রাউল, ক্যাসিয়াসকে প্রতারক বললেন ফ্লোরিন্টিনো পেরেজ!

প্রকাশ: মঙ্গলবার, ১৩ জুলাই, ২০২১ | ২১:১১:১৮

ডেস্ক রিপোর্ট

রাউল, ক্যাসিয়াসকে প্রতারক বললেন ফ্লোরিন্টিনো পেরেজ! ছবি - সংগৃহীত

ইকার ক্যাসিয়াস ও রাউল গঞ্জালেজ। রিয়াল মাদ্রিদের ইতিহাসের অন্যতম সেরা দুই ফুটবলার। দুই দশক লস ব্লাংকোসদের জার্সি গায়ে মাতিয়েছেন মাঠ, হৃদয় জয় করে নিয়েছেন কোটি কোটি মাদ্রিদিস্তার। নিজেদের বর্নাট্য ক্লাব ক্যারিয়ারে রিয়ালের হয়ে জিতেছেন সম্ভব্য সবকিছুই, ইতিহাসও গড়েছেন অনেক। তাই, বর্তমান প্রজন্মের বেশিরভাগ মাদ্রিদিস্তার কাছেই ক্যাসিয়াস ও রাউল গঞ্জালেজই যেন রিয়াল মাদ্রিদের শেষ কথা। 

অথচ, রিয়ালের কিংবদন্তি এই দুজন ফুটবলারকে নিয়ে কুৎসা রটনা করলেন ক্লাব প্রেসিডেন্ট ফ্লোরিন্টিনো পেরেজ। সম্প্রতি রিয়াল মাদ্রিদ প্রেসিডেন্টের পুরাতন কিছু অডিও ফাঁস করেছে স্প্যানিশ পত্রিকা এল কনফিডেনসিয়াল। ফাঁস হওয়া অডিওতে রিয়াল মাদ্রিদের সাবেক ফুটবলারদের নিয়ে ফ্লোরিন্টিনো পেরেজের বেশকিছু চাঞ্চল্যকর খবর বেরিয়ে এসেছে।

ছবিঃ ফেসবুক

এল কনফিডেনসিয়ালের ফাঁস হওয়া অডিও থেকে জানা যায়, রিয়াল মাদ্রিদ ইকার ক্যাসিয়াস ও রাউল গঞ্জালেজকে নিয়ে যতটুকু আলোচনা করে তার যোগ্য এ দুজন নয় বলে মনে করেন রিয়াল মাদ্রিদ প্রেসিডেন্ট। কিংবদন্তি গোলরক্ষক ক্যাসিয়াস সম্পর্কে ফ্লোরিন্টিনো পেরেজ বলেন,

“ক্যাসিয়াস কখনওই রিয়াল মাদ্রিদের মানের গোলরক্ষক নয়, তুমি আমাকে কি বলতে বলো? ও যোগ্য না, কখনোই ছিলো না। সে আমাদের বিশাল ব্যর্থতা। সমস্যা হচ্ছে, লোকে তাকে আদর করে, তাকে ভালবাসে, তাকে নিয়ে মেতে থাকে। সবাই তার হয়ে কথা বলে।”

অন্য আরেকটি অডিও ক্লিপে জানা যায়, ফ্লোরিন্টিনো পেরেজ শুধু ইকার ক্যাসিয়াসকেই নয়; রিয়াল মাদ্রিদের আরেক কিংবদন্তি রাউল গঞ্জালেজ নিয়েও খুবই নিম্নমানের কথা বলে। তিনি রিয়ালের ইতিহাসের সেরা এই দুজন ফুটবলারকে ইতিহাসের সেরাও প্রতারক বলেছেন। পেরেজ বলেন, “সে (ক্যাসিয়াস) একজন বড় প্রতারক, আরেক জন হলেন রাউল (গঞ্জালেজ)। রিয়াল মাদ্রিদ ইতিহাসে সেরা দুজন প্রতারক প্রথমজন রাউল, আর দ্বিতীয় ক্যাসিয়াস।”

