ক্রিকেট > বাংলাদেশের ক্রিকেট

সাকিব-বিসিবির মধ্যে যোগাযোগের ঘাটতি দেখছেন সুজন

নিউজ ডেস্ক

২৩ জানুয়ারী ২০২২, দুপুর ১:৩৯ সময়

[ images-2022-01-23t193358-621 ]
ছবি - সংগৃহীত
দেশের ক্রিকেটে সবচেয়ে বড় তারকা সাকিব আল হাসান। শুধু তারকা খ্যাতিই নয়, দলের সবচেয়ে বড় পারফর্মারও তিনিই। যে কারণে সাকিবের অবস্থান বা তার কর্মকাণ্ড বাংলাদেশের ক্রিকেটের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ, সাম্প্রতিক সময়ে পারফর্মেন্সের পাশাপাশি মাঠের বাহিরের কর্মকাণ্ড দিয়েও বেশ আলোচনার জন্ম দিয়েছেন সাকিব। বোর্ড কর্তাদের বিষয়ে মন্তব্য করে কিংবা ছুটি নিয়ে বোর্ডের অপেশাদারি আচরণের ব্যাপারে সরাসরি কথা বলে আলোচনার জন্ম দেন সাকিব, তার সাথে যুক্ত হয়েছে টেস্ট খেলতে না চাওয়া, হুটহাট ছুটি চাওয়া কিংবা ফ্রাঞ্চাইজি ভিত্তিক টি-টোয়েন্টি লিগ গুলোকে প্রাধান্য দেওয়ার মতো ঘটনা। বিষয় গুলো এতটাই প্রকট হয়ে গেছে যে বোর্ড ও সাকিবের অবস্থান কখনো কখনো সম্পূর্ণ বিপরীত মনে হয়, যার নেতিবাচক প্রভাব পড়ছে দল কিংবা এদেশের ক্রিকেটেও। বিসিবির প্রভাবশালী কর্মকর্তা ও ফরচুন বরিশালের কোচ খালেদ মাহমুদ সুজন অবশ্য এসব অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনায় বোর্ড ও সাকিবের মধ্যে যোগাযোগের ঘাটতিকেই দায়ী করছেন। এবারের বিপিএলে ফরচুন বরিশালের হয়ে খেলছেন সাকিব, দলটির অধিনায়কও বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডার। বর্তমানের আন্তর্জাতিক ব্যস্ততার সাথে ফ্রাঞ্চাইজি লিগ গুলোর উত্থান, সে লিগ গুলোতে সাকিবের চাহিদা, সাকিবের বয়স, সব মিলিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তাকে নিয়মিত পাচ্ছে না বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। সাকিবের ব্যস্ততা ও তার ৩ ফর্মেটে খেলার বিষয়ে খালেদ মাহমুদ সুজন বলেন, “সাকিব আমাদের দেশের ক্রিকেটারদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ক্রিকেট খেলে। জৈব ‍সুরক্ষা বলয় ফ্যাক্টরটা কিন্তু ওর জন্য অনেক বেশি হয়। অবশ্যই, সাকিব তিন ফরম্যাট খেলুক এটা আমরা সবাই চাই।” সুজন আরও বলেন, “তারপরও হয়তবা ওর সঙ্গে যদি বসি, আমরা যদি একটু কথা বলি, কোন ট্যুর গুলো গুরুত্বপূর্ণ না, বা টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের পয়েন্ট নাই কিংবা ওয়ানডেতে (ওয়ানডে সুপার লিগ) পয়েন্ট নাই, ওগুলাতে যদি আমরা ওকে বিরতি দেই এটা কোনো সমস্যা না।” এক্ষেত্রে সাকিব ও বিসিবির যোগাযোগ ঘাটতি আছে উল্লেখ করে সুজন বলেন, “ও আমাদের মূল ম্যাচগুলা যদি খেলে আমাদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ, সাকিবের সঙ্গে বসতে হবে। সে কোনো সময়ই বলেনি যে খেলবে না, ও বলেছে হয়তো এই সিরিজটা বা এই ম্যাচটা খেলবো না। আমার মনে হয় আমাদের যোগাযোগের ফারাক আছে।”