ফুটবল > আন্তর্জাতিক ফুটবল

পুরোনো ইতিহাস বদলে অবাক গল্প রচনা ইতালির!

নিউজ ডেস্ক

২০ জুন ২০২১, রাত ৮:২৫ সময়

[ 201958793_353028049513440_2302374691026317727_n ]
ছবিঃ সংগৃহীত
যদি আপনাকে বলা হয় ইতালির ফুটবল সম্পর্কে সবার প্রথমে কি মনে পড়বে? অবশ্যই এক শব্দে বলবেন - 'ডিফেন্স'। ইতালির রক্ষণ নিয়ে লিখে ফেলা যাবে বড় বড় ইতিহাস, কবিতার লাইনে লিখে ফেলা যাবে ইতালি কাব্য। অনেকে আদর করে বলতে পারেন - 'কাতানোচ্চি কাব্য'। প্রতিপক্ষকে ক্লান্ত করে কাউন্টার অ্যাটাক করে ম্যাচ জিতে ৪টা বিশ্বকাপ বগলদাবা করেছে নীল শিবির।   করোনা প্যানডেমিক বদলে ফেলছে বিশ্বকে। শোনা যায় ইতালির রোম শহরে আগের মত রাস্তায় রাস্তায় আনন্দ দেখা যায় না, যতটুকু দেখা যায় তার থেকে বরং দুঃখের বাতাস বহে বেশি। করোনা ভাইরাসে চীনের পর সবথেকে বড় মৃত্যুর মিছিল দেখেছিল এই ইতালি। কিন্তু তাই বলে ইতালির ফুটবলে বদল হবে! কেউ কি ভাবতে পেরেছিল?   প্রশ্নের উত্তর দিতে গেলে সুদুর পথ পাড়ি দিয়ে ইতালির কোন শহরে ঘাঁটি গেড়ে বসতে হবে। তবে ইতালির ফুটবলে বদল এসেছে। বড় ধরনের বদল। হার জিতের বদল এসেছে সত্যি। ২০০৬ সালের বিশ্বকাপের পর ইতালিকে খুঁজে পাওয়া ছিল দায়। সর্বশেষ বিশ্বকাপে তো বাছাইপর্ব উতরাতেও পারেনি ইতালি। কিন্তু তার থেকেও বড় বদল ঘটেছে ইতালির খেলার ধরনে।   বছরের পর বছর রক্ষণাত্মক খেলে আসা ইতালি এখন আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলছে। হ্যাঁ অবাক করার মত তথ্যই বটে। ইউরো ২০২১-এ প্রতিটি ম্যাচে ইতালি অবাক করে মাঠে দেখিয়েছে অল-আউট আক্রমণ। প্রতিটি ম্যাচেই আক্রমণের পর আক্রমণের পসরা সাজিয়ে ইউরোতে জানান দিচ্ছে - 'এবারের ইতালি জিততে এসেছে'। তিন ম্যাচ শেষে প্রতিটি গোলের পর খেলোয়াড়দের উদযাপন আর আগ্রাসী ভাবের ফুটেজ দেখলে মনে হবে এই ইতালির লক্ষ্য আলাদা। রবার্তো মানচিনির দল শেষ ম্যাচ ওয়েলসকে ছাড় দেয়নি এক ফোঁটাও। এই ম্যাচ জিতে নিজেদের ইতিহাস নতুন করে রচনা করেছে ইতালি।   নিজেদের ইতিহাসে সর্ব্বোচ্চ ম্যাচ অপরাজিত থাকা ও টানা জয়ের রেকর্ড ভেঙে ফেলেছে ইতালি। প্রতিটি ম্যাচে বল পজিশনে ৬০ শতাংশের বেশি বল দখল করে আর ৫টার বেশি অন টার্গেট শটে ইতালি অবাক করেছে ফুটবল বিশ্বকে।   রক্ষণাত্মক ফুটবল বদলে এই ইতালি এখন উপভোগের ফুটবল খেলে। এই ইতালি বদলে গেছে। হয়ত বদলে গেছে ইতালির স্বপ্নের ধরনও। পারবে কি শেষ অব্দি ইউরো জিতে জানান দিতে? ২০২২ বিশ্বকাপ যে খুব বেশি দুরে নেয়।