ফুটবল > বাংলাদেশ ফুটবল

আরামবাগের ম্যাচ পাতানো ফুটবলারদের নিষিদ্ধ করেছে ফিফা!

নিউজ ডেস্ক

৪ ফেব্রুয়ারি ২০২২, দুপুর ২:৩৫ সময়

[ arambag-samakal-61fd105a4e4a5 ]
ছবিঃ সমকাল
গত বছর আরামবাগ ক্রীড়া সংঘের বেটিং ও ম্যাচ পাতানোর ঘটনায় ঝড় বয়ে গিয়েছিল বাংলাদেশের ফুটবল অঙ্গনে । ম্যাচ পাতানো, লাইভ বেটিং ও ম্যাচ ম্যানুপুলেশনের অভিযোগ ক্লাবটিকে বেশ কড়া শাস্তি দেওয়া হয়েছিল। প্রিমিয়ার লিগে আরামবাগকে দুই মৌসুমের জন্য নিষিদ্ধ করেছিল বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) ডিসিপ্লিনারি কমিটি। শুধু তাই নয়, অনলাইন বেটিং ও ম্যাচ ম্যানুপুলেশনে অভিযুক্ত হওয়ায় শাস্তি পেয়েছিল ক্লাবটির কর্মকর্তা ও দেশি-বিদেশি ফুটবলাররাও। দেশি-বিদেশি সবমিলিয়ে আরামবাগের ১৩ জন ফুটবলারকে বিভিন্ন মেয়াদে নিষিদ্ধ করা হয়। [caption id="attachment_64888" align="aligncenter" width="800"] ছবিঃ সমকাল[/caption] এমনকি, গুরুতর এই অভিযোগে সংশ্লিষ্টতা পাওয়ায় ক্লাবটির সাবেক সভাপতি মিনহাজুল ইসলাম, সাবেক টিম ম্যানেজার গওহর জাহাঙ্গীর রুশো, সাবেক ভারতীয় ফিটনেস ট্রেনার মাইদুল ইসলাম, সাবেক সহকারী দলীয় ম্যানেজার আরিফ হোসেনকে ফুটবল থেকে আজীবন নিষিদ্ধ করা হয়। তাছাড়া, সাবেক ফিজিও ভারতীয় নাগরিক সঞ্জয় বোস ও সাবেক গেম এনালিস্ট আজিজুল শেখকে ১০ বছরের জন্য নিষিদ্ধ করা হয়। আরামবাগ ক্রীড়া সংঘকে দেওয়া শাস্তি বিষয়টি তখনই ফিফাকে চিঠি দিয়ে জানিয়েছিল বাফুফে। এবার জানা গেল বাফুফের ডিসিপ্লিনারি কমিটি দেওয়া সেই শাস্তি বহাল রেখেছে বিশ্ব ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থাও। আজ (শুক্রবার) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই বিষয়টি নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)। [caption id="attachment_64889" align="aligncenter" width="1080"] ছবিঃ ফেসবুক[/caption] আরামবাগে দেশী ফুটবলারদের মধ্যে আপেল মাহমুদ, আবুল কাশেম, আল আমিন, মোহাম্মদ রকি, জাহিদ হোসেন, কাজী রাহাদ মিয়া, মোস্তাফিজুর রহমান, ওমর ফারুক, রাকিবুল ইসলাম, মেহেদি হাসান এবং মিরাজ মোল্লা এক বছরের জন্য বিশ্ব ফুটবলে নিষিদ্ধ থাকবেন। আর সাবেক খেলোয়াড় শামীম রেজা নিষিদ্ধ থাকবেন দুই বছর। বিদেশীদের মধ্যে নাইজেরিয়ান খেলোয়াড় চিজোবা ক্রিস্টোফার দুই বছরের জন্য নিষিদ্ধ করা হয়েছে। অস্ট্রেলিয়ান ডিফেন্ডার স্মিথ ক্রিশ্চিয়ান তিন বছরের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছেন।