ক্রিকেট > বাংলাদেশের ক্রিকেট

বড় স্কোরের আভাস দিয়ে চায়ের বিরতিতে নিউজিল্যান্ড, ল্যাথামের সেঞ্চুরি

নিউজ ডেস্ক

৯ জানুয়ারী ২০২২, রাত ৩:১ সময়

[ img_20220109_085806 ]
ছবি - টুইটার/এনজেডসি
ক্রাইস্টচার্চের হ্যাগলি ওভালে ২ ম্যাচ সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্টে লড়ছে স্বাগতিক নিউজিল্যান্ড ও বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। প্রথম ইনিংসে ব্যাটিংয়ে নেমে ১ম দিনের প্রথম সেশনের পর দ্বিতীয় সেশনেও দাপট দেখিয়েছে নিউজিল্যান্ড, সেঞ্চুরি তুলে নিয়েছেন কিউই অধিনায়ক টম ল্যাথাম। প্রথম দিনে বাংলাদেশের এখন পর্যন্ত একমাত্র সাফল্যটি অবশ্য এসেছে এই সেশনেই, ৫৪ রান করা ওপেনার উইল ইয়ংকে নাঈম শেখের ক্যাচ বানিয়েছেন পেসার শরিফুল ইসলাম। চায়ের বিরতিতে যাওয়ার আগ পর্যন্ত নিউজিল্যান্ডের সংগ্রহ ১ উইকেট হারিয়ে ২০২ রান, টেস্ট ক্যারিয়ারের ১২তম সেঞ্চুরি হাঁকানো টম ল্যাথাম ১১৮ ও ডেভন কনওয়ে ২৮ রানে ব্যাট করছেন। ম্যাচের শুরুতে অবশ্য সাফল্যটা পায় বাংলাদেশই, গুরুত্বপূর্ণ হয়ে ওঠা টসে জিতে বোলিং করার সিদ্ধান্ত নেয় টাইগার অধিনায়ক মুমিনুল হক, দুই পরিবর্তন নিয়ে মাঠে নামে বাংলাদেশ দল। প্রথম টেস্টে ইঞ্জুরিতে পড়া মাহমুদুল হাসান জয়ের জায়গায় ১০০তম বাংলাদেশি ক্রিকেটার হিসেবে টেস্টে অভিষেক হয়েছে নাঈম শেখের। [caption id="attachment_61727" align="aligncenter" width="2560"] ছবি - আইসিসি[/caption] এই ম্যাচে খেলছেন না ম্যাচের আগের দিন কুঁচকির ইঞ্জুরিতে পড়া মুশফিকুর রহিমও, তার জায়গায় সুযোগ পেয়েছেন নুরুল হাসান সোহান। ১৬ বছর পর শীর্ষ ৫ ক্রিকেটারের কোন সদস্য ছাড়া টেস্ট খেলছে বাংলাদেশ দল, সর্বশেষ ২০০৬ সালে চট্টগ্রাম টেস্টে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচে সাকিব আল হাসান, তামিম ইকবাল, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ও মাশরাফি মর্তুজাকে ছাড়া খেলেছিলো বাংলাদেশ। স্বাগতিকদের একাদশেও আছে একটি পরিবর্তন। বাদ পড়েছেন স্পিন বোলিং অলরাউন্ডার রাচিন রাবীন্দ্র, সুযোগ পেয়েছেন পেস বোলিং অলরাউন্ডার ড্যারিল মিচেল। সবুজ উইকেটে ম্যাচের আগে টসকে গুরুত্বপূর্ণ ভাবা হচ্ছিলো, সেই টস জিতলেও দিনের প্রথম সেশনে উইকেটের দেখা পায়নি বাংলাদেশ। উল্টো দুই সফল রিভিউয়ে নিউজিল্যান্ডকে দারুণ শুরু এনে দিয়েছেন টম ল্যাথাম ও উইল ইয়ং। [caption id="attachment_61724" align="aligncenter" width="2560"] ছবি - আইসিসি[/caption] পেসার এবাদত হোসেনের করা দিনের নবম ওভারে পরপর দুইবার লেগ-বিফোরের ফাঁদে পড়েন অধিনায়ক টম ল্যাথাম, দুইবারই আম্পায়ার আউট দিলেও রিভিউ নিয়ে বেঁচে যান কিউই এই ওপেনার। প্রথম সেশনে বাংলাদেশি পেসাররা আর কোন সুযোগ তৈরি করতে পারেননি, সেই সুযোগে ফিফটি তুলে নেন ল্যাথাম। একপাশে চালিয়ে খেলেছেন ল্যাথাম, তাকে দারুণ সঙ্গ দিচ্ছেন উইল ইয়ং। বিনা উইকেটে ৯২ রান নিয়ে মধ্যাহ্ন বিরতিতে যায় নিউজিল্যান্ড, বিরতি থেকে ফিরেও অবিচল দুই ওপেনারের ব্যাট। ৯৮ বলে ফিফটি তুলে নেন উইল ইয়ং, টাইগার বোলারদের হতাশা উপহার দিয়ে জুটি দীর্ঘ করতে থাকেন দুজন। তবে, ১১৪ রানে ৫ চারে ৫৪ রান করা ইয়ংকে নাঈম শেখের ক্যাচ বানিয়ে ১৪৮ রানের জুটি ভাঙেন পেসার শরিফুল ইসলাম।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

নিউজিল্যান্ড ২০২/১, ৫৪ ওভার; (টম ল্যাথাম ১১৮*, উইল ইয়ং ৫৪, ডেভন কনওয়ে ২৮*, শরিফুল ইসলাম ১/৩০)। প্রথম দিনের চায়ের বিরতি পর্যন্ত*