ফুটবল > আন্তর্জাতিক ফুটবল

৭ মিনিটের ঝড়ে ‘বিচ্ছুদের স্বপ্ন ভেঙে’ সেমিফাইনালে আফ্রিকার অদম্য সিংহরা

নিউজ ডেস্ক

৩০ জানুয়ারী ২০২২, সকাল ৫:২৮ সময়

[ 20220130_112516 ]
ছবিঃ ইন্টারনেট
আফ্রিকা কাপ অব নেশন্সের ইতিহাসে অন্যতম সফল দল হচ্ছে ক্যামেরুন। আফ্রিকা মহাদেশের সেরা হওয়া লড়াইয়ে মিশরের পর সর্বাধিকবার চ্যাম্পিয়ন হয়েছে দলটি। ২০১৭ সালে মোহাম্মদ সালাহর মিশরকে হারিয়ে দ্বিতীয় সর্বাধিক পঞ্চমবারের মতো নিজদের মহাদেশে শ্রেষ্ঠত্বের মুকুট পড়েছিল আফ্রিকার অদম্য সিংহরা। আফ্রিকা ফুটবলের অন্যতম প্রভাবশালী দলটির গেল আসর ভালো কাটেনি। বহু প্রত্যাশা জাগিয়েও গ্যাবনে নাইজেরিয়ার কাছে হেরে আসরের শেষ ষোলো থেকেই বিদায় নিতে হয় তাদের। [caption id="attachment_64283" align="aligncenter" width="720"] ছবিঃ ইন্টারনেট[/caption] এক আসর পর ফের যেন হুশ ফিরে এলো ক্যামেরুনে। এবার নিজের দেশে হওয়া আফ্রিকা কাপ অব নেশন্সে সবার আগে প্রতিযোগিতার শেষ চার নিশ্চিত করেছে তারা। ইতিহাসে প্রথমবার আফ্রিকা মহাদেশের সেরা হওয়ার লড়াইয়ে খেলতে এসেই কোয়ার্টার ফাইনাল খেলা গাম্বিয়ার বাধা অতিক্রম করে ১২তম বারের মতো প্রতিযোগিতার সেমিফাইনাল নিশ্চিত করেছে আফ্রিকার অদম্য সিংহ খ্যাত দলটি। গতকাল (শনিবার) আফ্রিকা কাপ অব নেশন্সের শেষ আটে গাম্বিয়াকে ২-০ গোলে হারিয়েছ ক্যামেরুন। কার্ল ব্রিলিয়ান্ট টোকো একাম্বাইয়ের জোড়া গোলে আসরের শেষ চার নিশ্চিত হয়ে যায় স্বাগতিকদের। প্রথমার্ধের খেলা গোলশূন্য ড্র হলে বিরতির পর ক্যামেরুনের সাত মিনিটে দুই গোল করে ক্যামেরুনের জয় নিশ্চিত করেন অলিম্পিক লিঁও এর এই ফরোয়ার্ড। ঘরের মাঠে সেমিফাইনাল উঠার লড়াইয়ে গাম্বিয়াকে কোন পাত্তাই দেয়নি ক্যামেরুন। গোটা ম্যাচে বল দখলে লড়াইয়ে একচেটিয়া আধিপত্য বজায় রাখে স্বাগতিক দলটি। ম্যাচের ৬২ শতাংশ বলই নিজেদের দখলে রাখে তারা। গোলমুখে শটেও এগিয়ে ছিল স্বাগতিকরা। পুরো ম্যাচে গোলমুখে ১৮ শট নিয়ে ৭টিই লক্ষ্যে রাখে ক্যামেরুন। বিপরীতে আফ্রিকান ফুটবলে ‘বিচ্ছু’ খ্যাত গাম্বিয়া ২ শটে মাত্র ১টি লক্ষ্যে রাখতে পারে। [caption id="attachment_64284" align="aligncenter" width="1648"] ছবিঃ ইন্টারনেট[/caption] প্রায় অর্ধ লক্ষ ধারণক্ষমতা সম্পন্ন ডুয়ালা স্টোডিয়ামে ম্যাচের শুরু থেকেই গাম্বিয়ার রক্ষণে আক্রমণ শুরু করে ক্যামেরুন। কিন্তু, বিচ্ছুদের রক্ষণ কিছুতেই যেন চিড় ধরাতে পারছিল না স্বাগতিকরা। ক্যামেরুনের দুর্দান্ত সব আক্রমণ ঠেকিয়ে গাম্বিয়াকে ম্যাচে রাখেন বাবুকর গায়ে। প্রথমার্ধে গোলশূন্য সমতায় শেষ হয়। বিরতির পর মাঠে ফিরে আক্রমণের ধার আরও বাড়ায় ক্যামেরুন। মাত্র সাত মিনিটের ঝড়েই ম্যাচ নিজেদের নিয়ন্ত্রণে নিয়ে নেয় দলটি। ম্যাচের পঞ্চাশতম মিনিটে কলিন পাইয়ের পাস থেকে লক্ষ্যভেদ করেন কার্ল টোকো একাম্বাই। ৭ মিনিট পর ব্যবধান বাড়ান তিনিই। ৫৭তম মিনিটে মার্টিন হোংলার পাস থেকে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন একাম্বাই। ম্যাচের বাকি সময় আর কোন গোল না হলে ২-০ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে ক্যামেরুন। [caption id="attachment_64285" align="aligncenter" width="2048"] ছবিঃ টুইটার[/caption] আফ্রিকা কাপ অব নেশন্সে দ্বিতীয় কোয়ার্টার ফাইনাল এ জয় পেয়েছে বুর্কিন ফাসো। শেষ আটের লড়াইয়ে ডাঙ্গো কুয়াট্টারার একমাত্র গোলে সেমিফাইনাল নিশ্চিত করেছে দলটি। বিরতির আগে গোল করা কুয়াট্টা শেষ দিকে লালকার্ড দেখে মাঠ ছাড়লে বিপদে পড়ে বুর্কিনা ফাসো, তবে শেষ পর্যন্ত দশ জন নিয়েই তিউনিসিয়ার সব আক্রমণ রুখে দেয় দলটি। আফ্রিকা কাপ অব নেশন্সে তৃতীয়বার সেমিফাইনাল খেলবে তারা।