ফুটবল > ক্লাব ফুটবল

‘মেসিকে এখনও মিস করে বার্সেলোনা’

নিউজ ডেস্ক

১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২২, বিকাল ৫:৪৮ সময়

গত বছর অগাস্টে কিছু সময়ের জন্য যেন থমকে গিয়েছিল ফুটবল বিশ্ব। কেউ কখনও ঘুণাক্ষরেও যা কল্পনা করেনি, ঠিক সেটাই ঘটে গিয়েছিল। বার্সেলোনার সঙ্গে দীর্ঘ দুই দশকের সম্পর্ক ছিন্ন করে পিএসজিতে যোগ দেন লিওনেল মেসি। যদিও কাতালান ক্লাবটি সাথে থাকতে অনেক ছাড় দিয়ে হলেও নতুন চুক্তি করতে রাজি হয়ে ছিলেন আর্জেন্টাইন মহাতারকা। কিন্তু, ক্লাবের চরম অর্থনৈতিক দৈন্যতা ও লা লিগার ফিনান্সিয়াল ফেয়ার প্লে নিয়মের কারণে শেষ পর্যন্ত ভেস্তে যায় নতুন চুক্তির প্রক্রিয়া। অশ্রুসিক্ত চোখে বাধ্য হয়েই ভালোবাসা ক্লাবকে বিদায় বলেছিলেন সাতবারের বর্ষসেরা ফুটবলার। [caption id="attachment_66394" align="aligncenter" width="2048"] ছবিঃ টুইটার[/caption] ২১ বছরের দীর্ঘ পথচলায় স্প্যানিশ দলটির হয়ে মেসি গড়েছেন অজস্র রেকর্ড। চারটি চ্যাম্পিয়নস লিগ আর ১০টি লা লিগায় মিলিয়ে জিতেছেন ক্লাব ফুটবলের সম্ভাব্য সব শিরোপা। রেকর্ড ৬৭২ গোল করে ক্লাবটির ইতিহাসে সর্বোচ্চ গোলদাতা তিনি। কাতালানদের হয়ে সর্বোচ্চ অ্যাসিস্টও করেছেন তিনিই। মেসি চলে যাওয়ার পর বার্সেলোনা এখন নখদন্তহীন দুর্বল হয়ে গেছে অনেকটাই। লা লীগায় তো নিজেদের হারিয়ে খুজছেই; ১৮ বছর পর চ্যাম্পিয়নস লিগ থেকে বাদ পড়ে ইউরোপা লিগে অবনমন হয়েছে দলটি। আর ইউরোপের দ্বিতীয় সারির লিগেও ঘরের মাঠে ইতালিয়ান ক্লাব নাপোলিকে হারাতে পারেনি কাতালানরা। বার্সেলোনায় আসলে মেসি কি ছিলেন তা হাড়েহাড়েই টের পাচ্ছে দলটি। বিষয়টি মেনে নিয়েছে কাতালান ক্লাবটির মিডফিল্ডার ফ্র্যাংক ডি ইয়ং। ২০১৯ সালে ডাচ ক্লাব আয়াক্স ছেড়ে বার্সেলোনায় যোগ দেম ইয়ং। পরের দুই মৌসুম খেলেছিলেন মেসির সঙ্গে। মেসিকে ছাড়া দলের অবস্থা কেমন তা বুঝতে পারছেন তিনিও। সম্প্রতি, ইংলিশ দৈনিক দ্য গার্ডিয়ানে সঙ্গে কথা বলেন ফ্র্যাংক ডি ইয়ং। সেখানে লিওনেল মেসির প্রসঙ্গও উঠে আসে। ডাচ মিডফিল্ডার জানান, মেসির ক্লাব ছেড়ে যাওয়াটা ছিল বড় ধাক্কা। ক্লাবে সবাই এখনও মেসিকে মিস করে। “প্রথমত, আমি ভেবেছিলাম এটি (মেসির বিদায়) সত্য নয়।” “আমি বিমানবন্দর থেকে বাবা এবং ভাইকে আনতে এগিয়ে ছিলাম। তারপর একটা বার্তা পেলাম, ‘মেসি বার্সেলোনা ছাড়ছেন’। একটু পরে আমরা বুঝতে পেয়েছি, যে এটি সত্যিই ঘটছে। তাই আসলেই এটি যখন ঘটল তখন আমার জন্য তা ছিল ধাক্কা।” [caption id="attachment_66395" align="aligncenter" width="1200"] ছবিঃ ইন্টারনেট[/caption] “এটা সবার জন্যই বড় আঘাত ছিল। আমরা এখনও তাকে মিস করি। তার মতো কেউ যদি আর ক্লাবে না থাকে, তাহলে ব্যাপারটা হঠাৎ করেই সব বদলে যায়।”