হেরে ব্রাজিলে ভাংচুর-মারামারি, ফুটবলারসহ আর্জেন্টিনার ৬ জন অভিযুক্ত!

প্রকাশ: বৃহস্পতিবার, ২২ জুলাই, ২০২১ | ২২:৫৪:৩৩

ডেস্ক রিপোর্ট

ছবিঃ ইন্টারনেট

ক্লাব ফুটবলে লাতিন আমেরিকার শ্রেষ্ঠত্বের আসর কোপা লিবের্তাদোরেসে ব্রাজিলিয়ান ক্লাব অ্যাথলেটিকো মিনেইরার কাছে হেরে গিয়ে ড্রেসিংরুমে আর্জেন্টিনার ঐতিহ্যবাহী ক্লাব বোকা জুনিয়র্স ফুটবলারদের হামলা, ভাংচুরের ঘটনায় মোট ছয়জনকে অভিযুক্ত করেছে ব্রাজিলিয়ান পুলিশ।

তারা সবাই বোকা জুনিয়র্স ক্লাবের খেলোয়াড় ও কর্মকর্তা। বুধবার এক বিবৃতিতে বিষয়টি জানিয়েছে মিনাস জেরাইস রাজ্যের পুলিশ। অভিযুক্ত ছয় জনের কারওই নাম প্রকাশ করেনি কর্তৃপক্ষ।

ছবিঃ টুইটার

আসল ঘটনার সূত্রপাত গত মঙ্গলবারে। লাতিন আমেরিকার ‘চ্যাম্পিয়নস লিগ’ খ্যাত কোপা লিবের্তাদোরেসের শেষ ষোলোর দ্বিতীয় লেগে মুখোমুখি হয়েছিল আর্জেন্টিনা ও ব্রাজিলের দুই দল। গোলশূন্য ড্রয়ের পর ম্যাচের ভাগ্য গড়া টাইব্রেকারে। স্পটকিকে বোকা জুনিয়র্সকে ৩-১ গোলে হারিয়ে পরবর্তী রাউন্ডে উঠে ব্রাজিলিয়ান ক্লাব অ্যাথলেটিকো মিনেইরো।

দুই দলের শেষ ষোলোর প্রথম লেগে ভিএআরে বাতিল হয়েছিল বোকা জুনিয়র্সের একটি গোল। এবার দ্বিতীয় লেগেও একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটে। দ্বিতীয়ার্ধে ভিএআরে অফসাইডের ফাঁদে বাতিল হয়ে যায় বোকার একটি গোল। যা নিয়ে মাঠেই এক দফা হট্টগোল হয়েছিল।

বোকার গোলটি যাচাই করতে যাওয়ার সময় ম্যাচ রেফারির দিকে ধেয়ে যাওয়া বোকার খেলোয়াড়দের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন ব্রাজিলিয়ান ক্লাবটির অফিসিয়ালরা। এই ঘটনায় তাৎক্ষণিক দুই পক্ষের সহকারী কোচকে লাল কার্ড দেখান ম্যাচ রেফারি।

ম্যাচশেষে আর্জেন্টাইন ক্লাবটির ফুটবলাররা আরও বেশি আক্রমণাত্মক হয়ে উঠে। টানেলে আরেক দফা মারামারি করার পর বোকার ফুটবলরার ব্যারিকেড ভেঙে জোর করে মিনেইরার ড্রেসিংরুমেও ঢুকে পড়ে। সেখানে ভাংচুর চালানোর পর পুলিশের সঙ্গেও সংঘর্ষ বাধে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ টিয়ার গ্যাস নিক্ষেপ করে। এত বোকার বেশ কয়েকজন খেলোয়াড় আহত হয়।

এই ঘটনায় আর্জেন্টাইন ক্লাবটির খেলোয়াড় ও কর্মকর্তা মিলিয়ে মোট ছয়জনকে আটক করে মিনাস জেরাইস রাজ্যের পুলিশ। ভাংচুরের ঘটনায় অভিযুক্ত দুইজন তিন হাজার জরিমানা দিয়ে ছাড়া পেলেও  বাকি চার জনের বিরুদ্ধে ড্রেসিংরুমে হামলা, কর্তৃপক্ষকে শারীরিকভাবে আক্রমণ ও অপমান করার অভিযোগ আনা হয়েছে। সময়মত বিচারকের সামনে হাজির হওয়ার শর্তে ছাড়া পেয়েছেন তারা।