ক্রিকেট > আন্তর্জাতিক ক্রিকেট

ওয়ানডে ক্রিকেটকে বিদায় জানালেন আইরিশ কিংবদন্তি কেভিন ও’ব্রায়েন

নিউজ ডেস্ক

১৮ জুন ২০২১, দুপুর ২:২০ সময়

[ 119790-qnsmvxttau-1557994448 ]
কেভিন ও'ব্রায়েন (ছবিঃ স্ক্রলইন)
একদিনের ক্রিকেটকে বিদায় জানিয়েছেন আয়ারল্যান্ডের কিংবদন্তি ক্রিকেটার কেভিন ও’ব্রায়েন। শুক্রবার ১৫ বছরের বর্ণাঢ্য ওয়ানডে ক্যারিয়ারের ইতি টেনেছেন তিনি। তবে টেস্ট এবং টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট চালিয়ে যাবেন ৩৭ বছর বয়সী এই আইরিশ অলরাউন্ডার।
পুরো বিশ্বকে তাক লাগিয়ে বিশ্বকাপে দ্রুততম সেঞ্চুরির ইতিহাস গড়ে ২০১১ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে আয়ারল্যান্ডকে ঐতিহাসিক জয় এনে দিয়েছিলেন কেভিন ও’ব্রায়েন। শুধু সে ম্যাচেই নয় ক্যারিয়ারের পুরোটা সময়েই আয়ারল্যান্ড ক্রিকেটের সেরাদের একজন ছিলেন তিনি৷ আয়ারল্যান্ডের হয়ে ১৫২টি ওয়ানডে খেলেছেন কেভিন ও’ব্রায়েন, যেখানে দেশটির ইতিহাসে এই ফরম্যাটে তৃতীয় সর্বোচ্চ ৩৬১৯ রান করেছেন তিনি। পাশাপাশি ডানহাতি মিডিয়াম পেসে শিকার করেছেন ১১৪টি উইকেট, যা আয়ারল্যান্ড পক্ষে সর্বোচ্চ। [caption id="attachment_32908" align="aligncenter" width="700"] ইংল্যান্ড বধের পর নায়ক (ছবিঃ জি নিউজ)[/caption] দীর্ঘ ১৫ বছর ধরে দেশকে এই ফরম্যাটে প্রতিনিধিত্ব করতে পেরে নিজেকে ধন্য মনে করছেন আইরিশ এই অলরাউন্ডার। দীর্ঘ এই ক্যারিয়ারের দারুণ সব স্মৃতি আজীবন তার কাছে চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবে বলে জানিয়েছেন তিনি।
দেশকে প্রতিনিধিত্ব করে গর্বিত কেভিন ও’ব্রায়েনঃ "আয়ারল্যান্ডের হয়ে দীর্ঘ ১৫ বছর খেলার পর আমার মনে করছি ওয়ানডে ক্রিকেট থেকে সরে দাঁড়ানোর এটাই উপযুক্ত সময়। দেশকে ১৫৩ বার প্রতিনিধিত্ব করে আমি গর্বিত এবং বাকি জীবনে যা আমার কাছে অবিস্মরণীয় হয়ে থাকবে।"
তবে ওয়ানডে থেকে অবসরের সিদ্ধান্ত নেওয়াটা মোটেই সহজ ছিল না। কিন্তু ক্যারিয়ারের বাকিটা সময় টেস্ট এবং টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে নিজের পুরোটুকু উজাড় করে দিতে চান আইরিশ কিংবদন্তি।
টি-২০ এবং টেস্টে নিজেকে উজার করে দিতে চান আইরিশ অলরাউন্ডারঃ "এটি মোটেই সহজ কোনো সিদ্ধান্ত ছিল না। তবে আমি অনুভব করতে পারছি আমি আগের মত ওয়ানডে দলে অবদান রাখতে পারছি না। সেই সাথে ওয়ানডে খেলার ব্যাপারে আগের মত তাড়নাও অনুভব করছি না। ২০০৬ থেকে তিনটি বিশ্বকাপসহ দলের সাথে কাটানো অনেক সুন্দর স্মৃতি রয়েছে আমার। এখন টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে নিজেকে পুরোটা উজাড় করে দিতে চাই।পাশাপাশি এখন পর্যন্ত তিনটি টেস্ট খেলেছি আমি, যেই সংখ্যাটা আরও বাড়াতে চাই।"