ফুটবল > বাংলাদেশ ফুটবল

দীর্ঘ দিন পর ফেরাটা 'সুখকর' হলো না বাংলাদেশের মেয়েদের

নিউজ ডেস্ক

৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, দুপুর ১:৩১ সময়

[ whatsapp-image-2021-09-09-at-6-24-27-pm ]
প্রায় আড়াই বছরের অধিক সময় পর আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলতে নেমে খানিকটা অচেনা রুপে দেখা গিয়েছে সাবিনা-কৃষ্ণাদের। শুরুটা অগোছালো হলেও সময় বাড়ার সাথে সাথে নিজেদের গুছিয়ে নিতে থাকে মেয়েরা। তবে শেষ পর্যন্ত হারের স্বাদ পাওয়ায় দীর্ঘ দিন পর আন্তর্জাতিক পর্যায়ে ফেরাটা সুখকর হলো না বাংলাদেশের মেয়েদের। বৃহস্পতিবার আন্তর্জাতিক ফ্রেন্ডলি ম্যাচে নেপালের দশরথ স্টেডিয়ামে স্বাগতিক নেপালের কাছে ২-১ গোলে হেরেছে বাংলাদেশ। গোলরক্ষক রুপনা চাকমার ভুলে প্রথমার্ধে দুই গোলে পিছিয়ে পড়লেও দ্বিতীয়ার্ধে এক গোল পরিশোধ করে লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা। নেপালের হয়ে দুটি গোল করেছেন সাবিতা রানা ও প্রীতি রায়। বাংলাদেশের হয়ে এক মাত্র গোলটি করেছেন তহুরা খাতুন। নিজেদের সর্বশেষ ম্যাচে সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের ভারতের কাছে ৪-০ গোলে হেরেছিল বাংলাদেশ। একই টুর্নামেন্টে নেপালের বিপক্ষে শেষ দেখায় ৩-০ গোলে হেরেছিল বাংলাদেশ। প্রায় আড়াই বছরের অধিক সময় ধরে আন্তর্জাতিক ফুটবলে ছিল না বাংলাদেশ নারী জাতীয় ফুটবল দল। দীর্ঘ দিন আন্তর্জাতিক ম্যাচ না খেলায় মনস্তাত্ত্বিক ভাবে পিছিয়ে থেকে নেপালের বিপক্ষে মাঠে নামে বাংলার মেয়েরা। অতীত পরিসংখ্যান ভুলে নিজেদের সেরাটা দেওয়ার প্রত্যয় নিয়ে মাঠে নেমেছিল মেয়েরা কিন্তু ঘরোয়া ফুটবলের সেই দাপুটে ফর্মের ছিটেফোঁটাও নেপালের বিপক্ষে দেখাতে পারেনি সাবিনা-কৃষ্ণারা। যদিও শুরুর দশ মিনিটে কোন দলই আক্রমণের সুযোগ বানাতে পারেনি। বল দখলের লড়াইয়েই ব্যতি ব্যস্ত ছিল উভয় দল। তবে সময় বাড়ার সাথে সাথে নিজেদের গুছিয়ে নিতে থাকা স্বাগতিকরা। ফলও পেয়ে যায় দ্রুত। ১৪ মিনিটে গোলরক্ষক রুপনা চাকমার ভুলে গোল হজম করে বসে বাংলাদেশ। ডান পাশ থেকে বিমালা চৌধুরির বাম পায়ের ক্রস করলে রুপনা চাকমা জায়গা ছেড়ে বের হয়ে আসেন। এই সুযোগে বক্সের মধ্য থেকে মাথা ছুঁইয়ে সহজেই লক্ষ্যভেদ করেন সাবিতা রানা। গোল হজমের পর কিছুটা আক্রমণাত্বক খেললেও আবারো ম্যাচের দখল নেয় নেপাল। ২৩তম মিনিটে বাংলাদেশ রক্ষণ ভাগকে হতাশায় ডূবিয়ে দ্বিতীয় গোল আদায় করে নেয় স্বাগতিকরা। প্রতি আক্রমণে মাঝ মাঠ থেকে সতীর্থের বাড়ানো বল বাংলাদেশের ডিফেন্ডারদের কোন রকম সুযোগ না দিয়ে বক্সের বাইরে থেকে বাম পায়ের শট নন প্রীতি রায়, গোলরক্ষক রুপনা চাকমা জায়গা ছেড়ে এগিয়ে আসলেও হাত বাড়িয়ে নাগাল না পাওয়ায় দূরের পোস্টে বল জালে জড়ায়। ৩৫ মিনিটে ম্যাচে ফেরার দারুণ সুযোগ পেয়েছিল বাংলাদেশ কিন্তু সাবিনার বুদ্ধিতৃপ্ত পাস থেকে স্বপ্নার শট লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়। বিরতি থেকে ফিরেই বাংলাদেশকে চেপে ধরে স্বাগতিকরা। ৪৯তম মিনিটে রুপনা চাকমাকে একা পেয়েও পরাস্ত করতে পারেননি প্রীতি রায়। বাম পাশ থেকে সারু লিমবুর হালকা কাট ব্যাক ফাঁকা জায়গায় থাকা প্রীতি শট নিলে দারুণ ভাবে ফিস্ট করেন রুপনা চাকমা। দুই গোল হজমের পর নেপালের উপর কিছু চড়াও হয়ে খেলতে থাকে বাংলার মেয়েরা। ৮১ মিনিটে সহজ সুযোগ নষ্ট করেন স্বপ্না। বল নিয়ে বক্সের মধ্যে ঢুকে পড়েন মনিকা চাকমা। সেখান থেকে হালকা করে পাস বাড়ান স্বপ্নার দিকে কিন্তু তার নেওয়া শট পোস্টে বাইরের জাল কাপায়। এরপরের মিনিটেই স্বপ্নাকে তুলে মাঠে নামানো হয় তহুরা খাতুনকে। মাঠে নেমেই গোল করে ব্যবধান কমান তহুরা। মাঝ মাঠে থেকে আসা বল ডান পাশ থেকে একক প্রচেষ্টায় নেপালের বক্সের সামনে চলে আসেন তহুরা। বক্সের ঠিক সামনে থেকে বাম পায়ের শট নিলে নেপালের আমরিতা জায়সির গায়ে লেগে দিক পালটে লক্ষ্যভেদ হয়। গোলের ব্যবধান কমিয়ে ম্যাচে সমতা ফেরানোর চেষ্টা করে বাংলাদেশ কিন্তু শেষ পর্যন্ত নেপালের রক্ষণ ভাগকে আর ভাঙ্গতে পারেনি মেয়েরা। আগামী ১২ সেপ্টেম্বর একই ভেন্যুতে দ্বিতীয় ম্যাচে লড়বে নেপাল ও বাংলাদেশ। ম্যাচ শুরু হবে বিকাল ৫টা ১৫ মিনিটে।