ক্রিকেট > আন্তর্জাতিক ক্রিকেট

আইসিসি কর্তৃক তিরস্কৃত হলেন কিংস্টোন টেস্টের নায়ক জায়ডেন সিলস

নিউজ ডেস্ক

১৬ আগস্ট ২০২১, রাত ২:৩৬ সময়

[ images-125 ]
আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের অংশ হিসেবে পাকিস্তানের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ খেলতে নেমেছিলেন ক্যারিবিয়ান ফাস্ট বোলার জায়ডেন সিলস। যেটি তার ক্যারিয়ারের মাত্র তৃতীয় টেস্ট ম্যাচ। অথচ ক্যারিয়ারের সূচনালগ্নেই তার নামের পাশে লেগে গেল তিরস্কারের কালিমা। পাক অলরাউন্ডার হাসান আলিকে আউট করার পরে ‘অনুপযুক্ত’ ভাষা প্রয়োগ করে তিরস্কৃত হলেন ক্যারিবিয়ান ফাস্ট বোলার জায়ডেন সিলস। কিংস্টন টেস্টে পাকিস্তানের বিপক্ষে খেলতে নেমে আইসিসির 'কোড অফ কনডাক্ট'-এর লেভেল-ওয়ান ভঙ্গ করেছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের এই তরুণ ক্রিকেটার। যার ফলে চলতি বছরের জুনে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজে অভিষেক হওয়া ক্যারিবিয়ান তরুণ তারকা বোলারকে তিরস্কার করেছেন ম্যাচের আইসিসির রেফারি স্যার রিচি রিচার্ডসন। সিলস নিজের অপরাধ স্বীকার করে নেয়ায় আনুষ্ঠানিকভাবে আর কোন শুনানির প্রয়োজন পড়েনি। তবে এ যাত্রায় তাকে কোনও ধরনের আর্থিক জরিমানা করা হয়নি। তবে তার নামের পাশে যুক্ত হয়েছে একটি ডি-মেরিট পয়েন্ট। সিলস যে অপরাধ করেছেন তার সর্বোচ্চ শাস্তি ম্যাচ ফির ৫০ শতাংশ জরিমানা এবং দুইটি ডি-মেরিট পয়েন্ট। আগামী ২৪ মাসের মধ্যে নামের পাশে আর একটি পয়েন্ট যোগ হলে এক বা একাধিক ম্যাচের জন্য নিষিদ্ধ হতে পারেন সিলস। তবে ম্যাচ শেষে শেষ হাসিটা হেসেছেন সিলসই। ম্যাচে দুরন্ত বোলিং করে জিতে নিয়েছেন ম্যাচ সেরার পুরস্কার। ম্যাচে ১২৫ রান খরচ করে ৮ উইকেট শিকার করেছেন এই বোলার। দ্বিতীয় ইনিংসে ৫৫ রান খরচায় ক্যারিয়ার সেরা ৫ উইকেটই তাকে এনে দিয়েছে ম্যাচ সেরার খেতাব। কিংস্টোনে সিরিজের প্রথম টেস্টের প্রথম ইনিংসে ২১৭ রান করে অল আউট হয় সফরকারী পাকিস্তান। জবাবে ২৫৩ করে স্বাগতিকরা। দ্বিতীয় ইনিংসে মাত্র ২০৩ রানে পাকিরা গুটিয়ে গেলে জয়ের জন্য শেষ ইনিংসে ওয়েস্ট ইন্ডিজের দরকার ছিল ১৬৮ রান। উত্তেজনাপূর্ন ম্যাচে ৯ উইকেট হারিয়ে জয়ের বন্দরে নোঙর করে ওয়েস্ট ইন্ডিজ।