টোকিও অলিম্পিকে অ্যাথলেটদের জন্য থাকছে ‘অ্যান্টি সেক্স’ খাট

প্রকাশ: রবিবার, ১৮ জুলাই, ২০২১ | ১৬:২১:৩১

ডেস্ক রিপোর্ট

টোকিও অলিম্পিকে অ্যাথলেটদের জন্য থাকছে 'অ্যান্টি সেক্স' খাট ছবিঃ ইন্টারনেট

করোনা আবহের মধ্যেই জাপানের টোকিওতে শুরু হচ্ছে বিশ্বের সবচেয়ে বড় ক্রীড়া আসর অলিম্পিক গেমস ২০২০। করোনা মহামারির কারণে এক বছর পিছিয়ে শুরু হচ্ছে আসরটি। যদিও এই ক্রান্তিলগ্নে দেশটির বেশিরভাগ নাগরিকই চেয়েছিলেন আসরটি যেন না বসে।

ফলে আসরটি সফলভাবে আয়োজন করতে অনেক বড় চ্যালেঞ্জ নিয়ে মাঠে নেমেছে আয়োজক কতৃপক্ষ। কিন্তু এরই মাঝে করোনা ভাইরাস প্রবেশ করেছে অলিম্পিক ভিলেজে। দু’জন অ্যাথলেt আক্রান্ত হয়েছেন মরণঘাতী এই ভাইরাসে।

যদিও করোনা ভাইরাস এড়াতে চেষ্টার কমতি রাখছে না অলিম্পিক কমিটি। যুক্ত করা হচ্ছে নানা প্রযুক্তি। অলিম্পিক ভিলেজে করোনাকালে অ্যাথলেটরা নিজেদের মধ্যে যৌন সঙ্গমে লিপ্ত হলে করোনা ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা থেকে যাচ্ছে। যার ফলে গেমস ভিলেজে অ্যাথলেটদের জন্য দেয়া হয়েছে যৌন সঙ্গম বিরোধী ‘অ্যান্টি সেক্স’ খাট।

করোনা মহামারির এই সময়ে অ্যাথলেটদের আরো বেশি সুরক্ষিত রাখতেই এই বিশেষ খাটের ব্যবস্থা। এই মাস্টার প্ল্যানের অন্যতম অঙ্গ এই ‘অ্যান্টি সেক্স’ খাট। কি এই বিশেষ বিছানা! কিভাবেই বা তাকে তৈরি করা হয়েছে!

বিশেষ ধরনের প্লাই বোর্ড দিয়ে বানানো এই খাট শুধুমাত্র একজনের ভার বইতে সক্ষম। অর্থাৎ খাটে উঠে কোন দুই অ্যাথলেট যৌন সঙ্গমে লিপ্ত হওয়ার চেষ্টা করলে দু’জনের দৈহিক ওজন বহনের ক্ষমতাহীন এই খাট ভেঙে পড়বে।

বিশেষভাবে তৈরিকৃত আন্টি সেক্স খাট। ছবিঃ সম্পাদিত।

তবে ভেঙে পড়লেও চিন্তা নেই। রিসাইকেল করার ব্যবস্থাও আছে খাটটিতে। সেক্ষেত্রে গেমস ভিলেজে কোন অ্যাথলেট নিয়ম মানছেন আর কে মানছেন না, তা জানা অনেকটাই সহজ হবে।

জানা গেছে অ্যাথলেটদের অলিম্পিক ভিলেজে প্রবেশ করার আগে কন্ডম উপহার দেয়া হয়েছে। পাশাপাশি সেটি ব্যবহার না করতেও উদ্বুদ্ধ করছে অলিম্পিক কমিটি। তা বাড়ি নিয়ে যেতে তাঁদেরকে আবেদন করা হয়েছে সুভিনিয়র হিসেবে।