ফুটবল > আন্তর্জাতিক ফুটবল

ছেলের ৬ বছরের ছোট ‘প্রেমিকের ভয়ে’ ঘর ছেড়ে পালালেন নেইমারের মা!

নিউজ ডেস্ক

২৫ জানুয়ারী ২০২২, দুপুর ১২:৩০ সময়

[ mantienen-una-relacion-de-mas ]
নেইমারের মা নাদিন সান্তোস ও প্রেমিক থিয়াগো রামোস। ছবিঃ ইন্টারনেট
নেইমারের বাবার সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছদের পর প্রায় চার বছর একাই কাটিয়েছিলেন ব্রাজিলিয়ান তারকা নেইমারের মা নাদিন সান্তোস গনসালভেস। তবে, দীর্ঘ কয়েক বছর পর আবারও প্রেমে পড়েন তিনি। ২০২০ সালে থিয়াগো রামোস নামে এক তরুণ ইনস্টাগ্রাম মডেলের সঙ্গে সম্পর্কে জড়ান। সেই সময় যার বয়স মাত্র ২২ বছর। নিজের ছেলে নেইমার জুনিয়রের চেয়েও ছয় বছরেরও ছোট ছিলেন নেইমারের মায়ের প্রেমিক রামোস! নতুন প্রেমের জন্য মাকে শুভেচ্ছাও জানিয়েছিলেন নেইমার। তবে, ৫৬ বছর বয়সে নিজের একাকিত্ব দূর করতে মাত্র ২২ বছর বয়সী ছেলের প্রেমে মশগুল হয়েও সুখী থাকতে পারেননি নাদিন সান্তোস গনসালভেস। মাত্র ১৫ দিনেই ভেঙে যায় নেইমারের মায়ের নতুন প্রেম। জানা যায়, থিয়াগো রামোস সমকামিতায় জড়িত থাকায় নেইমারের মা নিজেই সম্পর্ক ভেঙে দেন। [caption id="attachment_63779" align="aligncenter" width="958"] নেইমারের মা নাদিন সান্তোস ও প্রেমিক থিয়াগো রামোস। ছবিঃ ইন্টারনেট[/caption] সম্প্রতি দুজনও আবারও সম্পর্কে জড়িয়েছিল। দুজন ফের কাছে আসলেও ঝামেলা কমেনি একটুও। এবার উগ্র সেই প্রেমিকের ভয়ে অ্যাপার্টমেন্ট ছেড়েই পালিয়েছেন নেইমারের মা। ব্রাজিলিয়ান সংবাদমাধ্যম আইজির সাংবাদিক গ্যাব্রিয়েল পারলাইন এমনটাই দাবি করেছেন। গ্যাব্রিয়েল পারলাইন জানান, এক মাস আগে থিয়াগো রামোসের সাথে আবারও সম্পর্কে জড়ায় নেইমারের মা নাদিন গনসালভেস। কয়েকদিন দুজনের সময় বেশ ভালো কাটলেও আবারও ঝামেলা শুরু হয়েছে তাদের। নেইমারের মা ব্রাজিলের রিও ডি জেনিরোতে একটি বড় বাড়ি বানাচ্ছেন। কিন্তু, বাড়ির কাজ এখনও পুরোপুরি সম্পূর্ণ না হওয়ায় পাশেই একটি অ্যাপার্টমেন্ট ভাড়া নেন। কদিন আগে সেই অ্যাপার্টমেন্টেই দুজনের মধ্যে আবারও ঝগড়া হয়। মূলত, রামোসের মাত্রাতিরিক্ত আবদার মানতে রাজি না হওয়াতেই নাকি দুজনের মধ্যে সম্পর্কের অবনতি হয়েছে জানান পারলাইন। সেই অ্যাপার্টমেন্টের প্রতিবেশীদের বরাতে গ্যাব্রিয়েল আরও জানিয়েছে, ঝগড়ার দিন দুজনের চিৎকার, গালাগালি ও বোতল ভাঙচুরের শব্দ শুনেছেন তারা। এসময় একজন নারীকে কাঁদতেও নাকি শুনেছেন! [caption id="attachment_63780" align="aligncenter" width="1080"] দুই বছর আগে এই ছবির মাধ্যমেই সম্পর্কের কথা জানান দেয় দুজনে। ছবিঃ ইন্টারনেট[/caption] ঝগড়ার একপর্যায়ে অ্যাপার্টমেন্ট থেকে রামোস বের হয়ে যায়। সুযোগ বুঝে উগ্র প্রেমিকের ভয়ে নাদিনও পালিয়ে এসে আশ্রয় নেন এক আত্মীয়ের বাড়িতে! যদিও অ্যাপার্টমেন্ট ছেড়ে আসার আগে নেইমারের মা নিরাপত্তাকর্মীদের সতর্ক করে দিয়ে যান- রামোসকে যেন কোনভাবেই আর ঢুকতে না দেওয় হয়। এই ঘটনার পর নেইমারের মা এখন আত্মীয়ের বাড়িতে আছেন। আর থিয়াগো রামোস রি ডি জেনিরোতে আরেক বন্ধুর বাসায় থাকছেন।