ক্রিকেট > আন্তর্জাতিক ক্রিকেট

শানাকার 'অভিষেক' সেঞ্চুরির পরেও জিম্বাবুয়ের কাছে হারলো শ্রীলঙ্কা

নিউজ ডেস্ক

১৮ জানুয়ারী ২০২২, রাত ৮:৫৬ সময়

[ fjzpipwwuaccdo7 ]
দাশুন শানাকা (ছবিঃ আইসিসি/ টুইটার)
তিনশতাধিক রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে ৬৩ রানেই ৪ উইকেট হারিয়ে বসেছিল শ্রীলঙ্কা। তবে, অধিনায়ক দাসুন শানাকার অভিষেক সেঞ্চুরিতে ঘুরে দাড়িয়েছিল স্বাগতিকরা, দেখছিল জয়ের স্বপ্ন। কিন্তু চাতারা, মুজরাবানির বোলিং নৈপুণ্যে শেষ পর্যন্ত বৃথা গেছে লঙ্কান অধিনায়কের দূর্দান্ত সেঞ্চুরি, শেষ হাসি হেসেছে সফরকারী জিম্বাবুয়ে। পাল্লেকেলেতে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই শেষে শ্রীলঙ্কাকে ২২ রানে হারিয়ে তিন ম্যাচের সিরিজে ১-১ এ সমতায় ফিরেছে জিম্বাবুয়ে। উল্লেখ্য, ২০১৮ সালের জানুয়ারির পর দীর্ঘ ৪ বছর পর লঙ্কানদের বিপক্ষে ওয়ানডে জিতলো জিম্বাবুয়ে। মঙ্গলবার টসে জিতে প্রথমে ব্যাটিংয়ে নেমে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ৩০২ রানের বিশাল সংগ্রহ দাড় করিয়েছিল সফরকারীরা। যেখানে ৯৮ বল মোকাবিলায় ১০ চারের সাহায্যে দলীয় সর্বোচ্চ ৯১ রান করেন জিম্বাবুয়ের অধিনায়ক। আর ৪৬ বলে ৪ চার আর ১ ছক্কায় দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৫৬ রান আসে ছয়ে নামা সিকান্দার রাজার ব্যাট থেকে। [caption id="attachment_63001" align="aligncenter" width="680"] ছবিঃ আইসিসি/ টুইটার[/caption] এছাড়া আগের ম্যাচের সেঞ্চুরিয়ান শন উইলিয়ামসের ব্যাট থেকে এসেছে ৪৮ রান এবং কিপার-ব্যাটার রেজিস চাকাভা করেছেন ৪৭ রান। শ্রীলঙ্কার পক্ষে ১০ ওভারে ৫১ রান খরচ করে ৩ উইকেট শিকার করেছেন ভ্যান্ডারসে। জবাবে খেলতে নেমে শানাকার অনবদ্য সেঞ্চুরির পরেও ৫০ ওভারে ২৮০ রানে থেমেছে স্বাগতিকদের ইনিংস। যেখানে ৬৩ রানের মধ্যে ৪ উইকেট হারিয়ে বসে শুরুতেই বিপদে পড়েছিল স্বাগতিকরা। তবে পঞ্চম উইকেট জুটিতে কামিন্দু মেন্ডিসকে নিয়ে প্রতিরোধ গড়ে শ্রীলঙ্কার অধিনায়ক দাসুন শানাকা। বিপর্যয় সামলে এই জুটিতে ১২০ বলে এই দুজন মিলে যোগ করেন ১১৮ রান। এরপর ৮২ বলে ৫৭ রানে কামিন্দু মেন্ডিস সাজঘরে ফিরলেও স্বাগতিকদের আশার আলো হয়ে টিকে ছিলেন শানাকা। ৫২ বলে ফিফটি করা লঙ্কান অধিনায়ক, ৯৩ বলে মিড উইকেট দিয়ে চাতারার বলে বিশাল ছক্কা মেরে পূরণ করেন ওয়ানডে ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি। [caption id="attachment_62999" align="aligncenter" width="680"] দাশুন শানাকা (ছবিঃ আইসিসি/ টুইটার)[/caption] তবে, ঠিক পরের বলেই লংঅনে ধরা পড়ে ১০২ রানে সাজঘরে ফিরেন শানাকা। দূর্দান্ত এই ইনিংসে ৭টি চার ও ৪টি ছক্কা আসে লঙ্কান দলপতির ব্যাট থেকে। শানাকা আউট হওয়ার পর ম্যাচ থেকে ছিটকে যায় শ্রীলঙ্কা। এরপর চামিকার ৩৪ রানের ইনিংসের সুবাদে শুধু পরাজয়ের ব্যবধানই কিছুটা কমেছে। ব্যাটারদের নৈপুণ্যে পর জিম্বাবুয়ের পক্ষে তিনটি করে উইকেট নিয়ে দলের জয়ে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখেছেন দুই পেসার টেন্ডাই চাতারা এবং ব্লেসিং মুজারাবানি। অবশ্য ব্যাট হাতে ৯১ রানের ইনিংসের সুবাদে ম্যাচ সেরার পুরস্কার বাগিয়ে নিয়েছেন জিম্বাবুয়ের অধিনায়ক ক্রেইগ আরভিন। সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ (টস- জিম্বাবুয়ে) জিম্বাবুয়েঃ ৩০২/৮ (৫০ ওভার); আরভিন ৯১, রাজা ৫৬, উইলিয়ামস ৪৮, চাকাভা ৪৭; ভ্যান্ডারসে ৩/৫১, প্রদিপ ২/৭৪ শ্রীলঙ্কাঃ ২৮০/৯ (৫০ ওভার) শানাকা ১০২, কামিন্দু মেন্ডিস ৫৭, চামিকা ৩৪, চাতারা ৩/৫২, মুজারাবানি ৩/৫৬ ফলাফলঃ জিম্বাবুয়ে ২২ রানে জয়ী। প্লেয়ার অব দ্য ম্যাচঃ ক্রেইগ আরভিন।