সোজা আঙ্গুলে ঘি না উঠায় আঙ্গুল বাঁকাতেই হলো লঙ্কান বোর্ডকে

প্রকাশ: বুধবার, ৯ জুন, ২০২১ | ১২:৩৫:২৮

ডেস্ক রিপোর্ট

শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ডের (এসএলসি) সাথে প্লেয়ারদের দ্বন্দ্ব প্রায় ৪ মাস ধরেই চলে আসছে। সম্প্রতি লঙ্কান ক্রিকেটারদের বাজে পারফরম্যান্সের কারণে নতুন কেন্দ্রীয় চুক্তির প্রস্তাব নিয়ে এসেছে এসএলসি। নতুন চুক্তিনামায় ৪০% কমিয়ে দেয়া হয়েছে প্লেয়ারদের বেতন। বেতন কাঠামোর মানদণ্ড হিসেবে দেয়া হয়েছে প্লেয়ারদের পারফর্মেন্স। অর্থাৎ ভালো খেলার উপর নির্ভর করছে তাদের পারিশ্রমিক।

নতুন এই বেতন কাঠামো নিয়ে একেবারেই খুশি নন দলের সিনিয়র ক্রিকেটার থেকে শুরু করে প্রায় দবাই। যা নিয়ে বোর্ডের সাথে চলছে জোর দ্বন্দ্ব। নতুন চুক্তিপত্রে সই না করায় কয়েকজন সিনিয়র ক্রিকেটার ছাড়াই বাংলাদেশে এসেছিল লঙ্কানরা। বাংলাদেশ সফরের আগেই প্লেয়াররা অস্বীকৃতি জানিয়েছিল টাইগারদের বিপক্ষে খেলতে। প্লেয়ারদের পক্ষ থেকে বলা হয়েছিল বাংলাদেশ সফরে গেলেও ইংল্যান্ড সিরিজে তারা আর খেলতে যাবেন না।

পরবর্তীতে বাংলাদেশ সফর শেষেই বেঁকে বসে করুণারত্মেরা। নতুন এক মাসের মেয়াদ বেঁধে দিয়েও প্লেয়াররা চুক্তিপত্রে সই না করাতে পেরে ভিন্ন পথে হেঁটেছে এসএলসি। সোজা আঙুলে ঘি না উঠায় আঙুল বাঁকা করে ফল পেয়েছে লঙ্কান বোর্ড। জানিয়ে দেয়া হয় ইংল্যান্ড সফরে না খেলতে রাজি হলে সেইসব ক্রিকেটারদের তিন বছরের জন্য তাকে নিষিদ্ধ করা হবে। সেই ‘হুমকি’র কাছেই শেষ পর্যন্ত এই সফর শেষ না হওয়া পর্যন্ত চুক্তি ছাড়াই খেলতে রাজি হয়েছেন ক্রিকেটাররা। তবে আসল দ্বন্দ্বের সমাপ্তি ঘটেনি এখনও।

আসন্ন এই সফরে স্বাগতিক ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তিনটি ওয়ানডে এবং তিনটি টি-টোয়েন্টি খেলবে শ্রীলঙ্কা। ২৩শে জুন কার্ডিফে প্রথম টি-টোয়েন্টিতে মাঠে নামবে দুইদল। আর ওয়ানডে সিরিজ মাঠে গড়াবে ২৯শে জুন থেকে।

ইংল্যান্ড সফরে শ্রীলঙ্কার ২৪ সদস্যের দল:
কুশল পেরেরা (অধিনায়ক), কুশল মেন্ডিস (সহ-অধিনায়ক), দানুশকা গুনাথিলাকা, আভিশকা ফার্নান্দো, পাথুম নিসানকা, নিরোশান ডিকওয়েলা, ধনাঞ্জয়া ডি সিলভা, ওশাদা ফার্নান্দো, চারিথ আসালঙ্কা, দাসুন শানাকা, ভানিন্দু হাসারাঙ্গা, রমেশ মেন্ডিস, চামিকা করুনারত্নে, ধনাঞ্জয়া লাকসান, ইশান জয়ারত্নে, দুশমন্থ চামিরা, ইসুরু উদানা, আসিথা ফার্নান্দো, নুয়ান প্রদীপ, বিনুরা ফার্নান্দো, শিরান ফার্নান্দো, লাকসান সান্দাকান, আকিলা ধনাঞ্জয়া, প্রভিন জয়াবিক্রমা।