ফুটবল > বাংলাদেশ ফুটবল

ঢাকার রিকশাওয়ালাদের সঙ্গে বাংলায় কথা বলেন বিশ্বকাপ খেলা কলিন্ড্রেস

নিউজ ডেস্ক

১২ জানুয়ারী ২০২২, সকাল ৪:১৩ সময়

[ fb_img_1641933671834 ]
ছবি - ফেসবুক
২০১৮ সালে বসুন্ধরা কিংসের হাত ধরে বাংলাদেশে আসেন ব্রাজিল বিশ্বকাপ খেলা কোস্টারিকান ড্যানিয়েল কলিন্ড্রেস। বসুন্ধরা কিংসের হয়ে প্রথম মৌসুমেই মাঠের খেলায় ছড়িয়েছিলেন আলো। তবে করোনাকালীন সময়ে কলিন্ড্রেসকে ধরে রাখতে পারেনি দলটি। নিজ দেশ কোস্টারিকায় ফিরে যান এই তারকা ফুটবল। এক মৌসুম নিজ দেশের একটি ক্লাবে কাটিয়ে ২০২১-২২ মৌসুম শুরুর আগে আবারো বাংলাদেশে ফেরেন কলিন্ড্রেস। তবে এবার আর বসুন্ধরা কিংস নয়, আবাহনী লিমিটেডের হয়ে খেলতে আসেন তিনি। দ্বিতীয় দফায় বাংলাদেশে এসেই করেছেন বাজিমাত। স্বাধীনতা কাপে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার মধ্য দিয়ে প্রায় তিন বছর পর আবাহনীকে কোন ট্রফি জয়ের স্বাদ পাওয়ায় বড় অবদান রাখেন এই কোস্টারিকান। এরপর ফেডারেশন কাপে দুর্দান্ত পারফরমেন্স করে চ্যাম্পিয়ন করেছে আবাহনীকে। কলিন্ড্রেসের লক্ষ্য এবার আবাহনীকে ট্রেবল জেতানো। [caption id="attachment_62142" align="aligncenter" width="720"] ছবি - ফেসবুক[/caption] দুই দফায় প্রায় দুই বছরের অধিক সময় বাংলাদেশে অবস্থান করছেন ড্যানিয়েল কলিন্ড্রেস। ঢাকার রাস্তায় চলাফেলা করার অভ্যাস রয়েছে এই বিশ্বকাপ খেলা ফুটবলারের। জান-যটের এই শহরে রিক্সায় ঘুরে বেড়াতে পছন্দ করেন তিনি। ঢাকার খাবার-দাবারও পছন্দ তার। বিরিয়ানি, গরুর মাংস নিয়মিতই খান তিনি। বাংলাদেশের ফুটবল, আবাহনী, ঢাকায় বসবাস ও নিজের পছন্দ সহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কথা বলেছেন ড্যানিয়েল কলিন্ড্রেস। প্রশ্ন: আবাহানীর ডাবল জেতার অন্যতম কারিগর আপনি? সামনে এখন ট্রেবলের হাতছানি। অনুভূতি কেমন? কলিন্ড্রেস: আমি আবাহনীতে দারুণ উপভোগ করছি। এখানে অনেক খুশি। প্রশ্ন: বসুন্ধরা থেকে আবাহনীর সংস্কৃতি কিছুটা আলাদা। এখানে কতটা উপভোগ করছেন? কলিন্ড্রেস: আমি পার্থক্য নিয়ে কিছু বলতে চাই না। আপনারা সেটা দেখছেন (আবাহনী-বসুন্ধরা পার্থক্য)। প্রশ্ন: আপনি এখন আবাহনীর হয়ে ট্রেবল জয়ের মুখোমুখি। কেমন মনে হচ্ছে? কলিন্ড্রেস: আমার জন্য এখন আবাহনীই সব কিছু। সবাই মিলে দলের জন্য আমরা ট্রেবল জিততে চাই। এটাই এখন আমাদের লক্ষ্য। [caption id="attachment_62143" align="aligncenter" width="720"] ছবি - ফেসবুক[/caption] প্রশ্ন: অনুষ্ঠানের মঞ্চে দাঁড়িয়ে বাংলা বললেন। বাংলা কী নিয়মিত চর্চা করছেন?? কলিন্ড্রেস: আমি কিছু শব্দ শিখেছি, যখন আমি কোনো সুপার মার্কেটে যাই, রিকশাওয়ালাদের সঙ্গে আমি বাংলা বলার চেষ্টা করি (বাংলা বলতে পারা নিয়ে)। এটা খুবই ভালো যে সবকিছু আমি উপভোগ করছি। প্রশ্ন: শুধু এখানেই বলছেন নাকি বাইরেও বাংলা বলার চেষ্টা করেন? কলিন্ড্রেস: যখন আমার কোনো জায়গায় যাওয়ার দরকার হয়, আমি তাদের সঙ্গে বাংলা বলার চেষ্টা করি। ডানে-বামে, রিকশা কই, কত টাকা-এ রকম কিছু শব্দ। প্রশ্ন: বাংলাদেশে আপনি নিজ দেশ কোস্টারিকাকে প্রতিনিধিত্ব করার বিষয়টিকে আপনি কীভাবে দেখছেন? কলিন্ড্রেস: আমি কোস্টারিকা সিটিজেন, আমি আমার দেশকে প্রতিনিধিত্ব করছি। আমি খুবই খুশি যে আমার পারফরম্যান্স দিয়ে দেশকে প্রতিনিধিত্ব করছি। প্রশ্ন: আবাহনী দারুণ করছে। বসুন্ধরা, সাইফ কিংবা রহমতগঞ্জের মতো দলগুলোর পারফরম্যান্স ভালো। শিরোপা লড়াইয়েও এখন প্রতিদ্বন্দ্বীতা বেড়েছে। এটাকে আপনি কীভাবে দেখছেন? কলিন্ড্রেস: আমিও মনে করি এখন লিগে আগের চেয়ে প্রতিদ্বন্দ্বীতা অনেক বেড়েছে। পাশাপাশি লিগের মানও আগের চেয়ে অনেক বেড়েছে। আশা করি সামনের দিনগুলোতে মাঠগুলো আরও ভালো হবে। কর্তৃপক্ষ আমাদের জন্য ভালো খেলার ব্যবস্থা করে দেবে। ঘাসের মাঠে খেলা হলে আরও ভালো হবে বলে আমার মনে হয়। [caption id="attachment_62144" align="aligncenter" width="720"] ছবি - ফেসবুক[/caption] প্রশ্ন: বাংলাদেশি ফুটবলারদের সঙ্গে খেলাটা কেমন উপভোগ করেন? কলিন্ড্রেস: আমরা যারা বিদেশি তারা এখানে খুশি এবং বাংলাদেশের ফুটবল এগিয়ে নেওয়ার ক্ষেত্রে নিজেদের সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা করছি। আমরা এখন ধাপে ধাপে এগিয়ে যাচ্ছি। প্রশ্ন: বাংলাদেশের কোন খাবারগুলো আপনার বিশেষ পছন্দের? কলিন্ড্রেস: চিকেন বিরিয়ানি, মাটন আমার পছন্দ। সকালের নাস্তায় নান রুটি প্রিয়।