দ্য হান্ড্রেড : থাকছে না ‘ব্যাটসম্যান’, জেনে নিন অদ্ভুত সব নিয়ম

প্রকাশ: মঙ্গলবার, ১৩ জুলাই, ২০২১ | ১২:২৫:২০

ডেস্ক রিপোর্ট

দ্য হান্ড্রেড : থাকছে না 'ব্যাটসম্যান', জেনে নিন অদ্ভুত সব নিয়ম ছবি - সংগৃহীত

কয়েকদিনের মধ্যেই মাঠে গড়াবে ক্রিকেটের নবতম সংস্করণ ‘দ্য হান্ড্রেড’ খ্যাত ১০০ বলের টুর্নামেন্ট। সাধারণ ওয়ানডে, টেস্ট বা টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের মতো খেলা হলেও তাতে থাকছে অনেকগুলো অদ্ভুতেড়ে নিয়ম। এই টুর্নামেন্টে ছয় বলের জায়গায় ওভার হবে পাঁচ বলে।

দ্য হান্ড্রেডে ব্যবহার করা যাবে না ব্যাটসম্যান শব্দ। ধারাভাষ্যকাররা ব্যাটসম্যানের পরিবর্তে ‘ব্যাটার’ শব্দ ব্যাবহার করবেন। এছাড়াও ইংল্যান্ডের ঘরোয়া ক্রিকেটে প্রথমবার ডিআরএস-র ব্যবহার করা হবে। এছাড়াও থাকছে অনেকগুলো গুরুত্বপূর্ণ নিয়ম।

চলুন দেখে নেয়া যাকঃ

১। ওভার নয় বলের মাধ্যমে ইনিংসের গতিবিধি পরিমাপ করা হবে। অর্থাৎ স্লো ওভারের জন্য প্লেয়ারদের শাস্তি হবে না। শাস্তি হবে বলের হিসেবে।

২। একজন বোলার পাঁচ বল করার পর (আদতে সেটি এক ওভার) আম্পায়াররা ‘ফাইভ’ কল করবেন। পাশাপাশি একজন বোলার ৫ বলের বদলে ১০ বলও করতে পারবেন। পাঁচ বল শেষ হলে তা চিহ্নিত করার জন্য আম্পায়রা একটি সাদা কার্ডের ব্যবহার করবেন।

৩। ১০০ বলের খেলায় পাওয়ার প্লে হবে প্রথম ২৫ বলের। পাওয়ার প্লের পর বোলিং ইনিংসের যে কোন সময়ে ব্যাটিং দল দুই মিনিটের টাইম আউট নিতে পারবে।

৪। ক্যাচ আউটের সময় নন-স্ট্রাইক ব্যাটার আউট হওয়া ব্যাটসম্যানকে ক্রস করে গেলেও নতুন উইকেটে আসা ব্যাটসম্যানকেই স্ট্রাইক প্রান্তে যেতে হবে।

৫। গ্রুপ পর্যায়ে ম্যাচ টাই হলে দুই দলই এক পয়েন্ট করে পাবে। তবে নক আউট পর্বে ফলাফল ৫ বলের সুপার ওভারে ‘সুপার ফাইভ’ -এর মাধ্যমে নির্ধারত কর হবে। ‘সুপার ফাইভ’-এর পরেও ম্যাচ যদি টাই হয় তবে আরো একবার ‘সুপার ফাইভ’ হবে। তারপরেও ম্যাচ অমীমাংসিত হলে গ্রুপ পর্যায়ে বেশি পয়েন্ট পাওয়া দলকে বিজয়ী ঘোষণা করা হবে।

৬। বৃষ্টিবিঘ্নিত ম্যাচের ক্ষেত্রে ডাকওয়ার্থ-লুইস নিয়মেও পরিবর্তন আনা হয়েছে।

৭। প্রথমবার ইংল্যান্ডের ঘরোয়া ক্রিকেটে ডিসিশন রিভিউ সিস্টেম (ডিআরএস) ব্যবহার করা হবে।

৮। নো বল নির্ধারণের দায়িত্ব থাকবে তৃতীয় আম্পায়ারের কাঁধে।

৯। যদি কোন সময়ের হিসেবে বোলিং রেটে পিছিয়ে যায় তাহলে সেই দলকে শাস্তি হিসেবে সেই সময় থেকে ৩০ গজ বৃত্তের বাইরে একটি ফিল্ডার কম রেখেই খেলতে হবে।