ফুটবল > ক্লাব ফুটবল

শার্প-শুটারের জোড়া আঘাতে ‘এক হালি গোল’ বার্সার

নিউজ ডেস্ক

২০ ফেব্রুয়ারি ২০২২, বিকাল ৬:৩৩ সময়

[ 20220221_003017 ]
ছবিঃ টুইটার
২০১৮ সালে জানুয়ারিতে বরুশিয়া ডর্টমুন্ড ছেড়ে আর্সেনালে যোগ দেন পিয়েরিক-এমেরি অবামেয়াং। তারপর থেকে গত চার বছরে ধরে গানার্সদের আক্রমণভাগের গোলের পসরা সাজিয়ে প্রতিপক্ষের রক্ষণে নিজেকে ‘শার্প-শুটার’ হিসেবে প্রমাণ করেছিলেন গ্যাবনিজ এই স্ট্রাইকার। তবে, ডিসেম্বরে নিয়ম ভাঙ্গার অভিযোগে মিকেল আর্তেতার দলে জায়গা হারান তিনি। তারপর উপায় না পেয়ে লিওনেল মেসির অভাব পূরণ করতে যোগ দেন বার্সেলোনায়। স্পেনে আসার পর থেকে নিজেকে ঠিকঠাক মেলে ধরতে পারেননি অবামেয়াং। এসময় বার্সেলোনাও নিজেদের হারিয়ে খুঁজছে। গত রোববার লা লিগায় এস্পানিয়লের বিপক্ষে ১-১ গোলে ড্র করার পর ইউরোপা লিগেও ঘরের মাঠে নাপোলির বিপক্ষে হোঁচট খায় জাভি হার্নান্দেজের দল। দুটো ম্যাচেই কাতালানদের আক্রমণভাগে ছিলেন অবামেয়াং। কিন্তু, কোন ম্যাচেই জ্বলে উঠতে পারেননি ৩২ বছর বয়সী এই স্ট্রাইকার। [caption id="attachment_66542" align="aligncenter" width="768"] ছবিঃ টুইটার[/caption] ব্যর্থতার বৃত্ত ভেঙে জ্বলে উঠেছে বার্সেলোনা। কাতালানদের জেগে উঠার পিছনে দ্যুতি ছড়ানো পেছনে অবদান রেখেছেন অবামেয়াংও। গ্যাবনিজ তারকার জোড়া গোলে ভালেনসিয়ার গিয়ে মাঠে রীতিমতো গোলউৎসব করল জাভি হার্নান্দেজের দল। আজ (রোববার) স্প্যানিশ লা লিগায় ম্যাচটি ৪-১ গোলে জিতেছে বার্সেলোনা। কাতালানদের হয়ে জোড়া গোল করেছেন পিয়েরিক-এমেরি অবামেয়াং। একটি করে গোল করেছেন ফ্রেংকি ডি ইয়ং ও পেদ্রি। ভালেনসিয়ার একমাত্র গোলটি করেছেন সোলের। সব ধরনের প্রতিযোগিতায় টানা দুই ম্যাচ ড্র করার পর জয়ে ফিরল বার্সেলোনা। ভালেনসিয়ার মাঠে এই নিয়ে সর্বশেষ ১৫ ম্যাচই অপরাজিত থাকলো কাতালানরা। মেস্তায়া স্টেডিয়ামে বল দখলের লড়াইয়ে যথারীতি এগিয়ে ছিল বার্সেলোনা। গোটা ম্যাচে ৬৫ শতাংশ বল নিজেদের পায়ে রাখে দলটি। যদিও গোলমুখে শট নেওয়া ক্ষেত্রে এগিয়ে ছিল ভালেনসিয়া। পুরো ম্যাচে ১১ শটের ৫টি লক্ষ্যে রাখে স্বাগতিকরা। বিপরীতে, ৬ শটের ৬টিই লক্ষ্যে রাখে জাভি শিষ্যরা। লা লিগায় জয়ে ফিরতে মরিয়া বার্সেলোনা মাত্র ১৫ মিনিটের ব্যবধানে তিন গোল করে ম্যাচ নিজেদের নিয়ন্ত্রণে নিয়ে নেয়। ম্যাচের ২৩তম মিনিট জর্দি আলবার পাস থেকে গোল করে কাতালানদের এগিয়ে দেন অবামেয়াং। ম্যাচের ৩২তম মিনিটে ফ্রেংকি ডি ইয়ং ব্যবধান দ্বিগুণ করেন। ৬ মিনিট পর গাভির পাস থেকে ব্যবধান আরও বাড়িয়ে নেন অবামেয়াং। প্রথমার্ধে ৩-০ গোলে এগিয়ে যায় সফরকারীরা। [caption id="attachment_66543" align="aligncenter" width="2048"] ছবিঃ টুইটার[/caption] বিরতির পর ম্যাচে ফেরার চেষ্টা করে ভালেনসিয়া। ৫২তম মিনিটে এক গোল শোধ করে স্বাগতিকরা। ব্রায়ানের ক্রসে হেডে লক্ষ্যভেদ করেন স্প্যানিশ মিডফিল্ডার সোলের। কিন্তু, তাতেও খুব লাভ হয়নি স্বাগতিকদের। ৬৩তম মিনিটে গাভি দুর্দান্ত এক গোল করে বার্সেলোনার এক হালি গোল পূর্ণ করেন। প্রায় ২৫ গজ দূর থেকে বুলেট গতির শটে গোলটি করেন বার্সেলোনার গোল্ডেন বয়। ম্যাচের বাকি সময় আর কোন গোল না হলে ৪-১ গোলের বড় জয় নিয়ে বাড়ি ফিরে বার্সেলোনা। [caption id="attachment_66544" align="aligncenter" width="2048"] ছবিঃ টুইটার[/caption] এই জয়ে ২৪ ম্যাচে ১১ জয় ও ৯ ড্রয়ে  ৪২ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের চারে ফিরল জাভি হার্নান্দেজের দল। সমান পয়েন্ট নিয়ে পাঁচ নম্বরে আছে এক ম্যাচ বেশি খেলা শিরোপাধারী অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদ। ২৫ ম্যাচে ৫৭ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে রিয়াল। ৬ পয়েন্ট কম নিয়ে দুইয়ে আছে সেভিয়া।