বিজ্ঞাপন

অফিসিয়াল গ্রুপে যোগ দিন

বাংলাদেশের স্পোর্টসভিত্তিক শীর্ষ অনলাইন ম্যাগাজিন

টপ ট্রেন্ডিং সাকিব আল হাসান/ তামিম ইকবাল/ মুশফিকুর রহিম/ বিরাট কোহলি/ বাবর আজম/ মেসি/ নেইমার/ রোনালদো/ ব্রাজিল/ আর্জেন্টিনা/ রিয়াল মাদ্রিদ/ বার্সেলোনা/ পিএসজি

শরণার্থী শিবির থেকে নিগারার বিস্ময়কর অলিম্পিক যাত্রা

প্রকাশ: রবিবার, ২৫ জুলাই, ২০২১ | ১৪:২৭:১৮

ডেইলি স্পোর্টসবিডি ডেস্ক

শরণার্থী শিবির থেকে নিগারার বিস্ময়কর অলিম্পিক যাত্রা
ছবিঃ ইন্টারনেট
শরণার্থী শিবির থেকে নিগারার বিস্ময়কর অলিম্পিক যাত্রা ছবিঃ ইন্টারনেট

পাকিস্তানের পেশোয়ারের একটি স্কুলে পড়তেন নিগারা শাহীন। স্বভাবতই স্কুল শুরুর সময় ‘পাক সার জমিন সাদ বাদ….’ গাওয়ার কথা তার। কিন্তু সকলের অজান্তে তার মনে যে বেজে চলতো অন্য কিছু। তা কেউ দেখতে পায়নি। কেউ শুনতে না পেলেও হয়তো মনে মনে ‘হে মেহরাবানে মা জান মোতিয়ে ওওমা হিসাবে হাসমত, আমার ফার্সনডনে তো….!’ গেয়েছেন নিগারা।

আফগানিস্তানের মেয়ে হয়েও আফগানিস্তানের জাতীয় সংগীত গাইতে পারেননি নিগারা। বেঁচে থাকাই যেখানে মুখ্য বিষয় সেখানে লোকচক্ষুর সামনে আফগানিস্তানের জাতীয় সংগিত গাওয়ার চিন্তা বিলাসিতাই! পাকিস্তানের শরণার্থী শিবিরে থেকে জন্মভূমি আফগানিস্তানের জাতীয় সংগীত গাইতে না পারলেও সৃষ্টিকর্তা তাকে অন্যভাবে সম্মানিত করেছেন।

শরণার্থী শিবির থেকে নিগারা শাহীন চলে গেছেন বিশ্বের সবচেয়ে বড় ক্রীড়া আসর অলিম্পিকের মঞ্চে। টোকিও অলিম্পিকে অংশ নিচ্ছেন ১২টি ইভেন্টে মোট ২৯ জনের শরণার্থী অ্যাথলেট দল। সেই দলে রয়েছেন নিগারা শাহীনও।

নিগারা শাহীন। ছবিঃ সংগৃহীত।

১৯৯৩ সালে আফগানিস্তানে গৃহযুদ্ধ চলাকালীন দুই দিন দুই রাত পায়ে হেঁটে তার পরিবারের সাথে আফগান সীমান্ত পাড়ি দিয়ে পাকিস্তানে আশ্রয় নেয় নিগারার পরিবার। এরপর ১৮ বছর সেখানেই কাটিয়ে দেন তিনি।

অলিম্পিকের মঞ্চে যাওয়ার আগে শরণার্থী শিবিরের বর্ণনা দিতে গিয়ে নিগারা বলেন, “আপনি যখন অন্য কোনো দেশে শরণার্থী হয়ে থাকবেন তখন আপনাকে কেউই ভালো চোখে দেখবে না। আমার বেলাতেও তার ভিন্ন ঘটেনি। আমি ছোট বেলায় পাকিস্তানে গিয়েছিলাম। আমার আশেপাশে অনেক বাচ্চাদের দেখেছি যারা কষ্টে দিন কাটাত। আমরাও ছিলাম তাদের মতই এক পরিবার।”

“পেশোয়ারে যখন পাকিস্তানের জাতীয় সংগীত বাজতো, তখন খুব কষ্ট পেতাম। কারণ এটা তো আমার জাতীয় সংগীত নয়। গুনগুন করতাম। কিন্তু পাকিস্তানের প্রতি আমার হাজারো কৃতজ্ঞতা। পাকিস্তান আমাকে নতুন জীবন দিয়েছে। এজন্য সেই দেশের মানুষকে সব সময় ভালোবাসি।”

ছবিঃ আল জাজিরা।

অথচ এতদূর পর্যন্ত উঠে আসার পথ মসৃণ ছিল না এই অ্যাথলেটের। নানান প্রতিকূলতা পাড়ি দিয়ে নিজেকে তৈরি করেছেন সর্বোচ্চ শেখরের জন্য।

আরও খেলার খবরঃ   টোকিও অলিম্পিক | আর্চারিতে স্বর্ণ জিতলো তুরস্ক, জিমন্যাস্টিকসে বেলারুশ

অলিম্পিকে তার যাত্রাও আটকে যাওয়ার উপক্রম হয়েছিল। এ সম্পর্কে নিগারা আরো বলেন, “আমরা কাতারে প্রস্তুতি নিচ্ছিলাম। সেখানে আমাদের একজন কোভিড পজিটিভ হয়। মনে হচ্ছিল অলিম্পিকের সুযোগ আমরা হারিয়ে ফেললাম। কিন্তু কিছুদিন পর সব ধোঁয়াশা কেটে যায়।”

অলিম্পিকের মঞ্চে চূড়ান্ত প্রতিযোগিতায় নামার জন্য অপেক্ষায় আছেন নিগারা। জুলাই মাসের ২৮ জুডো ইভেন্টে লড়বেন তিনি।

সাম্প্রতিক খবর

বাংলাদেশ ফুটবল / যে কারণে মারিও লেমোসকে বেছে নিয়েছে বাফুফে
ক্লাব ফুটবল / ২০২৭ পর্যন্ত বার্সেলোনাতেই থাকছেন আনুস ফাতি
বাংলাদেশ ক্রিকেট / সাকিব-রিয়াদের ব্যাটে পিএনজির বিপক্ষে টাইগারদের পুঁজি ১৮১
বাংলাদেশ ফুটবল / ফিফা র‍্যাংকিংয়ে উন্নতি বাংলাদেশের
বাংলাদেশ ফুটবল / ঢাকায় এসে চ্যাম্পিয়নস লিগের সেই ফাইনালের কথা স্মরণ করলেন গ্রান্ট
ক্লাব ফুটবল / ২০২১-এর ক্লাব বিশ্বকাপ হবে আরব আমিরাতে
বাংলাদেশ ক্রিকেট / সুপার টুয়েলভে ওঠার মিশনে পিএনজির বিপক্ষে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ
টপ ট্রেন্ডিং সাকিব আল হাসান/ তামিম ইকবাল/ মুশফিকুর রহিম/ বিরাট কোহলি/ বাবর আজম/ মেসি/ নেইমার/ রোনালদো/ ব্রাজিল/ আর্জেন্টিনা/ রিয়াল মাদ্রিদ/ বার্সেলোনা/ পিএসজি