ফুটবল > আন্তর্জাতিক ফুটবল

নেইমারকে ছাড়াই বলিভিয়ার নরকে ‘এক হালি’ গোলে আর্জেন্টিনার রেকর্ড ভাঙলো ব্রাজিল

বিশ্বকাপ বাছাইয়ে বলিভিয়াকে ৪-০ গোলে হারিয়েছে ব্রাজিল।

ডেস্ক রিপোর্ট

৩০ মার্চ ২০২২, সকাল ৯:২১ সময়

[ InShot_20220330_091459591.jpg ]
টুইটার

পৃথিবীর সবচেয়ে উচ্চতম মাঠগুলোর একটি বলিভিয়ার লা পাজের এস্তাদিও হার্নান্দো সাইলেস স্টেডিয়াম। সুমদ্রপৃষ্ঠ থেকে প্রায় ৩৬০০ মিটার উঁচুতে অবস্থিত এই স্টেডিয়ামে ২০১৫ সালে বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব খেলতে যেয়ে শ্বাসের অভাবে অক্সিজেন মাস্ক পর্যন্ত পরতে হয়েছিল ব্রাজিল দলকে। কষ্টকর সে যাত্রায় ১-১ গোলে ড্র করেছিল নেইমাররা। 

তবে, ফুটবলারদের জন্য নরক সমান সেই মাঠে এবার বলিভিয়াকে ৪-০ গোলে উড়িয়ে দিলো নেইমারবিহীন ব্রাজিল। আর এর মধ্য দিয়ে ২০ বছর আগে গড়া চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী আর্জেন্টিনার দুর্দান্ত এক রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে সেলেসাওরা।

এবারের বিশ্বকাপ বাছাইয়ে বলিভিয়ার বিপক্ষে জয়ের পর ১৭ ম্যাচ শেষে ব্রাজিলের পয়েন্ট গিয়ে দাঁড়ালো ৪৫ পয়েন্টে। যা দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চলের বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে সর্বোচ্চ পয়েন্ট পাওয়ার রেকর্ড। এর আগে ২০০২ বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে কোচ মার্সেলো বিয়েলসার অধীনে এই অঞ্চলে সর্বোচ্চ ৪৩ পয়েন্ট অর্জন করেছিল আর্জেন্টিনা। 

হলুদ কার্ড নিষেধাজ্ঞায় বলিভিয়ার বিপক্ষে এদিন ব্রাজিল দলে ছিলেন না দুই তারকা ফুটবলার নেইমার ও ভিনিসিয়ুস। তবে মাঠের খেলা স্বাগতিকদের কোনো পাত্তা দেয়নি পাকেতা-গুইমারেজ-রিচার্লিসনরা। প্রথমার্ধে ২-০ গোলে এগিয়ে যাওয়ার পর, দ্বিতীয়ার্ধে আরও দুই গোল করে ৪-০ গোলের বড় জয় নিয়েই মাঠ ছেড়ে তিতের শিষ্যরা। 

লা পাজের এস্তাদিও হার্নান্দো সাইলেস স্টেডিয়ামে আজ ম্যাচের ২৪ মিনিটে প্রথম গোলের দেখা পায় ব্রাজিল। গুইমারেজের নজরকাড়া সলো মুভের পর, তার বুদ্ধিদীপ্ত পাসে সেলেসাওদের এগিয়ে দেন পাকেতা। এরপর প্রথমার্ধের শেষ মিনিটে বলিভিয়ার রক্ষণের ভুলে ব্রাজিলকে আবারও এগিয়ে দেন রিচার্লিসন।

প্রথর্মাধে অবশ্য সুযোগ এসেছিল বলিভিয়ার কাছেও। তবে দারুণ দুটি গোলের সুযোগ 'মিস' করেন ফরোয়ার্ড হেনরি ভাসা। এছাড়া দারুণ এক সেভে ব্রাজিলকে বাঁচিয়ে দেন গোলকিপার আলিসন বেকারও।

বিরতি থেকে ফিরে দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে ব্রাজিলের উপর চাপ সৃষ্টি করে বলিভিয়া। তবে দারুণ দুটি সেভে এ যাত্রায়ও ত্রাণকর্তা হয়ে ব্রাজিলকে রক্ষা করেন আলিসন।

বলিভিয়ার আক্রমণ সামলিয়ে উল্টো ৬৮  মিনিটে আবারও গোল করে ব্রাজিল। এবার পাকেতার পাস দৃষ্টিনন্দন এক ভলিতে জালের ঠিকানা খুঁজে পান গুইমারেজ। যা দেশের হয়ে তার আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারের প্রথম গোল।

এরপর অতিরিক্ত সময়ে নিজের দ্বিতীয় ও ব্রাজিলের চার নম্বর গোলটি রিচার্লিসনের।