ফুটবল > ক্লাব ফুটবল

সালাহ-মানে নৈপুণ্যে ঘুরে দাঁড়িয়ে লিভারপুলের টানা ‘আট’

নিউজ ডেস্ক

১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২২, বিকাল ৭:২ সময়

[ 20220220_005859 ]
ছবিঃ টুইটার
প্রথমার্ধে আক্রমণের পসরা সাজিয়েও গোলের দেখা পায়নি লিভারপুল। বিরতির পর স্রোতের বিপরীতে গোল পেয়ে যায় নরউইচ সিটি। গোল খেয়ে হুশ ফিরে অলরেডদের। সাদিও মানে ও মোহাম্মদ সালাহর নৈপুণ্যে ঘুরে দাঁড়ায় দলটি। শেষদিকে, লুইস দিয়াস এসে বড় জয় নিশ্চিত করে ফেলে। আজ (শনিবার) ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচটি ৩-১ গোলে জিতেছে লিভারপুলে। ম্যাচে দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে মিলোট রাশিকার গোলে পিছিয়ে পড়ে ইয়ুর্গেন ক্লপের দল। পরে মোহাম্মদ সালাহ, সাদিও মানে ও লুইস দিয়াসের গোলে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে দলটি। এই নিয়ে সবধরনের প্রতিযোগিতায় নিজেদের সর্বশেষ ৮ ম্যাচেই জিতলো অলরেডরা। [caption id="attachment_66431" align="aligncenter" width="1024"] ছবিঃ টুইটার[/caption] অ্যানফিল্ডে গোটা ম্যাচে আধিপত্য বজায় রাখে ক্লপের দল। পুরো ম্যাচের ৭০ শতাংশ বল নিজেদের পায়ে রাখে দলটি। গোলমুখে শট নেওয়ার ক্ষেত্রেও একচ্ছত্র দাপট ছিল স্বাগতিকদের। পুরো ম্যাচে ২৯টি শট নিয়ে ৮টি লক্ষ্যে রাখে দলটি। বিপরীতে, ৬ শটের ১টি লক্ষ্যে রেখে গোল করে নরউইচ। আক্রমণ প্রতি আক্রমণের ম্যাচে পঞ্চম মিনিটে এগিয়ে যেতে পারত লিভারপুল। ডান দিক থেকে মোহাম্মদ সালাহর ক্রসে কাছ থেকে ভলিতে বল উড়িয়ে মারেন কসতাস সিমিকাস। ৯ মিনিট পর ভ্যান ডাইকের হেড ঠেকায় নরউইচ গোলরক্ষক। ২০তম মিনিটে সালাহর বল বাঁচান নরউইচ মিডফিল্ডার। ১৫ মিনিট পর লুইস দিয়াসকে পরাস্ত করেন গোলরক্ষক। প্রথমার্ধের খেলা গোলশূন্য ড্র হয়। বিরতির পর আক্রমণের ধার বাড়ায় লিভারপুলে। কিন্তু স্রোতের বিপরীতে গোল খেয়ে বসে দলটি। ৪৮তম মিনিটে মিমোট রাশিকা গোল করে অ্যানফিল্ডকে স্তব্ধ করে দেন। ডি-বক্সের বাইরে থেকে মিলো রাশিকার শট লিভারপুলের ডিফেন্ডার জোয়েল মাতিপের পায়ে লেগে দিক পাল্টে দূরের পোস্ট দিয়ে জালে জড়ায়। গোল খেয়েই তেলেবেগুনে জ্বলে উঠে অলরেডরা। একের পর এক আক্রমণের পসরা সাজায় দলটি। অবশেষে ৬৪তম মিনিটে সমতায়ও ফিরে স্বাগতিকরা। জর্ডান হেন্ডারসনের ক্রসে সিমিকাসের হেড পাসে ছয় গজ বক্সের মুখে অ্যাক্রোবেটিক শটে গোল করে দলকে সমতায় ফেরান সাদিও মানে। [caption id="attachment_66432" align="aligncenter" width="2560"] ছবিঃ টুইটার[/caption] তিন মিনিট পর ব্রাজিলিয়ান গোলরক্ষক অ্যালিসন বেকারের লম্বা পাস থেকে দারুণ দক্ষতায় লিভারপুল কে এগিয়ে দেন সালাহ। শেষ দিকে, নরউইচের কফিনে শেষ পেরেক ঠুকে দেন দিয়াস। ৮১তম মিনিটে হেন্ডারসনের থ্রু বল ধরে ডি-বক্সে গোলরক্ষককে পরাস্ত করে গোলটি করেন কলম্বিয়ান এই উইঙ্গার। বাকি সময় আর কোন গোল না হলে ৩-১ গোলের নয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে লিভারপুল। এদিকে, লিভারপুলের জয়ের দিন জিতেছে চেলসি ও আর্সেনালও। প্রতিপক্ষের মাঠে হাকিম জিয়েশের শেষ মুহুর্তের গোলে কষ্টার্জিত জয় পেয়েছে চেলসি। আর নিজেদের মাঠে এমিল স্মিথ ও বুকায়ো সাকার গোলে ব্রেন্টফোর্ডকে ২-১ গোলে হারিয়েছে গানার্সরা। [caption id="attachment_66434" align="aligncenter" width="612"] ছবিঃ টুইটার[/caption] ২৫ ম্যাচে ১৭ জয় ও ৬ ড্রয়ে ৫৭ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে আছে লিভারপুল। ২৫ ম্যাচে ১৪ জয় ও ৮ ড্রয়ে ৫০ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে আছে চেলসি। ২৩ ম্যাচে ১৩ জয় ও ৩ ড্রয়ে ৪২ পয়েন্ট নিয়ে ছয় নম্বরে আছে আর্সেনাল।