বিজ্ঞাপন

অফিসিয়াল গ্রুপে যোগ দিন

বাংলাদেশের স্পোর্টসভিত্তিক শীর্ষ অনলাইন ম্যাগাজিন

টপ ট্রেন্ডিং সাকিব আল হাসান/ তামিম ইকবাল/ মুশফিকুর রহিম/ বিরাট কোহলি/ বাবর আজম/ মেসি/ নেইমার/ রোনালদো/ ব্রাজিল/ আর্জেন্টিনা/ রিয়াল মাদ্রিদ/ বার্সেলোনা/ পিএসজি

জানুয়ারিতেই আড়াই হাজার কোটি টাকার খেলোয়াড় কিনবে নিউক্যাসেল!

প্রকাশ: শনিবার, ৯ অক্টোবর, ২০২১ | ২২:৪৩:১৮

ডেইলি স্পোর্টসবিডি ডেস্ক

ছবি - সংগৃহীত
ছবি - সংগৃহীত

এতোগুলা বছর সমর্থকদের সঙ্গী হয়েছে শুধুই হতাশা। সেইন্ট জেমস পার্ক থেকে সমর্থকরা ঘরে ফিরেছে এক রাশ হতাশা নিয়েই। টাইন নদীর পাড়ে এখন ফুটবল অন্তঃপ্রাণ এসব মানুষের ধৈর্য্যের বাধ ভেঙে গিয়েছে। তারা কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়েছে ক্লাবের মালিক মাইক অ্যাশলেকে। ২০০৭ সাল থেকেই নিউক্যাসেলের সঙ্গে আছেন ব্রিটিশ ধনকুবের। এই ১৩ বছরে মোট দু’বার ইপিএল থেকে অবনমিত হয়েছে ম্যাগপাইরা। এবার তাই পালাবদলের দাবি উঠেছে সব মহল থেকেই।

বেশ কয়েকবছর ধরেই ব্যাপক চাপের মুখে ছিলেন মাইক অ্যাশলে। এবার বাধ্য হয়েই ক্লাবটির সঙ্গে তার সম্পর্ক সত্যি সত্যিই ছিন্ন হলো। ১৩৫ মিলিয়ন পাউন্ডের বিনিময়ে মালিকানা পেয়েছিলেন অ্যাশলে।

ছবিঃ টুইটার

বর্তমানে এবার যার ভিত্তিমূল্য হয়েছে ৩০০ মিলিয়ন পাউন্ড। এমন চড়া মূল্যেই নিউক্যাসেলকে নিজেদের ক্লাব করে নিয়েছে পাবলিক ইনভেস্টমেন্ট ফান্ড পিআইএফ। ক্লাবের ৮০ শতাংশ মালিকানাই কিনে নিয়েছে সৌদির প্রভাবশালী যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের নিয়ন্ত্রাধীন বিশাল অর্থভাণ্ডারে ভরা প্রতিষ্ঠানটি।

নতুন ক্লাবের মালিকানায় জানুয়ারিতেই দলবদলের বাজারে ঝড় তোলার আভাস দিচ্ছে নিউক্যাসেল। বিশ্বের সর্ববৃহৎ পাবলিক ফান্ড পিআইএফ সামনের দলবদলের বাজারেই দলের বর্তমান অবস্থার উন্নতির জন্য ২০০ মিলিয়ন পাউন্ড খরচ করতে পারবে। ব্রিটিশ দৈনিক দ্যা টেলিগ্রাফের বরাতে এমনটাই জানা গেছে।

পত্রিকাটির দাবি, মাইক অ্যাশলের অধীনে নিউক্যাসেল বড় কোন সাফল্য না পেলেও বর্তমানে ক্লাবটির কোন বড় দেনা নেই। ব্রিটিশ ধনকুবের অধীনে সর্বশেষ তিন বছরে প্রায় ৩৮ মিলিয়ন পাউন্ড আয় করেছে ক্লাবটি। এফএফএ নিয়মে, যেকোন ক্লাব নিজেদের একাডেমির উন্নতির জন্য ৫০ মিলিয়ন খরচ করতে পারবে।

তাই, আগামী তিন দলবদলের বাজারে উয়েফার আর্থিক কাঠামোর নিয়মের মধ্যেই নিউক্যাসেল ইউনাইটেডের পিছনে সবমিলিয়ে প্রায় ২০০ মিলিয়ন পাউন্ড টাকা খরচ করতে পারবে পাবলিক ইনভেস্টমেন্ট ফান্ডের। বাংলাদেশি মুদ্রায় যা মাত্র ২ হাজার ৩২৮ কোটি ৪০ লক্ষ ৭৭ হাজার ৬৬০ টাকা মাত্র!

ছবিঃ টুইটার

টেলিগ্রাফ প্রতিবেদনে জানিয়েছে, বর্তমানে প্রিমিয়ার লিগে অবনমন অঞ্চলে থাকা ক্লাবটি প্রতিযোগিতায় টিকে থাকতে প্রাথমিক লক্ষ্য হিসেবে জানুয়ারিতেই ২০০ মিলিয়ন পাউন্ডের কাছাকাছি খরচ করবে। এই জন্য বেশকিছু খেলোয়াড়ের পিছনে লেগেছে ক্লাবটি। তাদের মধ্যে, পিএসজির গোলরক্ষক কেইলর নাভাস ও আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড মাউরো ইকার্দি অন্যতম।

আরও খেলার খবরঃ   সাফের 'রাউন্ড রবিন পদ্ধতি' পছন্দ নয় জেমি ডে'র

সাম্প্রতিক খবর

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট / বাংলাদেশের চেয়ে আমরাই ভালো দল: শানাকা
টি ২০ বিশ্বকাপ ২০২১ / বিশ্বকাপে আজকের খেলা: ৮ম দিন
আন্তর্জাতিক ক্রিকেট / ক্যারিবিয়ানদের বিধ্বস্ত করে টুর্নামেন্ট শুরু ইংল্যান্ডের
ক্লাব ফুটবল / ব্রাইটনকে উড়িয়ে দিল ম্যানচেস্টার সিটি
ক্লাব ফুটবল / হফেনহাইমের জালে বায়ার্নের চার গোল
টি ২০ বিশ্বকাপ ২০২১ / শ্রীলংকার বিপক্ষে ম্যাচে বাংলাদেশের একাদশ পরিবর্তনের আভাস
সময়সূচী / ২৪ অক্টোবর : খেলাপ্রেমীদের আজ যেন ঈদ
টপ ট্রেন্ডিং সাকিব আল হাসান/ তামিম ইকবাল/ মুশফিকুর রহিম/ বিরাট কোহলি/ বাবর আজম/ মেসি/ নেইমার/ রোনালদো/ ব্রাজিল/ আর্জেন্টিনা/ রিয়াল মাদ্রিদ/ বার্সেলোনা/ পিএসজি