তামিমের ১৪, বাংলাদেশেরও ১৪

প্রকাশ: মঙ্গলবার, ২০ জুলাই, ২০২১ | ২১:৪১:১১

ডেস্ক রিপোর্ট

তামিমের ১৪, বাংলাদেশেরও ১৪ ছবি - সংগৃহীত

অধিনায়ক তামিমের ১৪ তম ওয়ানডে সিরিজের দিনে বাংলাদেশ ১৪ বারের মত কোন সিরিজে না সবকটি ম্যাচ জিতলো। সবমিলিয়ে প্রতিপক্ষকে ১৪তম হোয়াইটওয়াশের লজ্জা দিলো বাংলাদেশ।

জিম্বাবুয়ের হারেরেতে ৩ ম্যাচ সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডেতে স্বাগতিকদের ৫ উইকেটে হারিয়ে ৩-০ ব্যবধানে সিরিজ জিতলো বাংলাদেশ। গুরুত্বপূর্ণ এই জয়ে ওয়ানডে সুপার লিগে পূর্ণ ৩০ পয়েন্ট তুলে নিলো টাইগাররা। সেঞ্চুরি পেয়েছেন তামিম ইকবাল, সুযোগ পেয়েই নিজেকে প্রমাণ করেছেন নুরুল হাসান সোহান।

বড় লক্ষ্যে ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুটা অতি রক্ষণাত্মকই ছিল বাংলাদেশের, ৮ম ওভারে টেন্ডাই চাতারাকে ২ চার ও ১ ছক্কায় ১৯ রান তুলে খোলস থেকে বেরিয়ে আসেন তামিম ইকবাল। ৩২ রান করা লিটনের বিদায়ে ভাঙে ৮৮ রানের উদ্বোধনী জুটি, লিটন ফিরলেও ফিফটি তুলে নিয়েছেন অধিনায়ক তামিম ইকবাল।

দ্বিতীয় উইকেটে দুজনে গড়েন ৫৯ রানের জুটি, সাকিব আল হাসান ৩০ রানে আউট হন। ফিফটিকে সেঞ্চুরিতে রূপান্তর করেন অধিনায়ক তামিম ইকবাল, ৮৭ বলে তুলে নেন দুর্দান্ত শতক। মোহাম্মদ মিথুনকে নিয়ে ৫৭ রান যোগ করেন তামিম, ডোনাল্ড টিরিপানোর বলে ফিরে যাওয়ার আগে ৯৭ বলে ৮ চার ৩ ছক্কায় ১১২ রানের ইনিংস খেলেন।

পরের বলেই মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকেও ফেরান ডোনাল্ড টিরিপানো, জিম্বাবুয়ে ম্যাচে ফিরে। মোহাম্মদ মিথুন রানের জন্য সংগ্রাম করলেও দারুণ ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশকে এগিয়ে নেন নুরুল হাসান সোহান, দুজনে গড়েন ৬৪ রানের পঞ্চম উইকেট জুটি। জয় থেকে ৩১ রান দূরে থাকতে আউট হয়ে যান মিথুন, তার ব্যাট থেকে আসে ৫৭ বলে ৩০ রানের ইনিংস।

বাকি কাজটুকু আফিফ হোসেনকে সাথে নিয়ে খুব সহজেই সেরেছেন নুরুল হাসান সোহান, ১২ বল হাতে রেখে ৫ উইকেটের জয় পায় বাংলাদেশ। সোহান ৪৫ ও আফিফ হোসেন ২৬ রানে অপরাজিত থাকেন, ওয়েসলি মাধুভারে ও ডোনাল্ড টিরিপানো ২ টি করে উইকেট নেন।

এর আগে রেজিস চাকাভার ৮৪, সিকান্দার রাজার ৫৭ ও রায়ান বার্লের ৫৯ রানের ইনিংসে ৩ বল বাকি থাকতে ২৯৮ রানে অল আউট হয়ে যায় জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট দল। বাংলাদেশের হয়ে মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন ও মুস্তাফিজুর রহমান ৩টি করে উইকেট নেন।