বিজ্ঞাপন

অফিসিয়াল গ্রুপে যোগ দিন

বাংলাদেশের স্পোর্টসভিত্তিক শীর্ষ অনলাইন ম্যাগাজিন

টপ ট্রেন্ডিং সাকিব আল হাসান/ তামিম ইকবাল/ মুশফিকুর রহিম/ বিরাট কোহলি/ বাবর আজম/ মেসি/ নেইমার/ রোনালদো/ ব্রাজিল/ আর্জেন্টিনা/ রিয়াল মাদ্রিদ/ বার্সেলোনা/ পিএসজি

সেবার ওমানকে লন্ডভন্ড করেছিলেন তামিম-সাব্বির

প্রকাশ: সোমবার, ১৮ অক্টোবর, ২০২১ | ১৪:৫৭:২১

নিজস্ব প্রতিবেদক

এর আগে ওমানের সাথে একবারই খেলেছে বাংলাদেশ। টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপের গেলো বারের আসরে ভারতের ধর্মশালাতে বাংলাদেশ মুখোমুখি হয়েছিল ওমানের। সেই ম্যাচে প্রথমবারের মত কোন আর্ন্তজাতিক টি টোয়েন্টি ম্যাচে সেঞ্চুরি করে বাংলাদেশের ব্যাটসম্যান।

সেইম্যাচে ধর্মশালাতে রীতিমত তান্ডব চালিয়েছিলেন তামিম ইকবাল খান। ৬৩ বলে করেছিলেন অপরাজিত ১০৩ রান। যার মানে ২০ ওভারের মধ্যে ১০ ওভার ৩ বলই খেলেছিলেন তামিম। বাকি দশ ওভারে রান এসেছিল মোটে ৭৭। যার মধ্যে অতিরিক্ত রান ছিল ৪, অর্থাৎ বাকি সব ব্যাটসম্যান মিলে ৫৭ বলে করেছিল ৭৩ রান যেখানে তামিমের রান ৬৩ বলে ১০৩।

১০ টি চার আর পাঁচ ছক্কায় সেদিন ধর্মশালা মাত করে রেখেছিলেন তামিম ইকবাল। খান সাহেবের তান্ডবের দিনে সেদিন আরো একজন ভালো খেলেছিলেন। দুর্ভাগ্যবশত কিনা কে জানে সেও এবার টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপের দলে নেয়৷ সেই ম্যাচে দারুণ খেলেছিলেন সাব্বিরও৷

সাব্বির রহমান রুম্মান সেদিন করেছিলেন ২৬ বলে ৪৪ রান। পাঁচ চার এবং এক ছক্কায় সেদিন তামিমকে সঙ্গ দিয়েছিলেন তিনিও। পাক্কা পাঁচ বছর পর আবারও বিশ্বকাপে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ ওমান। এইম্যাচে জিততেই হবে বাংলাদেশকে৷ কিন্তু দলে নেই তামিম, দলে নেই সাব্বিরও।

তামিম সাব্বিরকে বদল করে আসা ক্রিকেটারদেরই তাই দ্বায়িত্ব নিতে হবে। পারবে কি বাংলাদেশ?

সাম্প্রতিক খবর

ক্লাব ফুটবল / অবসর নিতে ভয় পাওয়া ইব্রাহিমোভিচ ক্যারিয়ার শেষ করতে চান এসি মিলানে
বাংলাদেশ ফুটবল / মতিঝিলের টার্ফ মাতালেন ‘প্রতিবন্ধী’ ফুটবলাররা
আন্তর্জাতিক ক্রিকেট / দক্ষিণ আফ্রিকায় ভারত সফরের সূচি প্রকাশ
হকি / চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে ভাল খেলাই লক্ষ্য বাংলাদেশের
ক্লাব ফুটবল / প্যারিসের শীতে কষ্টে আছেন মেসি!
খেলাধুলায় মেয়েরা / বাংলাদেশ ফুটবল / সাফের শিরোপায় চোখ বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ নারী দলের
বাংলাদেশ ফুটবল / গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় মোহামেডানের
টপ ট্রেন্ডিং সাকিব আল হাসান/ তামিম ইকবাল/ মুশফিকুর রহিম/ বিরাট কোহলি/ বাবর আজম/ মেসি/ নেইমার/ রোনালদো/ ব্রাজিল/ আর্জেন্টিনা/ রিয়াল মাদ্রিদ/ বার্সেলোনা/ পিএসজি