ফুটবল > বাংলাদেশ ফুটবল

আমি কোন জাদুকর নই: কাজী সালাউদ্দীন

বাংলাদেশকে বিশ্বকাপে তোলার প্রতিশ্রুতি দিয়েও পূরণ করতে না পেরে বাফুফে সভাপতি জানান, তিনি কোন জাদুকর নন। 

ডেস্ক রিপোর্ট

১ এপ্রিল ২০২২, দুপুর ১১:২৮ সময়

[ salahuddin.jpg ]
সংগৃহীত

কিংবদন্তি ফুটবলার কাজী সালাউদ্দিন বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) সভাপতি নির্বাচিত হওয়ার পর সবার প্রত্যাশা ছিলো আকাশচুম্বী। দেশের ফুটবলের প্রথম সুপারস্টারের হাত ধরে বদলে যাবে বাংলাদেশের ফুটবল এমনটাই ছিল সবার ভাবনা। 

শুরুতে লিওনেল মেসির মতো বড় তারকাকে ঢাকার মাঠে খেলানো, ঘরোয়া ফুটবলের সর্বোচ্চ লিগ নিয়মিত আয়োজন করে সুনামও কুড়িয়েছিলেন। 

কিন্তু, দিন যত যায় সালাউদ্দিনের ব্যর্থতার পাল্লা ততই ভারী হতে থাকে। কিংবদন্তি এই ফুটবলারের অধীনে দিনের পর দিন জাতীয় দলের ফিফা র‌্যাংকিংয়ে নিচে দিকেই নেমেছে। তার বোর্ডের বিরুদ্ধে রয়েছে দুর্নীতির সুবিশাল অভিযোগ।

এতকিছুর মাঝেও বাংলাদেশকে বিশ্বকাপে নিয়ে যাওয়ার স্বপ্ন দেখেছিলেন কাজী সালাউদ্দীন। বারবার বলেছিলেন তার লক্ষ্য-‘দ্য গ্রেটেস্ট শো অন আর্থ’। একবার তো বলেই ফেলেছিলেন, ২০২২ বিশ্বকাপেই বাংলাদেশকে খেলাবেন তিনি!

কিন্তু, তা আর হলো কই! অনেক আগেই শেষ বাংলাদেশের কাতার  বিশ্বকাপ খেলার স্বপ্ন। এশিয়ান কাপের চূড়ান্ত পর্বে খেলারও যোগ্যতা অর্জন করতে পারেনি দল। এসময়ে দেশের ফুটবল শুধু পিছিয়েছে।

যার সবশেষ সংযোজন হয়েছে নিজেদের শেষ দুটো আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচে জিততে না পেরে ফিফা র‍্যাংকিংয়ে আরও ধাপ নিচে নেমে যাওয়া।

ইতোমধ্যে, ২০২২ কাতার বিশ্বকাপের ৩২ দলের ২৯টিই নিশ্চিত হয়ে গেছে। এসময় কাজী সালাউদ্দীন কথা বলেছেন, বাংলাদেশকে বিশ্বকাপে তোলার নিজের প্রতিশ্রুতি নিয়েও।

সম্প্রতি বিবিসি বাংলাকে দেওয়া সাক্ষাতকারে বাফুফে সভাপতি জানান, বাংলাদেশ বিশ্বকাপে খেলতে না পারায় কেয়ামত হয়ে যায়নি। তিনি কোন জাদুকরও নন। 

কাতার বিশ্বকাপে খেলার প্রতিশ্রুতি দিয়েও কেন তা পূরণ করতে পারেননি বিবিসির এমন প্রশ্নের জবাবে কাজি সালাউদ্দিন বলেন,

“পারি নাই। কিন্তু এতেতো কেয়ামত হয়ে যায়নি! আমি তো কোন জাদুকর নই।”