গুঞ্জন সত্যি করে এসি মিলানে জিরুড

প্রকাশ: শনিবার, ১৭ জুলাই, ২০২১ | ২০:২৬:০৯

ডেস্ক রিপোর্ট

গুঞ্জন সত্যি করে এসি মিলানে জিরুড ছবিঃ ইন্টারনেট

ফ্রাংক ল্যাম্পার্ডের সময় চেলসির গুরুত্বপূর্ণ সদস্য ছিলেন অলিভিয়ার জিরুড। ব্লুজদের আক্রমণভাগেও নেতৃত্ব দিয়েছিলেন। টানা ব্যর্থতায় ল্যাম্পার্ডের বিদায়ে পর স্টামফোর্ড ব্রীজে আসেন থমাস টুখেল। জার্মান এ কোচ আসার পর থেকেই বদলে যেতে থাকে পরিস্থিতি।

ছবিঃ টুইটার

থমাস টুখেলের অধীনে কোনভাবেই দলে থিতু হতে পারেননি জিরুড। সবমিলিয়ে চেলসির হয়ে ২০২০-২১ মৌসুমে প্রিমিয়ার লিগে খেলেছেন ১৭ ম্যাচ, ২১ শে মার্চের পর থেকেই ব্লুজদের জার্সিতে শুরুর একাদশে হয়নি জায়গা ফরাসি স্ট্রাইকারের।

এমন অবস্থায়, গুঞ্জন উঠে ইউরোর পরই চেলসি ছাড়ছেন ফরাসি তারকা। অবশেষে, সেই গুঞ্জনই সত্যি হলো। ইংল্যান্ড ছেড়ে ইতালিতে পাড়ি দিলেন ফ্রান্সের বিশ্বকাপজয়ী এ তারকা। দুই বছরের চুক্তিতে ইতালির ঐতিহ্যবাহী ক্লাব এসি মিলানে যোগ দিলেন ৩৪ বছর বয়সী এ স্ট্রাইকার। আজ (শনিবার) নিজেদের টুইটার পাতায় ফরাসি স্ট্রাইকারের সঙ্গে চুক্তির কথা জানায় এসি মিলান।

গেল মৌসুম থেকেই নিজেদের হারানো ফর্মে ফেরা শুরু করেছে এসি মিলাম। প্রায় এক দশক পর স্কুডেট্টো জয় স্বপ্ন দেখলেও শেষ পর্যন্ত চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ইন্টার মিলানের কাছে শিরোপা হাতছাড়া করে স্টেফানে পিওলোর দল। তাই, এবার আক্রমণভাগ আরও শানিয়ে নিতে অভিজ্ঞ এই ফুটবলারকে দলে ভিড়িয়েছে রোজানেরিওরা।

মূলত, তারুণ্যনির্ভর এসি মিলানে অভিজ্ঞতা সঞ্চার করতেই ৩৪ বছর বয়সী এই ফুটবলারকে সান সিরোতে আনা হয়েছে বলে জানান এসি মিলান ডিরেক্ট পাওলো মালদিনি। তিনি বলেন, “(অলিভিয়ার) জিরুড খুবই নির্ভরযোগ্য এক খেলোয়াড়। সিরি’আ তে আমাদের দলটি বেশ তরুণ। এমন অভিজ্ঞ ফুটবলারই আমরা খুজছিলাম। তরুণদের কাছে অভিজ্ঞতা ভাগাভাগি করতে পারবে সে।”

২০১৮-১৯ মৌসুমে আর্সেনাল ছেড়ে চেলসিতে নাম লেখান জিরুড। স্টামফোর্ড ব্রীজের ক্লাবটির হয়ে ১১৯ ম্যাচে ৩৯ গোল করার পাশাপাশি সতীর্থদের দিয়ে আরও ১৪ গোল করিয়েছেন। এসময় চেলসির হয়ে একটি এফএ কাপ, একটি ইউরোপা লিগ ও একটি উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগ মিলিয়ে তিনটি শিরোপা জিতেছেন।