ফুটবল > বাংলাদেশ ফুটবল

সোমবার তপু বর্মণের অস্ত্রোপচার, দোয়া চেয়েছেন দেশবাসীর কাছে

নিউজ ডেস্ক

২৩ জানুয়ারী ২০২২, দুপুর ১:১৫ সময়

[ img-20211001-wa0031-2 ]
গত ৪ ডিসেম্বর স্বাধীনতা কাপে বাংলাদেশ পুলিশের বিপক্ষে ম্যাচে হাঁটুতে চোট পেয়েছিলেন জাতীয় দল ও বসুন্ধরা কিংসের ডিফেন্ডার তপু বর্মণ। সে সময় ছয় সপ্তাহের পর্যবেক্ষণে থাকার কথা জানালেও উন্নত চিকিৎসার জন্য গত ১৭ই জানুয়ারি ভারতের মুম্বাইয়ে গিয়েছেন তপু। মুম্বাইয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য গেলেও চিকিৎসক জানিয়েছেন, অস্ত্রোপচার করতে হবে তার পায়ে। সে অনুযায়ী আগামীকাল (সোমবার) সকালে মুম্বাইয়ের কোকিলাবেন ধীরুভাই আমবানি হাসপাতাল এবং মেডিকেল রিচার্স সেন্টারে অস্ত্রোপচার করা হবে। অস্ত্রোপচার সম্পন্ন করবেন উক্ত হাসপাতালের পরিচালক, আর্থ্রোস্কোপি, স্পোর্টস অর্থোপেডিকসের প্রধান ডাঃ দিনশো পারদিওয়ালা। [caption id="attachment_63526" align="aligncenter" width="1252"] দোয়া চেয়েছেন তপু।[/caption] এক বিবৃতিতে বিষয়টি নিশ্চিত করেছে বসুন্ধরা কিংস। বিবৃতিতে আরও বলেছে,"মুম্বাই থেকে দেশের সকল মানুষের কাছে দোয়া ও সমর্থনের অনুরোধ করেছে তপু বর্মণ। যাতে দ্রুত মাঠে ফিরতে পারে।" মুম্বাইয়ে তপু বর্মণকে সার্বিক সহায়তার জন্য তার সঙ্গে আছেন বসুন্ধরা কিংসের ফিজিও আবু সুফিয়ান সরকার। ডাঃ পারদিওয়ালা ভারতের অনেক ক্রীড়াবিদদের চিকিৎসা করেছেন। এদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো অলিম্পিক পদক বিজয়ী সাইনা নেহওয়াল, তিনটি পদক বিজয়ী ফোগাট কাজিন, ব্যাডমিন্টন খেলোয়াড় পারুপল্লী কাশ্যপ, বক্সার অখিল কুমার, কুস্তিগীর সুশীল কুমার এবং যোগেশ্বর দত্ত, বক্সার বিকাশ কৃষ্ণান, ব্যাডমিন্টন প্লেয়ার পর্দিওয়ালা। রাগবি অধিনায়ক হৃষি পেন্ডসে। অলিম্পিক স্বর্ণপদক বিজয়ী নীরজ চোপড়া (জ্যাভলিন) এবং সর্বশেষ শচীন টেন্ডুলকার এবং শ্রীলঙ্কান লাসিথ মালিঙ্গার মতো খেলোয়াড়ের চিকিৎসাও করেছেন। [caption id="attachment_63527" align="aligncenter" width="1280"] জাতীয় দলের জার্সিতে তপু বর্মণ।[/caption] ২০২১-২২ মৌসুমে মাত্র দুটি ম্যাচ খেলেছেন তপু বর্মণ। স্বাধীনতা কাপের প্রথম ম্যাচে পুরো ৯০ মিনিট খেললেও দ্বিতীয় ম্যাচের ৭০ মিনিটেই ইনজুরিতে পড়েন তপু। এরপর থেকে আছেন মাঠের বাইরে। তপুর ইনজুরিতে বেশ ভুগতে হচ্ছে বসুন্ধরা কিংসকে। স্বাধীনতা কাপের ফাইনালে উঠলেও আবাহনীর কাছে হেরে যায় তার দল। তবে তপু বর্মণকে মাঠে ফিরে পেতে বাংলার সমর্থকদের অপেক্ষা করতে হবে দীর্ঘ সময়। অস্ত্রোপচারের পর পূর্ণ ফিট হয়ে মাঠে ফিরতে তপুর লেগে যাবে প্রায় সাত-আট মাস। এতে এ মৌসুমে আর বসুন্ধরা কিংসের হয়ে মাঠে নামা হচ্ছে না তার। পাশাপাশি জাতীয় দলের হয়ে বেশ কিছু ম্যাচ মিস করবেন তিনি। তপু বর্মণের আগে গত বছর ভারতে চিকিৎসা নিতে গিয়েছিলেন জাতীল দলের ফরোয়ার্ড নাবীব নেওয়াজ জীবন।