” রাউল খুবই বাজে। ও মনে করে মাদ্রিদ ওর। ও আর ওর এজেন্ট। ও হচ্ছে অন্যতম কারণ যার জন্য আমি চলে গিয়েছিলাম। রাউলই কালপ্রিট। ও প্লেয়ারদের মোরাল, মাদ্রিদ, সবকিছুকে ধ্বংস করতেছে। এটা খুবই বাজে একটা ব্যাপার যে ও কতটা বাজে একটা ছেলে।”

ছবিঃ ফেসবুক

ক্লাব ইতিহাসের সেরা গোলরক্ষক ইকার ক্যাসিয়াস সম্পর্কে ফ্লোরিন্টিনো পেরেজ আরও বলেন, “ক্যাসিয়াস, বাজে ছেলে, একদমই খাটো, ও ভালো করে দেখতেও পায় না। আর ওকে দেখেই বুঝা যায় ও ওর গার্লফ্রেন্ডের সাথে কখন ভালো আছে আর কখন খারাপ আছে। ও পোষা কুকুরের মতো, একদম ছোট বাচ্চাদের মতো।”

রিয়াল মাদ্রিদ প্রেসিডেন্ট মোটেও ছাড় দেননি ক্যাসিয়াসের গার্ল্ডফ্রেন্ডকেও। ক্যাসিয়াসের গার্লফ্রেবড সারা কারাবোনেরোকে খ্যাতি আর টাকার পাগল বলে পেরেজ বলেন, “ঐ মেয়েটা, সারা কারবোনেরো, ক্যাসিয়াসের গার্লফ্রেন্ড। ওকে আমি এক বিন্দু পরিমাণও বিশ্বাস করি না। এই ধরনের মেয়েরা টাকা আর খ্যাতির জন্য পাগল। ও মনে করে ও যেন একটা মুভিস্টার।”

স্প্যানিশ কিংবদন্তি গোলরক্ষককে পোষা কুকুরের সাথে তুলনা করে ফ্লোরিন্টিনো পেরেজ আরও বলেন, “ইকার ক্যাসিয়াস হচ্ছে পোষা কুকুরের মতো যাকে নিয়ে তুমি হাটতে বের হও। একটা খেলনার মতো ও, একদমই শিশুসুলভ।”

“মিডিয়া ফ্যানদের কাছে ক্যাসিয়াসের ফলস ইমেজটা প্রকাশ করতেছে। যখন ক্যাসিয়াসের গার্লফ্রেন্ড কারবোনেরো ক্রিস্টিয়ানোকে সেলফিশ বলেছিলো, অথবা রামোসের সাথে ঘটনাটা, অথবা মৌরিনহোর সাথে যা হয়েছে, সবকিছুই ক্যাসিয়াসের সাথে সম্পৃক্ত।”

ছবিঃ ইন্টারনেট

খেলোয়াড়েদের প্রতি নিজের দৃষ্টিভঙ্গির কথা বলে রিয়াল প্রেসিডেন্ট আরও বলেন,” খেলোয়াড়রা খুবই স্বার্থপর। আপনি কোনকিছুর জন্যই তাদের উপর নির্ভর করতে পারবেন না। আপনি যদি তা করে থাকেন, তবে আপনি একটি ভুল করেছেন এবং তারা আপনাকে হতাশ করবেন, এটি হাস্যকর। তাদের নিয়ে আমার ভয়াবহ দৃষ্টিভঙ্গি রয়েছে।”

ফাঁস হওয়া অডিও ক্লিপগুলো ২০০৬ সালের। ফ্লোরিন্টিনো পেরেজ ফাঁস হওয়া অডিগুলো নিয়ে প্রত্যাখ্যান না করলেও এল কনফিডেনসিয়ালের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার কথা কথা জানিয়েছেন। নিজের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত এক বিবৃতিতে এই কথা জানায় রিয়াল মাদ্রিদ।

২০১০ সালে রিয়াল মাদ্রিদকে বিদায় জানায় রাউল গঞ্জালেজ। বর্তমানে লস ব্লাংকোসদের একাডেমি কাস্তিয়ার হেড কোচ হিসেবে কাজ করছেন স্প্যানিশ কিংবদন্তি। আর ২০১৫ সালে রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে গ্লোভস জোড়া তুলে রাখার পর ইকার ক্যাসিয়াস বর্তমানে রিয়াল মাদ্রিদ ফাউন্ডেশনের হয়ে কাজ করছেন।