী ১১ রানে অপরাজিত থাকেন। মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবের হয়ে ২২ রান দিয়ে ৩ উইকেট নেন আসিফ হাসান, ২ টি করে উইকেট পেয়েছেন শুভাগত হোম চৌধুরী ও ইয়াসিন আরাফাত মিশু।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব ১৬৫/৬, ২০ ওভার; শুভাগত হোম চৌধুরী ৫৯*, পারভেজ হোসেন ইমন ৪১, ইরফান শুক্কুর ২৮,  মাহমুদুল হাসান জয় ১৪, মাহেদি হাসান ২/২২, মুহিউদ্দিন তারেক ২/৩০, রাকিবুল আতিক ২/৩২)।

গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্স ১৬৬/৭, ১৯.৩ ওভার; (মাহেদি হাসান ৯২, সৌম্য সরকার ২২, ইয়াসির আলী ১১, আকবর আলী ১১*, আসিফ হাসান ৩/২২, ইয়াসিন আরাফাত মিশু ২/২৩, শুভাগত হোম চৌধুরী ২/২৯)।

ম্যাচ সেরাঃ মাহেদি হাসান (গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্স)।

সাম্প্রতিক খবর

বাংলাদেশ ক্রিকেট / ৬ষ্ঠ বোলারের বিবেচনাতেই প্রথম ম্যাচে ছিলেন সৌম্য – রাসেল ডোমিঙ্গো
ক্লাব ফুটবল / ব্রুজ ম্যাচেই ম্যানসিটির দলে ফিরছেন দুই ব্রাজিলিয়ান এডারসন-জেসুস?
বাংলাদেশ ফুটবল / বারিধারা ছেড়ে বসুন্ধরা কিংসে সুমন রেজা
ক্লাব ফুটবল / কুঁচকিতে চোট, চ্যাম্পিয়নস লিগে লেইপজিগের বিপক্ষে খেলা হচ্ছে না নেইমারের!
বাংলাদেশ ক্রিকেট / সারাবছর নাইমকে খেলিয়ে বিশ্বকাপে নেই কেন? – মিটিংয়ে পাপন ও আকরামের প্রশ্ন
দাবা / শেখ রাসেল আন্তর্জাতিক গ্রান্ডমাস্টার দাবা আসরের উদ্বোধন
বাংলাদেশ ক্রিকেট / তামিম ছাড়াও আরো একজন বিশ্বকাপে খেলতে চাননি : পাপন
টপ ট্রেন্ডিং সাকিব আল হাসান/ তামিম ইকবাল/ মুশফিকুর রহিম/ বিরাট কোহলি/ বাবর আজম/ মেসি/ নেইমার/ রোনালদো/ ব্রাজিল/ আর্জেন্টিনা/ রিয়াল মাদ্রিদ/ বার্সেলোনা/ পিএসজি