টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বাবর আজমকে নেতৃত্বে দেখতে চান না ইন্তিখাব

প্রকাশ: মঙ্গলবার, ২০ জুলাই, ২০২১ | ০৪:৩৮:৩৬

ডেস্ক রিপোর্ট

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বাবর আজমকে নেতৃত্বে দেখতে চান না ইন্তিখাব ছবি - আইসিসি

ব্যাট হাতে ক্রিকেটে সংক্ষিপ্ত সংস্করণ টি-টোয়েন্টিতে বেশ সফলই বলা যায় বর্তমান সময়ের অন্যতম সেরা ব্যাটার বাবর আজমকে, তার নেতৃত্ব পাকিস্তানও টি-টোয়েন্টিতে একেবারে খারাপ করছে সেটা বলা যাবে না। তবে দেশটির সাবেক অধিনায়ক ইন্তিখাব আলম আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বাবর আজমকে নেতৃত্বে দেখতে চান না।

২০১৯ সালের অক্টোবরে পাকিস্তানের টি-টোয়েন্টি দলের অধিনায়কত্ব পান বাবর আজম, পরের বছর ওয়ানডে ও টেস্টেও অধিনায়ক হিসেবে দায়িত্ব পান দেশটির সেরা এই ব্যাটার। বাবর আজমের নেতৃত্বে পাকিস্তান টি-টোয়েন্টি খেলেছেন ২৩টি, যেখানে জয়ের পাল্লাই ভারি। ৯ হারের বিপরীতে জয় পেয়েছেন ১৪ ম্যাচে, ব্যাট হাতেও বেশ সফল তিনি।

সম্প্রতি ইংল্যান্ড সফরে দ্বিতীয় সারির ওয়ানডে দলের কাছে হোয়াইটওয়াশের পর মুল শক্তির টি-টোয়েন্টি দলের বিপক্ষে বাবর আজম ও মোহাম্মদ রিজওয়ানের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে জয় দিয়ে সিরিজ শুরু করে পাকিস্তান। তবে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে হেরে যায় দলটি, এখনো সিরিজ জয়ের সমান সম্ভাবনা আছে পাকিস্তানের।

ব্যাট হাতে দুর্দান্ত, নেতৃত্বেও সফল বাবর আজম। তবে তার জন্য তিন ফর্মেটেই অধিনায়কত্ব করাটা চাপ হিসেবে দেখছেন দেশটির সাবেক অধিনায়ক ও বিশ্বকাপ জয়ী কোচ ইন্তিখাব আলম। তিনি মনে করেন তিন ফর্মেটেই অধিনায়কত্ব চাপ তৈরি করেছে বাবর আজমের উপর, যে কারণে টি-টোয়েন্টিতে অন্য কাউকে দেখতে চান।

ক্রিকেট পাকিস্তানকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ইন্তিখাব আলম বলেন, “বাবরকে যখন তিন ফর্মেটেই অধিনায়কত্ব দেওয়া হয়, তখন আমি বলেছিলাম যে এটা ঠিক সিদ্ধান্ত নয়। এমনকি সে যদি নিজেও বলে নেতৃত্ব দেওয়াটা চাপ নয়, আমি মনে করি, তিন ফর্মেটে অধিনায়কত্বের কারণে তার ওপর অনেক চাপ পড়ছে। আমরা যদি তাকে অধিনায়কত্ব দিতেই চাই, তাহলে সেটা কেবল হওয়া উচিত টেস্ট ও ওয়ানডেতে, টি-টোয়েন্টিতে অন্য কাউকে অধিনায়ক করা উচিত।”

আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ৪ মাসেরও কম সময় বাকি আছে, এমন প্রেক্ষাপটে হুট করে নেতৃত্বে পরিবর্তনের সম্ভাবনা নেই বললেই চলে। তবে ইন্তিখাব আলমের কথার সূত্র ধরে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর টি-টোয়েন্টিতে নতুন কাউকে নেতৃত্বে দেখা যেতেই পারে, অবশ্য আরব আমিরাতে হতে যাওয়া টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে দারুণ কিছু করে দেখাতে পারলে বাবর আজমকে সরে যেতে নাও হতে পারে।