ফুটবল > আন্তর্জাতিক ফুটবল

সালাহ নাকি মানে, কে যাবে কাতার বিশ্বকাপে?

দুই বন্ধুর মধ্যে বিশ্বকাপে খেলবে কে- ফয়সালা হবে রাতে।

ডেস্ক রিপোর্ট

২৯ মার্চ ২০২২, দুপুর ১২:২৫ সময়

[ Screenshot_20220329-122429_Gallery.jpg ]
টুইটার

দুই দলের আগের লড়াইও হয়েছে হাড্ডাহাড্ডি। গোল করার সুযোগ পেয়েছিল দুদলই। কিন্ত, আক্রমণ ভাগের ফুটবলারদের ব্যর্থতায় সুযোগ কেউই কাজে লাগাতে পারেনি। উল্টো, সেনেগালের করা আত্মঘাতী গোলেই বিশ্বকাপের পথে এক পা বাড়িয়ে রেখেছে মিশর। 

বেশিদিন হয়নি মহাদেশীয় সেরা হওয়ার লড়াইয়ে মাঠে নেমেছিলো দুদল। আফ্রিকা কাপ অব নেশন্সের সেই ফাইনালে নির্ধারিত সময়ের খেলা গোলশূন্য ড্র হওয়ার পর টাইব্রেকারে মোহাম্মদ সালাহদের হারিয়ে প্রথমবার শিরোপা জিতে সাদিও মানের সেনেগাল। 

দুমাস যেতে না যেতেই আফ্রিকান ফুটবলের দুই সুপার পাওয়ারের একে অপরের বিপক্ষে পড়ছে কঠিনতম এক পরীক্ষায়। এবারের ম্যাচটিও আফ্রিকা কাপ অব নেশন্সের চেয়েও কোন অংশে ছোট নয়। কেননা, এই লড়াই হচ্ছে কাতার বিশ্বকাপ নিশ্চিত করতে আফ্রিকা অঞ্চলের শেষ রাউন্ড। 

আজ (মঙ্গলবার) রাতে আফ্রিকা অঞ্চলের বিশ্বকাপ বাছাইয়ে শেষ রাউন্ডের শেষ লেগে খেলবে দুদল। কাতারের টিকিট পেতে ঘরের মাঠে সেনেগালের চাই জয়; সফরকারী মিশর ড্র করতে পারলেই চলবে। এই লেগেই ফয়সালা হবে বিশ্বকাপ খেলতে কে যাচ্ছে কাতারে। 

আগের লড়াইয়ে ১-০ গোলের জয়ে কিছুটা এগিয়ে আছে মিশর। তবে, ঘরে মাঠে দর্শকদের বাড়তি সুবিধা নিয়ে সে ব্যবধান ঘুচানো কঠিন কিছু নয় সেনেগালের। আফ্রিকা কাপ অব নেশন্সের মোহাম্মদ সালাহদের হারানোর সুখস্মৃতি যে এখনও তাজা আছে সাদিও মানেদের। 

দুদলের সর্বশেষ পাঁচ দেখায় এগিয়ে আছে সেনেগাল। মিশরের বিপক্ষে এ সময়ে তিনবারই জিতেছে দলটি। হেরেছে বাকি দুই ম্যাচ। যদিও, মোট পরিসংখ্যান কথা বলবে মোহাম্মদ সালাহদের হয়ে। আফ্রিকান ফুটবলের অন্যতম সেরা দুদল সবমিলিয়ে ১৪ ম্যাচ মুখোমুখি হয়েছে। যেখানে মিশরের জয় ৭টি, সেনেগালের ৫টি। আর বাকি দুটি ড্র হয়েছে। 

বিশ্বকাপ বাছাইয়ে আফ্রিকা অঞ্চলের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে।