আইসিসির সদস্যপদ পেলো আরো ৩ টি দেশ

প্রকাশ: রবিবার, ১৮ জুলাই, ২০২১ | ১৯:৩০:২৩

ডেস্ক রিপোর্ট

আইসিসির সদস্যপদ পেলো আরো ৩ টি দেশ ছবিঃ ইন্টারনেট

গত ১৬ জুলাই সুইজারল্যান্ড, মঙ্গোলিয়া এবং তাজিকিস্তানকে সদস্যপদ দিয়েছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি)। আজ (১৮ জুলাই) এই ৩ দেশকে আনুষ্ঠানিকভাবে স্বাগত জানিয়েছে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি।

আইসিসির ৭৮তম অ্যানুয়াল মিটিংয়ে তাদের স্বাগত জানানো হয়েছে। ভার্চুয়াল মিটিংয়ে উপস্থিত ছিলেন ৩ দেশের ক্রিকেট বোর্ড প্রধানরা। মঙ্গোলিয়া এবং তাজিকিস্তান যথাক্রমে এশিয়ার ২২ এবং ২৩তম দেশ হিসেবে আইসিসির সহযোগী দেশ হিসেবে সদস্যপদ লাভ করলো।

অন্যদিকে ইউরোপের ৩৫তম দেশ হিসেবে সদস্যপদ পেয়েছে সুইজারল্যান্ড। সবমিলে এখন আইসিসির ৯৯ সহযোগী সহ মোট সদস্য সংখ্যা ১০৬টি দেশ।

সদস্যপদ পাওয়া ৩টি দেশ। ছবিঃ আইসিসি।

সদস্যপদ পেয়ে মঙ্গোলিয়া ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন (এমসিএ) প্রধান বাটুলগা গোম্বা বলেন, “মঙ্গোলিয়ায় ক্রিকেটের সুসংগত কাঠামো প্রতিষ্ঠায় আইসিসিতে যোগদান করছে। জাতীয় যুব গেমসে আন্তঃস্কুল প্রতিযোগিতা এবং আন্তঃদেশীয় প্রতিযোগিতায় এমসিসির লক্ষ্য উলানবাটর এবং প্রদেশগুলিতে স্কুল ভিত্তিক আউটরিচ প্রোগ্রাম হিসাবে অব্যাহত থাকবে। আমরা এটিকে ক্রিকেটের বীজ বপনের সেরা উপায় হিসাবে দেখছি। যাতে খেলাটি মঙ্গোলীয়দের জীবনের অংশ হয়ে যায়।”

অন্যদিকে ১৮১৭ সর্বপ্রথম ক্রিকেট খেলা হয় সুইজারল্যান্ডে। ২০১৪ সালে আইসিসির অনিয়মিত সদস্যপদ পায় তারা। বর্তমান দেশটিতে ৩৩টি ক্রিকেট ক্লাব ক্রিকেট খেলছে। দেশটিতে নিয়মিয় ঘরোয়া এবং যুব দলের ক্রিকেট খেলা হয়ে আসছে।

ক্রিকেট সুইজারল্যান্ড (সিএস) প্রধান অ্যালেকজান্ডার ম্যাককি বলেন, “আমরা আইসিসির সহযোগী সদস্য হিসাবে সদস্যপদ পেয়ে প্রচুর গর্বিত এবং উচ্ছ্বসিত। এটি সুইজারল্যান্ডের ক্রিকেটের সাথে জড়িত সমস্ত লোকের জন্য পুরস্কার যা কেবল দশ বছর আগে প্রতিষ্ঠিত ক্রিকেট সুইজারল্যান্ড আজকের দিনে এই খেলাটিকে বিকশিত করতে সহায়তা করেছে। এই পদক্ষেপটি সুইজারল্যান্ডে ক্রিকেটকে আরও উন্নত করতে এবং সর্বস্তরে ইউরোপীয় ক্রিকেটে চালিকা শক্তি হয়ে উঠতে আমাদের সহায়তা করবে।”

তাজিকিস্তান ক্রিকেট ফেডারেশন (টিসিএফ) সভাপতি নাজিবুল্লাহী রুজি বলেন, “তাজিকিস্তান ক্রিকেট ফেডারেশন আইসিসির সহযোগী সদস্য হিসাবে যুক্ত হতে পেরে আনন্দিত। সকল সদস্যপদ শর্ত এবং প্রয়োজনীয়তা পূরণ করে আমরা অত্যন্ত আত্মবিশ্বাসী যে আমরা তাজিকিস্তানে সফলভাবে ক্রিকেটকে বাড়িয়ে তুলতে পারবো।

কোচিং এবং আম্পায়ারিংয়ের ক্ষেত্রে আমাদের বিদ্যমান সুযোগসুবিধাগুলির উন্নয়নের কাজ আরও ত্বরান্বিত করার দিকে মনোনিবেশ করা আমাদের জন্য এখন সবচেয়ে বড় লক্ষ্য। আমাদের অগ্রাধিকার তালিকার অন্যান্য ক্ষেত্রগুলি হলো জুনিয়র এবং সিনিয়রদের জন্য পুরুষ এবং মহিলা ‘হাই-পারফরম্যান্স’ প্রোগ্রাম।”

অন্য দিকে আইসিসির লিখিত আইন ভঙ্গ করায় বাতিল করা হয়েছে জাম্বিয়ার সদস্যপদ। যারা ২০১৯ সালে আইসিসির সহযোগী দেশ হিসেবে সদস্যপদ লাভ করেছিল।

আইসিসির জেনারেল ম্যানেজার অব গেম ডেভেলপমেন্ট প্রধান উইলিয়াম গ্লেনরাইট দেশ তিনটিকে স্বাগত জানিয়ে বলেন, “আমরা আইসিসি পরিবারে তিনজন নতুন সদস্যকে স্বাগত জানাতে পেরে আনন্দিত, যা বৈশ্বিকভাবে ক্রিকেটের সম্ভাবনাকে বাড়াবে। তিনটি দেশই একটি চিত্তাকর্ষক প্রতিশ্রুতি প্রদর্শন করেছে – বিশেষত নারী এবং যুব দলের ক্ষেত্রে – এবং আমরা তাদের সম্ভাব্যতা অর্জনে তাদের সহায়তা করার জন্য প্রত্যাশা করছি।

ক্রিকেটীয় ক্রিয়াকলাপ মহামারী থেকে উদ্ভূত হওয়ার সাথে সাথে আমরা আমাদের সদস্যদের সাথে অংশীদারিত্বের জন্য উচ্চতর উচ্চাভিলাষী পরিকল্পনা এবং প্রকল্পগুলি নিয়ে ক্রিকেটের বিকাশের এক সর্বোচ্চ পর্যায়ে রয়েছি। এই উদ্যোগ বিশ্বব্যাপী ক্রিকেটের বিকাশ বৃদ্ধি করতে সহায়তা করবে।”