ফুটবল > আন্তর্জাতিক ফুটবল

আর্জেন্টিনা দলে ফিরেছেন মেসি, বাদ পড়লেন দিবালা-মার্টিনেজ

ভেনেজুয়েলা ও ইকুয়েডরের বিপক্ষে ম্যাচের জন্য আর্জেন্টিনার দল ঘোষণা করেছেন লিওনেল স্কালোনি।

ডেস্ক রিপোর্ট

১৮ মার্চ ২০২২, রাত ১০:৪১ সময়

[ 830384c6e270b164.jpg ]
ইন্টারনেট

চলতি বছর জানুয়ারিতে চিলি ও কলম্বিয়ার বিপক্ষে ম্যাচে খেলতে পারেননি লিওনেল মেসি। এ দুটি ম্যাচের জন্য কোচ স্কালোনি দল দেওয়ার ঠিক আগে কোভিড আক্রান্ত হয়েছিলেন সাতবারের বর্ষসেরা এ ফুটবলার। 

যদিও পরে রিপোর্ট দ্রুতই কোভিড নেগেটিভ আসে মেসির, কিন্তু আগেই বিশ্বকাপ নিশ্চিত করে ফেলায় ফরাসি ক্লাব পিএসজির অনুরোধে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার ধকল কাটিয়ে ওঠার সুযোগ দিতে দলের সেরা তারকাকে ছাড়াই খেলে আর্জেন্টিনা।

অবশেষে দুই ম্যাচ পর আর্জেন্টিনা দলে ফিরেছেন ইতিহাসের অন্যতম সেরা ফুটবলার। আজ (শুক্রবার) ভেনেজুয়েলা ও ইকুয়েডরের বিপক্ষে ম্যাচের জন্য দল ঘোষণা করেন আর্জেন্টিনা কোচ। দলের সেরা তারকা ফিরলেও চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ব্রাজিলে মাটিতে গিয়ে করোনা প্রটোকল অনুসরণ না করে নিষিদ্ধ হওয়া গোলরক্ষক এমি মার্টিনেজ ছাড়াও আরও তিনজনকে পাচ্ছেন না স্কালোনি। 

তাদের মধ্যে আছেন ক্রিশ্চিয়ান রোমেরো, এমিলিয়ানো বুয়েন্দিয়া ও জিওভানি লো সেলসো। চোট থেকে মাত্র ফিরলেও জুভেন্টাস ফরোয়ার্ড দিবালাকে দলে রাখেন নি আর্জেন্টিনা কোচ। চোটের কারণে আকাশী-নীল দলে নেই মার্কোস আকুনা ও আলেজান্দ্রো গোমেজ। তবে, চমক হিসেবে ডাক পেয়েছেন তরুণ মিডফিল্ডার আলেজান্দ্রো গারনাচো। 

কাতার বিশ্বকাপ বাছাইয়ে চলতি মাসের ২৫ মার্চ ভেনেজুয়েলার মুখোমুখি হবে আর্জেন্টিনা। চার দিন পর আলবিসেলেস্তেদের প্রতিপক্ষ ইকুয়েডর।

সবধরনের প্রতিযোগিতা মিলিয়ে নিজেদের সর্বশেষ ২৯ ম্যাচে অপরাজিত আছে আর্জেন্টিনা। লাতিন আমেরিকা চ্যাম্পিয়নরা ইতিমধ্যে এই অঞ্চল থেকে কাতারের টিকিটও নিশ্চিত করে ফেলেছে। বিশ্বকাপ বাছাইয়ে লাতিন আমেরিকা অঞ্চলে ১৫ ম্যাচে ১০ জয় ও পাঁচ ড্রয়ে ৩৫ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে আছে লিওনেল স্কালোনির দল। সমান ম্যাচে ৪ পয়েন্ট বেশি নিয়ে শীর্ষে আছে পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল।

৩৩ সদস্যের আর্জেন্টিনা দল:

গোলরক্ষক: 

ফ্রাঙ্কো আরমানি, হুয়ান মুস্সো, জেরোনিমো রুলি।

ডিফেন্ডার: 

গঞ্জালো মনতিয়েল, হুয়ান ফয়েত, নাউয়েল মোলিনা, হেরমান পেস্সেইয়া, লুকাস মার্তিনেস কুয়ার্তা, নিকোলাস ওতামেন্দি, লিসান্দ্রো মার্তিনেস, নিকোলাস তাগলিয়াফিকো।

মিডফিল্ডার: 

ফ্রাঙ্কো কারবোনি, লেয়ান্দ্রো পারেদেস, গিদো রদ্রিগেস, রদ্রিগো দে পল,এসেকিয়েল পালাসিওস, লুকা রোমেরো, আলেক্সিস মাক আলিসতের, ভালেন্তিন কারবোনি, আলেহান্দ্রো গারনাচো, নিকোলাস পাস, তিয়াগো জেরালনিক, মানুয়েল লানসিনি।

ফরোয়ার্ড: 

আনহেল কোররেয়া, মাতিয়াস সুলে, লুকাস ওকাম্পোস, আনহেল দি মারিয়া, নিকোলাস গঞ্জালেজ, হোয়াকিন কোররেয়া, লিওনেল মেসি, লুকাস বোয়ে, লাউতারো মার্তিনেস ও হুলিয়ান আলভারেস।